প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:৪০:৫৩
গাইবান্ধায় ভুট্টার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা
বাংলাদেশ বাণী, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : গাইবান্ধা জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে চলতি মৌসুমে ভুট্টার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। অল্প দিনে কম খরচে কৃষকগণ লাভবান হওয়ায় ভুট্টা চাষের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। কম পুজি, ঝ্ুিকহীন, সেচ ও সার প্রয়োগের সুবিধা থাকায় কৃষকদের মাঝে ভুট্টা চাষের প্রতিযোগিতা চলছে।
আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় চলতি মৌসুমে গাইবান্ধা সদর, সুন্দরগঞ্জ, সাদুল্লাপুর, সাঘাটা, ফুলছড়ি,পলাশবাড়ী ও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে ভুট্টা চাষে আশানুরুপ ফলন হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় কৃষকদের মুখে হাঁসি দেখা দিয়েছে। গাইবান্ধায় উৎপাদিত ভুট্টা জেলার চাহিদা মিটিয়ে অন্য জেলায় সরবারহ করা হয় বলে জানিয়েছেন কৃষকগণ। সাদুল্লাপুর উপজেলার বড় জামালপুর গ্রামের কৃষক রাজা মিয়া জানান কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কারিগরী  সহায়তা পেলে কৃষকগণ উন্নত জাতের ভুট্টা চাষ করে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারবে। সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তারাপুর,বেলকা, হরিপুর,কঞ্চিবাড়ী, শ্রীপুর, কাপাশিয়া ইউনিয়ন এবং  সাদুল্লাপুর উপজেলার  রসুলপুর, নলডাঙ্গা, জামালপুর, বনগ্রাম ও কামারপাড়া ইউনিয়নসহ সাঘাটা, ফুলছড়ি, গাইবান্ধা সদর, পলাশবাড়ী ও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে চলতি মৌসুমে  প্রায় ৫ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষ করা হয়েছে।
চরাঞ্চল ও প্রত্যন্ত এলাকার কৃষকগণ সহজে ভুট্টা চাষ করে অন্য ফসলে তুলনায় বেশী টাকা আয় করছে বলে একাধিক সুত্রে জানা গেছে। সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কাপাশিয়া গ্রামের ভুট্টা চাষী আব্দুল হামিদ জানান মাত্র ৯০-১২০ দিনের মধ্যে ভুট্টা ঘরে তুলতে পারি। ভুট্টা ক্ষেতে মাত্র ১-২ বার সেচ দিতে হয় এবং ১ বিঘা জমিতে ২-৩ বস্তা ইউরিয়া সার প্রযোগ করতে হয়। এক বিঘা জমিতে ১২ হাজার ভুট্টার বীজ বপন করা যায়।
প্রতিটি ভুট্টার গাছে ৩-৪ টি করে ফল ধরে বা ছড়া হয়। এক বিঘা জমিতে খরচ বাদে ১৮-২০ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব। গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায় চলতি মৌসুমে জেলায় ভুট্টা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৫ হাজার ৫০০ হেক্টর। তা ছাড়িয়ে অর্জন হয়েছে ৫ হাজার ৯৭৫ হেক্টর। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা জানান  ভুট্টার নতুন জাত সম্পর্কে প্রশিক্ষণ ও প্রদর্শনীর মাধ্যমে আমরা প্রতিনিয়ত কৃষকদের উদ্ধুদ্ধ করছি। কৃষকদের কারিগরী সহায়তা প্রদানে মাঠ পর্যায়ে উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ সাবক্ষণিক নিয়োজিত আছেন।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে