প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০২:২৭:১৫
যশোরের ঝিকরগাছায় আমন কাটার ধুম ॥ ফসল গোছাতে ব্যস্ত কৃষক
বাংলাদেশ বাণী, আবুল কালাম আজাদ, ঝিকরগাছা (যশোর) অফিস : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় এখন সর্বত্র আমন ধান কাটার ধুম চলছে। মাঠে-ময়দানের তাপদাহ কিংবা হালকা শীতে উপেক্ষা করে চাষে বাম্পার ফলন পেয়ে পাকা ধান সংগ্রহের মধ্যদিয়ে ব্যস্ত সময় পাড় করছে কৃষক। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায়, পোকার আক্রমণ ও রোগ বালাই কম হওয়ায় অন্য বছরের তুলনায় এবার ফলন বেশী হয়েছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসরণ অধিদপ্তরের হিসাব মতে, আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১৭ হাজার ৫৬০ হেক্টর জমি । কিন্তু এবার নাগালের মধ্যেই লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী চাষ হয়েছে। চলতি বছরেই মোট আমন চাষ হয়েছে ১৮ হাজার ১৫৫ হেক্টর জমিতে। চলতি বছরে কৃষকরা উচ্চ ফলনশীল স¦র্ণা, ব্রিধান-৪৯, হজ্র, বিনাধান-৭ ধান বেশী চাষ করেছে।
প্রতিটি জাতের ধানের বীজ চাষের ফলে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়াবে বলে চাষী পরিবারের সদস্যরা আশাবাদী।      

তবে চাষীদের উঠানে এই ধান উঠলে কাঙ্খিত দাম পেলে নবান্নের প্রকৃত আনন্দে মেতে উঠবেন এমনটিই আশা করছেন অনেকেই। সরেজমিনে কথা হয়, পৌর সদরের ১নং ওয়ার্ডের চাষী শেখ নজরুল ইসলাম খোকন, আঃ রহমান, নওশের আলী, বাবুল আক্তার, শওকত আলী দুখু, মনিরুল ইসলাম মনি, উপজেলার ৪নং গদখালী ইউনিয়নের বেনেয়ালী, ফতেপুর গ্রামের চাষী আলমগীর হোসেন, আমিনুর রহমান, হারুন অর রশিদ, আঃ ছাত্তার, মুজাম্মেল হক, রবিউল ইসলাম, ০৮নং নির্বাসখোলা ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের কৃষক শিমুল কবীর, সুলতান আহমেদ, অহেদ আলী, আনোয়ার হোসেন, রেজাউল ইসলাম, বাবুল আক্তার, জাকির হোসেন, ফজর আলী, আবু তালেব, আহম্মদ আলীর সাঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা বলেন, চলতি মৌসুমে ধানের ফলনে ব্যাপক খুশি।

বিঘা প্রতি রোপা আমন ধান চাষে বোরো ধান চাষের চেয়ে খরচ অনেক কম। তাছাড়া এবছর আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় রাসায়নিক সার কম লেগেছে। পোকার আক্রমণ ও রোগ বালাই অনেক কম। তবে বাজারে ধানের মূল্যে বর্তমান সময়ের মত থাকলে চাষীদের শত কষ্টের শেষে মুখে হাসি থাকবে।

এলাকা ঘুরে দেখা যায়, আমন ধান ঘরে তোলার জন্য কৃষক দিনরাত মাঠে পরিশ্রম করছে। ধান কাটা, বাঁধা ও বাড়ি নিয়ে কাজে সকল কৃষক-কৃষাণী ব্যস্ত সময় পার করছে। আমন চাষে গরীব কৃষকরা বিভিন্ন এনজিও প্রতিষ্ঠান বা দাদনে ধার বা দিনা করে টাকা নিয়ে চাষে ব্যবহারে অধিক ফসল ফলিয়েছেন। কিন্তু বাজারে কৃষকরা ধান নিয়ে গেলে অসাধু চক্রের নিকট প্রতারিত হয়ে ন্যার্য মূল্য তারা নিতে পারে না। যার ফলে কৃষকের নিকট হইতে কম দামে দ্রব্য ক্রয় করে অধিক মুনাফা অর্জন করেন তারা। কৃষকের চাওয়া পাওয়া ব্যবহৃত হয়। প্রশাসনের ভূমিকার থাকলে হইতো চাষীরা তাদের ফসলের ন্যার্য মূল্য পাবে। এবং গরীব দিন মজুর ব্যক্তিবর্গ অল্প মূল্যে ক্রয় করে সাদ্ধে থাকবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার দীপঙ্কর দাশ’র নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমন ধান চাষে এই এলাকায় বাম্পার ফলন হয়েছে। ফলন আসার সময় ঝড় বৃষ্টি কিছুটা ক্ষতি করেছে। তারপরও অন্য বছরের তুলনায় এবার উৎপাদন বাড়ছে। এই এলাকার চাষীরা যদি চাষে কোন প্রকার ভাবে সমস্যা মনে হয় তাহলে তারা ক্রমাগতই আমার নিকট হইতে পরামর্শ গ্রহণ করে চাষাবাদের কাজ পরিচালনা করেন।   
      

 
সর্বশেষ সংবাদ
  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে হবে : ওআইসি২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশের-প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে ৯ হাজার মেগা: বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা রয়েছেআগামী ৩০ অক্টোবরের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল : ইসি সচিবশেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি আজ ৫'শ মেগা: বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করবেনডেঙ্গু বিস্তারের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদেরদশম জাতীয় সংসদের ২২ তম অধিবেশন চলাকালীন ডিএমপি'র নিষেধাজ্ঞাশক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ৫১ হজ ফ্লাইটে ১৮ হাজার ৬৯৩ জন হাজী দেশে ফিরেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে : ইসি সচিবরুট পারমিটবিহীন যান চলাচল বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশসমূদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছেরোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের বিচার আহ্বান জাতিসংঘের তদন্তকারীদলের ঝিকরগাছা পৌর আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেনের অন্তিম বিদায় থাইল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশআজ জাতীয় বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের ৪২ তম মৃত্যুবার্ষিকী শোলাকিয়া ময়দানে দেশের বৃহত্তম ঐতিহাসিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিতত্যাগের মহিমায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিতসন্দেহ নেই গ্রেনেড হামলায় খালেদা-তারেক জড়িত ছিল : প্রধানমন্ত্রীআজ ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত পবিত্র ঈদুল আজহাগ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে অস্থায়ী শহীদ বেদীতে প্রধানমন্ত্রী'র শ্রদ্ধা
  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে হবে : ওআইসি২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশের-প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে ৯ হাজার মেগা: বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা রয়েছেআগামী ৩০ অক্টোবরের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল : ইসি সচিবশেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি আজ ৫'শ মেগা: বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করবেনডেঙ্গু বিস্তারের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদেরদশম জাতীয় সংসদের ২২ তম অধিবেশন চলাকালীন ডিএমপি'র নিষেধাজ্ঞাশক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ৫১ হজ ফ্লাইটে ১৮ হাজার ৬৯৩ জন হাজী দেশে ফিরেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে : ইসি সচিবরুট পারমিটবিহীন যান চলাচল বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশসমূদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছেরোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের বিচার আহ্বান জাতিসংঘের তদন্তকারীদলের ঝিকরগাছা পৌর আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেনের অন্তিম বিদায় থাইল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশআজ জাতীয় বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের ৪২ তম মৃত্যুবার্ষিকী শোলাকিয়া ময়দানে দেশের বৃহত্তম ঐতিহাসিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিতত্যাগের মহিমায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিতসন্দেহ নেই গ্রেনেড হামলায় খালেদা-তারেক জড়িত ছিল : প্রধানমন্ত্রীআজ ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত পবিত্র ঈদুল আজহাগ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে অস্থায়ী শহীদ বেদীতে প্রধানমন্ত্রী'র শ্রদ্ধা
উপরে