প্রকাশ : ১৮ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২৩:১৬
বাজারজাত ও চাঁদা নিয়ে শঙ্কায়
খাগড়াছড়িতে আম্রপালি মুকুলের রেকর্ডে কৃষকেরা খুশি
বাংলাদেশ বাণী, মোঃ মাসুদ রানা, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : খাগড়াছড়িতে আমের মুকুল অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। প্রতিটি আম গাছ মুকুলে ভরপুর। আম গাছ গুলো যেন টুপি পড়েছে। গাছে প্রচুর মুকুল আসায় কৃষকও খুশি। তবে ভালো ফলন হলেও বাজার ব্যবস্থাপনার অভাব ও ব্যাপক চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অতিরিক্ত ট্যাক্স আদায়ের কারণে ন্যায্য মূল্য পাওয়া নিয়ে সঙ্কিত কৃষক। অপর দিকে হঠাৎ বৃষ্টিতে কৃষক ক্ষতির আশঙ্কা করলেও কৃষি কর্মকর্তারা বলছে, যত্ম নিলে আম টিকে যাবে এবং আম আকারে বড় হবে।

খাগড়াছড়ির সু-স্বাদু আম্রপালি আমের সারাদেশে সুনাম রয়েছে। এবার  প্রতিটি আম্রপালি আম গাছে মুকুল বা ফুল এসেছে ব্যাপক। যা অতীতে সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। তাই চাষীরা এখন মুকুল রক্ষাসহ গাছের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছে। প্রাকৃতিক দূর্যোগ না হলে বাম্পার ফলনের আশা করছে কৃষক। তবে সুষ্ঠ বাজার ব্যবস্থাপনা না থাকার পাশাপাশি সরকারী ট্যাক্স ও পথে পথে চাঁদাবাজির কারণে ন্যায্যমূল্য বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কা করছে চাষীরা।

খাগড়াছড়ির বড়পিলাক এলাকার আম চাষী বাবুল গাজী জানান, তিনি এ বছর ২৫ একর জমিকে আম্রপালি সহ বিভিন্ন প্রকারে আম চাষ করেছেন। আম গাছে বিগত বছরগুলোর চেয়ে এ বছর ভালো মুকুল এসেছে। তবে হঠাৎ বৃষ্টির কারণে আম বাগানে বাড়তি খরচ বেড়ে যাবে।

জালিয়াপাড়ার আম চাষী মো. শাহাজ উদ্দিন জানান, গত বছর প্রায় ৩০লাখ টাকার আম বিক্রি করেছে। এ বছর মুকুল অনুযায়ী ফল আসলে দ্বিগুন আম বিক্রি করা যাবে।

খাগড়াছড়ি জেলা সদরে আম চাষী অনিমেষ চাকমা রিংক জানান, হঠাৎ বৃষ্টিতে আমের মকুলের কিছুটা ক্ষতি হয়েছে। সে সাথে ব্যয়ও বেড়ে যাচ্ছে। তবে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ বলছে, এতে আমের ক্ষতি হবে না। বরং আমের আকার বড় হবে।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে জনৈক আম চাষী বলেন, খাগড়াছড়িতে আম চাষ দিন দিন বৃদ্ধি পেলেও বাজার ব্যবস্থাপনা অভাব ও আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোর ব্যাপক চাঁদাবাজি রয়েছে। পাশাপাশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অতিরিক্ত ট্যাক্স আদায়ের কারণে বাইরে ব্যবসায়ীরা না আসার কারণে কৃষকেরা ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না।

খাগড়াছড়ি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা মো. আবুল কাশেম জানান, আম ও লিচু চাষীরা যাতে সুফল পায় এ জন্যে তারা নিয়মিত মাঠ পর্যায়ে কৃষক প্রশিক্ষণ করে নানাভাবে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন। তার মতে, খাগড়াছড়ি জেলায় চলতি বছরে প্রায় ২হাজার ৭শ হেক্টর জমিতে আম্রপালি আমের পাশাপাশি রাংগুয়া, হীম সাগর, রত্না, মল্লিকা, গোপালভোগ যা গত বছরের চেয়ে প্রায় এক হাজার হেক্টর বেশি। সে সাথে আম্রপালি আম চাষি গত বছরের চেয়ে ৫০টি পরিবার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫শ পরিবারে। মুকুল অনুযায়ী যদি ফল টিকে যায়, তাহলে প্রতি কেজি আম ৫০ টাকা করে বিক্রি করলেও কৃষক প্রায় দেড়শ কোটি টাকার আম্রপালি আম বিক্রি করতে পারবে।

খাগড়াছড়িতে উৎপাদিত আম্রপালি আম বদলে দিতে পারে দেশের অর্থনৈতিক চিত্র। তবে প্রয়োজন সুষ্ঠ বাজার ব্যবস্থাপনা ও ব্যাপক চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অতিরিক্ত চাঁদাবাজি বন্ধ।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • পৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেননির্বাচনকে প্রভাবিত করার রাজনীতি বিএনপি'র হাত ধরেই শুরু হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমিয়ানমারের চলমান সহিংসতায় ১ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে : জাতিসংঘরোহিঙ্গা শরণার্থীদের গ্রহণে বাংলাদেশ কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে : ওয়াশিংটনতিনটি ভাষায় প্রকাশিত হচ্ছে শেখ হাসিনার লেখা বই ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’চট্টগ্রাম টেস্টে : ৯ উইকেটে ৩৭৭ রান তুলে দিন শেষে করেছে অসিরাআগাম নির্বাচনের দাবি আগাম রসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয় : ওবায়দুল কাদেরঅবিলম্বে সহিংসতা ও রোহিঙ্গা প্রবেশ বন্ধে মিয়ানমারের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান
  • পৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেননির্বাচনকে প্রভাবিত করার রাজনীতি বিএনপি'র হাত ধরেই শুরু হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমিয়ানমারের চলমান সহিংসতায় ১ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে : জাতিসংঘরোহিঙ্গা শরণার্থীদের গ্রহণে বাংলাদেশ কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে : ওয়াশিংটনতিনটি ভাষায় প্রকাশিত হচ্ছে শেখ হাসিনার লেখা বই ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’চট্টগ্রাম টেস্টে : ৯ উইকেটে ৩৭৭ রান তুলে দিন শেষে করেছে অসিরাআগাম নির্বাচনের দাবি আগাম রসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয় : ওবায়দুল কাদেরঅবিলম্বে সহিংসতা ও রোহিঙ্গা প্রবেশ বন্ধে মিয়ানমারের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান
উপরে