প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০২:২৭:১৫
যশোরের ঝিকরগাছায় আমন কাটার ধুম ॥ ফসল গোছাতে ব্যস্ত কৃষক
বাংলাদেশ বাণী, আবুল কালাম আজাদ, ঝিকরগাছা (যশোর) অফিস : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় এখন সর্বত্র আমন ধান কাটার ধুম চলছে। মাঠে-ময়দানের তাপদাহ কিংবা হালকা শীতে উপেক্ষা করে চাষে বাম্পার ফলন পেয়ে পাকা ধান সংগ্রহের মধ্যদিয়ে ব্যস্ত সময় পাড় করছে কৃষক। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায়, পোকার আক্রমণ ও রোগ বালাই কম হওয়ায় অন্য বছরের তুলনায় এবার ফলন বেশী হয়েছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসরণ অধিদপ্তরের হিসাব মতে, আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১৭ হাজার ৫৬০ হেক্টর জমি । কিন্তু এবার নাগালের মধ্যেই লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী চাষ হয়েছে। চলতি বছরেই মোট আমন চাষ হয়েছে ১৮ হাজার ১৫৫ হেক্টর জমিতে। চলতি বছরে কৃষকরা উচ্চ ফলনশীল স¦র্ণা, ব্রিধান-৪৯, হজ্র, বিনাধান-৭ ধান বেশী চাষ করেছে।
প্রতিটি জাতের ধানের বীজ চাষের ফলে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়াবে বলে চাষী পরিবারের সদস্যরা আশাবাদী।      

তবে চাষীদের উঠানে এই ধান উঠলে কাঙ্খিত দাম পেলে নবান্নের প্রকৃত আনন্দে মেতে উঠবেন এমনটিই আশা করছেন অনেকেই। সরেজমিনে কথা হয়, পৌর সদরের ১নং ওয়ার্ডের চাষী শেখ নজরুল ইসলাম খোকন, আঃ রহমান, নওশের আলী, বাবুল আক্তার, শওকত আলী দুখু, মনিরুল ইসলাম মনি, উপজেলার ৪নং গদখালী ইউনিয়নের বেনেয়ালী, ফতেপুর গ্রামের চাষী আলমগীর হোসেন, আমিনুর রহমান, হারুন অর রশিদ, আঃ ছাত্তার, মুজাম্মেল হক, রবিউল ইসলাম, ০৮নং নির্বাসখোলা ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের কৃষক শিমুল কবীর, সুলতান আহমেদ, অহেদ আলী, আনোয়ার হোসেন, রেজাউল ইসলাম, বাবুল আক্তার, জাকির হোসেন, ফজর আলী, আবু তালেব, আহম্মদ আলীর সাঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা বলেন, চলতি মৌসুমে ধানের ফলনে ব্যাপক খুশি।

বিঘা প্রতি রোপা আমন ধান চাষে বোরো ধান চাষের চেয়ে খরচ অনেক কম। তাছাড়া এবছর আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় রাসায়নিক সার কম লেগেছে। পোকার আক্রমণ ও রোগ বালাই অনেক কম। তবে বাজারে ধানের মূল্যে বর্তমান সময়ের মত থাকলে চাষীদের শত কষ্টের শেষে মুখে হাসি থাকবে।

এলাকা ঘুরে দেখা যায়, আমন ধান ঘরে তোলার জন্য কৃষক দিনরাত মাঠে পরিশ্রম করছে। ধান কাটা, বাঁধা ও বাড়ি নিয়ে কাজে সকল কৃষক-কৃষাণী ব্যস্ত সময় পার করছে। আমন চাষে গরীব কৃষকরা বিভিন্ন এনজিও প্রতিষ্ঠান বা দাদনে ধার বা দিনা করে টাকা নিয়ে চাষে ব্যবহারে অধিক ফসল ফলিয়েছেন। কিন্তু বাজারে কৃষকরা ধান নিয়ে গেলে অসাধু চক্রের নিকট প্রতারিত হয়ে ন্যার্য মূল্য তারা নিতে পারে না। যার ফলে কৃষকের নিকট হইতে কম দামে দ্রব্য ক্রয় করে অধিক মুনাফা অর্জন করেন তারা। কৃষকের চাওয়া পাওয়া ব্যবহৃত হয়। প্রশাসনের ভূমিকার থাকলে হইতো চাষীরা তাদের ফসলের ন্যার্য মূল্য পাবে। এবং গরীব দিন মজুর ব্যক্তিবর্গ অল্প মূল্যে ক্রয় করে সাদ্ধে থাকবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার দীপঙ্কর দাশ’র নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমন ধান চাষে এই এলাকায় বাম্পার ফলন হয়েছে। ফলন আসার সময় ঝড় বৃষ্টি কিছুটা ক্ষতি করেছে। তারপরও অন্য বছরের তুলনায় এবার উৎপাদন বাড়ছে। এই এলাকার চাষীরা যদি চাষে কোন প্রকার ভাবে সমস্যা মনে হয় তাহলে তারা ক্রমাগতই আমার নিকট হইতে পরামর্শ গ্রহণ করে চাষাবাদের কাজ পরিচালনা করেন।   
      

 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
উপরে