প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর, ২০১৭ ০২:৩৭:১৭
কায়রো থেকে উখিয়া : একজন মানবতার ফেরিওয়ালা ডা: আরিফ
বাংলাদেশ বাণী, ডেস্ক রিপোর্ট : মায়ানমার থেকে প্রানে বেঁচে আসা রোহিঙ্গাদের সম্পর্কে কারও অজানা নয়। পৃথিবী দেখলো, আধুনিক যুগের ব্যাভিচার ও গনহত্যা। মায়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীর সংখ্যা ১৩/১৫ লক্ষ। যদিও গণনায় তার থেকে অনেক কম দেখানো হয়। টেকনাফের এক অংশ এবং কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার প্রায় পুরো অংশ জুড়ে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আবাস।

প্রতিদিন গড়ে ৮০-১০০ জন শরণার্থী এবং কখনও আবার একসাথে ১০০০-২০০০ জন একসাথে চলে আসে। কিন্তু বিস্ময়ের বিষয় হল এত শরণার্থীর আগমন সত্ত্বেও বাংলাদেশ সরকারের এবং সকল বাহিনীর সম্মিলিত প্রচেষ্টার কারনে আজও কোনও ধরণের মাহামারি কিম্বা মানবিক বিপর্যয় দেখা দেয়নি, যা সত্যিই এক বিস্ময়।

এমনই আর এক বিস্ময় বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক এস ও এস শিশু পল্লীর সন্তান ডাঃ মোহাম্মাদ আরিফুল হক, যিনি ডাঃ আরিফ নামেই বেশি পরিচিত। তিনি কায়রো ইউনিভারসিটিতে অর্থপেডিক সার্জারিতে মাস্টার্স করছেন।

এক মাসের ছুটিতে বাংলাদেশে গিয়ে পরিজন এবং বন্ধু–বান্ধব ছেড়ে মানবতার ডাকে সাঁরা দিয়ে নেমে পড়েন রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবা দিতে। যদিও এটি তার জন্য নতুন কিছু নয়। এর আগে তিনি সিডর, আইলা এমনকি রানা প্লাজায় আটকে যাওয়া মানুষদের উদ্ধার এবং চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন।

ডাঃ আরিফের মানব সেবার পরিধি শুধু দেশেই সীমাবদ্ধ থাকেনি বরং তা ছরিয়ে পড়েছে বিদেশের মাটিতেও।
তিনি মিশরে চিকিৎসা বঞ্চিত মানুষের জন্য ফ্রী ফ্রাইডে ক্লিনিক এবং ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প এর অন্যতম উদ্যোক্তা। এমনকি পাকিস্তানের শিশু এবং মাতৃ মৃত্যু হার কমানোর খেত্রে প্রাইমারি হেলথ কেয়ার এর উন্নয়নের জন্যও কাজ করেছেন।

তিনি বলেন, এরকম অনেক জায়গা আছে যেখানে ছাতা মাথায় দিয়ে, কাঁদা মাড়িয়ে ৪০ মিনিট হেঁটে ক্যাম্পে গিয়ে রোহিঙ্গাদের সেবা দিচ্ছেন। তিনি এক রুমে ছয় জনের এক জন হয়ে থেকে রোহিঙ্গাদের সেবা দিচ্ছেন।
হাশি মুখে তিনি বলেন, তবুও কিছু মানুষ আমার দ্বারা উপকৃত হচ্ছে এতেই আমি খুশি। তাছাড়া অনেকে আমার মত কষ্ট করছেন।

তিনি উল্লেখ করেন, ২৫টির মতো রেজিস্টার্ড প্রতিষ্ঠান রোহিঙ্গাদের জন্য কাজ করছে। তবে এর মধ্যে গনস্বাস্থ্য কেন্দ্র ১২ টি ক্যাম্পের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা দিচ্ছে। অনেক প্রতিষ্ঠান শুধু তাদের ব্যানার লাগিয়ে রেখেছে কিন্তু কোন কাজ করছে না।অনেক প্রতিষ্ঠানের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে তিনি কাজ করার জন্য নিজ প্রতিষ্ঠানকে বেছে নেন।

তার ভা‌ষ্য মতে, রোহিঙ্গাদের মাঝে Diarrhoea, Skin diease, Asthma, Tuberculosis, Measles, Malnutrition, ARI, Common cold, Generalised weakness, Gastritis, Psychological disorders, Typhoid, UTI, Conjunctivitis, রোগই বেশি দেখা দিয়েছে।
তিনি মনে করেন আগামি ৩-৪ মাসের মধ্যে এ রোগগুলির প্রকোপ আরও বাড়বে। রোহিঙ্গাদের মাঝে শিক্ষার হার নাই বললেই চলে। অন্যান্য সমস্যার মধ্যে বিশুদ্ধ পানির এবং স্যানিটারির কিছুটা সমস্যা আছে।

ডাঃ আরিফ অতি দ্রুত রোহিঙ্গাদের সমস্যার সমাধান চান এবং তাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে মায়ানমার সরকারের প্রতি আহবান জানান। তিনি মনে করেন ধর্মের চেয়ে অনেক বড় মানুষ।
ডাঃআরিফ এস ও এস শিশুপল্লি থেকে বড় হয়েছেন তাই কৃতজ্ঞতা স্বারুপ তার এপ্রনে সবসময় SOS লেখা থাকে।
তিনি মনে করেন, “চিকিৎসার মাধ্যমে শান্তি সম্ভব এবং এ বার্তা পৃথিবীর সব ডাক্তারদের মাঝে ছরিয়ে দিতে চান।

ডাঃ আরিফের মানুষের প্রতি মমতা এবং সেবার মানুষিকতা দেখে বলতেই হয় সাংবাদিক জাহিদুর রহমান ডাঃ আরিফকে সঠিক নামটিই দিয়েছেন। সত্যিই ‘মানবতার ফেরিওয়ালা নামটি ডাঃ আরিফকেই মানায়।
আশা করি অনেক ডাক্তার তাকে অনুসরন করবেন এবং ডাক্তারদের সম্মান তার আগের উচ্চতায় ফিরিয়ে আনবেন।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • যশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব
  • যশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব
উপরে