প্রকাশ : ১৪ জুন, ২০১৭ ০২:৩৯:২১
ঝিকরগাছায় একজন বৃক্ষপ্রেমী মাদ্রাসার শিক্ষক বাবু’র অনুকরণীয় উদ্যোগ
বাংলাদেশ বাণী, আবুল কালাম আজাদ/আফজাল হোসেন চাঁদ, ঝিকরগাছা (যশোর) অফিস : যশোরের ঝিকরগাছা পৌরসভা সদরের কৃষ্ণনগর মন্ত্রীপাড়া গ্রামের মৃত মহাসিন চৌধুরী ও আয়শা খাতুনের ছেলে এবং উপজেলার মোড়ের ঝিকরগাছা দারুল উলুম কামিল মাদ্রাসার বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক আশরাফুজ্জামান বাবু (বাবু মাষ্টার) তার নিজ বাড়ির ১২০০ স্কয়ার ফিট ছাদে সহধর্মীনি জিনিয়াজামান রুনা ও ছেলে রেজওয়ান চৌধুরী যুবরাজ এর সহযোগিতায় গড়ে তুলেছে সবুজ বৃক্ষের সমাহার। যা অনুকরণীয় ও প্রশংসনীয়।

এই মহতি উদ্যোগের বিষয়ে বৃক্ষপ্রেমী মাদ্রাসার শিক্ষক আশরাফুজ্জামান বাবু এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার ছোটবেলা থেকেই বৃক্ষ রোপনের উপর একটা অন্যরকম আকর্ষণ রয়েছে। যার কারণে আস্তে আস্তে তিন বছর যাবৎ আমি আমার বাড়ির ছাদের উপর সবুজ বৃক্ষের সমাহার তৈরী করেছি।

দেশের মাঠিতে যে ভাবে নিত্যদিনই বিভিন্ন দরকারে গাছ-গাছালী নিধন হয়ে চলেছে ঠিক সেই সময়ে দেশের মাটি ও মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য টিভি চ্যানেলের কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন শিক্ষা অর্জনের ফলে আমি নিজ উদ্যোগে ও আমার সহধর্মীনির একান্ত সহযোগিতায় বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থান থেকে চারাগাছ সংগ্রহকরে এই বাগান তৈরী করেছি।

আমার সংগৃহিত রয়েছে প্রায় শতাধিক ফলজ ও ঔষধী বৃক্ষ। এই বৃক্ষের মাধ্যমে সারা বছর আমার পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে আমার বন্ধু মহলের কমবেশী চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম।

তার এই মহতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে এলাকার সর্বশ্রেণীর মানুষ। তার সংগ্রহে রয়েছে, ভারত ও শ্রীলংকার কেরালা নারকেল, ব্লাক ডায়মন্ড ম্যাংগো, বেদানা, লিচু, আলুবোখারা, সবুজ আপেল, চেরী, কদবেল, কমলালেবু, কলম্বলেবু, মাল্টালেবু, ছবেদা, কাউফল, রঙ্গলাল ফল, আমড়া, মেওয়া, মিষ্টি তেতুল, আমলকি, হরিকতী, বহেরা, অর্জুন, পেঁপে, পুঁইশাক, লালশাক ইত্যাদি চাষের মাধ্যমে পরিবেশের সহিত মিশে গাছ মানুষের পরম বন্ধুত্ব সৃষ্টি ও বাড়ির গেটের সামনে ফুলের বাগান তৈরীর মাধ্যমে ক্রমাগত সৌর্ন্দয্য বৃদ্ধি করেই চলেছে। দেশের প্রতি যাদের দায়িত্ববোধ রয়েছে এবং পরিবেশকে সাজাতে আপনিও এই মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারেন।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে