প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০৩:১৩:৫৭
গাইবান্ধায় বন্যা পরবর্ত্তী ধানের চারা সংকটে চরম বিপাকে চাষীরা
বাংলাদেশ বাণী, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : আমন ধানের চারার সংকটে চরম বিপাকে পড়েছে গাইবান্ধা জেলার বন্যা দূর্গত এলাকার কৃষকগণ। বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর ফসলের মাঠ ভেসে ওঠা ক্ষতির চিহ্ন দেখে নির্বাক কৃষক। দুইবার জমির আবাদ নষ্ট হওয়ার পর আবারও ঘুরে দাঁড়ানো তাদের কাছে অনেকটা দু:স্বপ্নের মতো। ভবিষৎ-এ যাতে এ রকম ভয়াবহ অবস্থায় কৃষকদের পড়তে না হয় তার জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বাঁধ নির্মাণের দাবি জানান।

গাইবান্ধা কৃষি বিভাগ জানায়, বন্যা দুর্গত এলাকায় চাষিদের সহায়তার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। গাইবান্ধায় পরপর দু’বার বন্যার কারণে জমির আবাদ নষ্ট হওয়ার পর চড়া দামে আমন ধানের চারা সংগ্রহ করে আবারও চারা রোপন গাইবান্ধার বন্যা কবলিত এলাকার কৃষকগণ। ঘাঘট নদীর ভাটির ছড়ায় সাত কিলোমিটার এলাকায় বাঁধ না থাকায় পরপর তিন বার ঘাঘটের পানি এই এলাকায় হাজার হাজার কৃষকের স্বপ্ন ভাসিয়ে নিয়ে যায়।

আমন চারা সংকটের কারণে নতুন করে ধানের গুছি লাগানো সম্ভব হচ্ছে না। সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বন্যা কবলিত এলাকা কাপাসিয়া ইউনিয়নের ভাটি কাপাসিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল হামিদ অভিযোগ করে বলের সহায়তাতো দুরের কথা পরামর্শ নিয়েও পাশে দাঁড়ায়নি কৃষি বিভাগ। এমন পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের পাশে না দাঁড়ালে তাদের কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে বলে মনে এলাকাবাসী।

ব্রক্ষ্মপুত্র, তিস্তা, যমুনা, করতোয়া ও ঘাঘট নদীর পানি এসে জমির ফসল নষ্ট হওয়ায ক্ষতিগ্রস্থ অনেক কৃষক দিশেহারা। তাদের আগাম রবি ফসল সরিষা থেকে শুরু করে তিল চাষ  করার জন্য প্রয়োজনীয় করার জন্য কৃষি বিভাগকে কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে হবে। আর বাঁধ নির্মানের দাবি জানালেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কঞ্চিবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন। কৃষি বিভাগের প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা শওকত ওসমান জানান, বন্যা দুর্গত এলাকায় চাষিদের সহায়তার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী হাতে নেয়া হয়েছে। বন্যায় গাইবান্ধার ৭ উপজেলায় পান বরজ, রোপা আমন ও শাকসবজিতে প্রায় ২৩০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
উপরে