প্রকাশ : ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০১:৫৮:০৩
গাইবান্ধায় কৃষি প্রণোদনা ও পুর্নবাসন সহায়তা প্রভাবশালীদের হাতে
বাংলাদেশ বাণী, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : সরকারের নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে গইবান্ধা জেলার সাত উপজেলায় অর্থের বিনিময় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের প্রণোদনা ও পুর্নবাসন সহায়তা ব্যবসায়ী ও প্রভাবশালী কৃষকদের দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
ফলে প্রকৃত ক্ষুদ্র ও প্রন্তিক কৃষকরা সরকারের ঐ সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এই ঘটনা বেশি ঘটেছে গাইবান্ধা সদর উপজেলায়। গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকের কার্যালয় সুত্রে জানা যায় এবারের বন্যায় জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ৭৬ হাজার।

এর মধ্যে ক্ষুদ্র এবং প্রন্তিক কৃষকদের প্রণোদনা ও পুর্নবাসন ২ কোটি ৫৫ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়া যায়। প্রণোদনের আওতায় ২১ হাজার ৯৩০ জন ও কৃষি পূর্ণবাসনে পাঁচ হাজার ৫০০ জন কৃষককে সহায়তা দেয়া হয়েছে। প্রত্যেক কৃষক ফসল ভিত্তিক  ভুট্টা বীজ দুই কেজি , গম ২০ কেজি, সরিষা এক কেজি, বোরো ধানের বীজ পাঁচ কেজি,মাসকলাই পাঁচ কেজি, গ্রীষ্ম মুগ পাঁচ কেজি, বিডি বেগুন বীজ ২০০ গ্রাম, লালশাক বীজ ১০০ গ্রাম, কপি পালং বীজ ১০০ গ্রাম,মুলাশাক বীজ ১০০ গ্রাম, মিষ্টি কুমড়া বীজ ৫০ গ্রাম, টিএসএপি সার ২০ কেজি ও এমপি সার ১০ কেজি পাবেন। একজন ক্ষুদ্র ও প্রন্তিক কৃষক ৭৫০ টাকা থেকে ১ এক হাজার ৩০০ টাকা পর্যন্ত সার ও বীজ সহায়তা পেয়েছে।

৫১ শতক থেকে ১৪৯ শতক পর্যন্ত  জমির মালিক কৃষককে ক্ষুদ্র ও ৫ শতক থেকে ৪৯ শতক পর্যন্ত জমির মালিক কৃষককে প্রন্তিক বলে। উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাগণ ক্ষুদ্র ও প্রন্তিক কৃষকদের সরকারি সহায়তা না দিয়ে ব্যবসায়ী ও প্রভাবশালী কৃষকদের কাছে এসব উপকরণ গুলোই বিক্রি করছে।

গাইবান্ধা সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের লেংগাবাজার গ্রামের মৃত সাহাবউদ্দিনের পুত্র আব্দুল খালেক  বলেন আমার জমি চার বিঘা। তিন বিঘা জমির ফসল বন্যার পানিতে তলিয়ে যায়। চড়া সুদে টাকা নিয়ে বীজ ও সার কিনেছি। আমার মতো এলাকার অনেক চাষি কোন সরকারি সহায়তা পায়নি।

আবার অনেকে সরকারি সার ও বীজ তুলে ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করছে। সরকার ক্ষুদ্র ও প্রন্তিক কৃষকদের জন্য এসব উপকরণ বরাদ্দ থাকলেও মূলত পাচ্ছে প্রভাবশালী কৃষকরা। কয়েকজন ব্যবসায়ীকে কৃষি অফিসের  সামনে কৃষকদের কাছ থেকে সার ও বীজ বাজারের অর্ধেক দামে কিনতে দেখেছে।
ভিএইড রোডের ব্যবসাই বাবুল মুন্সি বলেন, যদি কেউ বীজ ও সার বিক্রি করতে আসেন তাহলে আমার কিনতে দোষ কোথায় ?

গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আ কা ম.রুহুল আমিন বলেন ক্ষুদ্র ও প্রন্তিক কৃষকরা বীজ ও সার পাচ্ছেন। ব্যবসায়ী ও প্রভাবশালী কৃষকরা পাওয়ার কথা নয়। যদি এমনটা হয়ে থাকে তা হলে দোষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
সর্বশেষ সংবাদ
  • যশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব
  • যশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব
উপরে