প্রকাশ : ০৪ মে, ২০১৮ ০৬:১৪:১৩
জগন্নাথপুরে সব ক’টি হাওরের বোরো ধান কাটা শেষ পর্যায়ে : চলছে মাড়াই-ঝাড়াই
বাংলাদেশ বাণী, বিপ্লব দেব নাথ, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : জগন্নাথপুর উপজেলার বৃহৎ নলুয়া মইয়া ও পিংলার হাওরসহ সব ক’টি হাওরে বোরো ধান কাঁটা এখন শেষ পর্যায়ে রয়েছে। চলছে মাড়াই ঝাড়াই ও গোলায় তোলার  কাজ। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে কৃষকরা তাদের স্বপ্নের সোনালী ফসল শতভাগ কেটে গোলায় উঠানোর কাজ  শেষ করবে।

এছাড়াও গোলায় ধান উঠানোর পাশাপাশি বর্ষা মৌসুমে গো-খাদ্যের ন্যাড়া শুকিয়ে মজুদ করছেন কৃষকরা। গত ২টি বছর কৃষকরা হাওরের পাঁকা ফসল অকাল বন্যায় হারিয়ে দু:চিন্তায় পড়েন, সেই সাথে গো-খাদ্যেরও তীব্র সংকট দেখা দেয়ায় অনেক কৃষকরা তাদের হালের বলদসহ সৌখিন গরুগুলো কমদামে বিক্রি করতে বাধ্য হন। চলতি মৌসুমে বোরো ফসলের বাম্পার ফলন হওয়ায় এবং প্রকৃতি অনুকূলে থাকায় নির্বিঘেœ বোরো ধান গোলায় তুলতে পেরে কৃষকরা এবার মহা খুশী।

হাওরগুলো ঘুরে দেখা গেছে প্রায় ৯৫ভাগ ধান কাঁটা শেষ হয়ে গেছে। বাকি ৫ ভাগ জমির ধান উচু জায়গায় রয়েছে। হাওরে পানি প্রবেশ কিংবা অতি বৃষ্টিপাত হলেও আর ক্ষতির সম্ভাবনা নেই বলে কৃষকরা জানিয়েছেন।

এদিকে কৃষি বিভাগ সূত্রে জানাযায়, উপজেলার সব ক’টি হাওরে ৯০ ভাগ ধান কাঁটা ইতোমধ্যে শেষ হয়ে গেছে। হাওরের নীচু জমিগুলোতে এখন আর তেমন ধান নেই। হাওরগুলোর উচু স্থানে প্রায় ১০ ভাগ জমির ধান কাঁটা বাকি রয়েছে।

এদিকে, এবার হাওরগুলোতে কৃষি শ্রমিক সংকট থাকায় প্রথমে কৃষকদের মনে হতাশা দেখা দিলেও কৃষি বিভাগ কর্তৃক ধান কাটা, মাড়াই, ঝাড়াই ও প্যাকেটজাত করন  ধান কাটার আধুনিক যন্ত্র কম্পাইন্ড হারভেস্টার মেশিন থাকায় দ্রুত ধান কাটা সম্ভব হয়েছে।

এছাড়াও হাওরগুলোতে কৃষি শ্রমিকরা ধান কাঁটার পর মেশিন দিয়ে মাড়াই শেষে খলায় শোকানোর কাজ এখন পুরোদমে চলছে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা ধান কাটার শ্রমিকরা তাদের ন্যায্য মজুরী পেয়ে ইতোমধ্যে নিজ এলাকায় চলে যেতে দেখা গেছে।

সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ধনপুর গ্রামের কৃষি শ্রমিক সর্দার কাশেম আলী জানান, তার নেতৃত্বে ২৫সদস্যের কৃষি শ্রমিক দল ২৪দিন গৃহস্থ ফয়ঝুল ইসলামের ধান কেঁটে ৩লাখ টাকা কামাই করেছেন।

বিগত ২টি বছর ধান কাটঁতে পারিনি। তবে এ বছর প্রকৃতি অনূকূলে থাকায় মনের আনন্দে ধান কাঁটতে পেরে মহা আনন্দে বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। একই ভাবে কথা হয় টাঙ্গাইল থেকে আসা কৃষি শ্রমিকের সর্দার রহিম উদ্দিনের সাথে। তিনি মনের আনন্দে ধান কাটা উৎসবের বর্ননা দিয়েছেন।

জগন্নাথপুর পৌর শহরের পূর্ব ভবানীপুর এলাকার বাসিন্দা কৃষি জমির মালিক ফয়জুল ইসলাম জানান, বিগত ২টি বছর ফসল হারানোর ব্যাথা ক’টা দিন মনে কষ্টের দাগ কাটলেও এবার ক্ষতি ফুসানো সম্ভব হয়েছে। মনের আনন্দে ফসল কেঁটে গোলায় তুলতে পেরে এখন কেবলই খুশীর উৎসব বিরাজ করছে।

তিনি জানান, বৃহৎ মইয়ার হাওরে ১শত কেদার জমি চাষাবাদ করে প্রায় ১৭শ মন ধান পেয়েছি। একই ভাবে ধান কাঁটা উৎসবের বর্ণনা দিয়েছেন বলবল গ্রামের কৃষক মওসুদ মিয়া, কৃষক ফজলু মিয়া, কৃষক আব্দুশ শহীদসহ আরো অনেকে।

এদিকে হাওর থেকে ধান কাঁটার পর গোলায় উঠানোর কাজে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন নারীরা। প্রতিটি কৃষক পরিবারের সদস্যদের মধ্যে নারীরা ধান কুলা দিয়ে হালকা বাতাসের সাহায্যে ঝারা এবং খলায় শুকানোর পর গোলায় উঠাচ্ছেন। গ্রামের নব নধূদের পাশাপাশি কিশোর-কিশোরীরাও তাদের সোনালী ফসল গোলায় উঠাতে দিনভর ধান রোধে শুকানোর জন্য খলায় ব্যস্ত সময় কাঠাতে দেখা গেছে।

অনেকে আবার হাওরের এবং বাড়ির পাশে ধানের খলা তৈরী করে সেখানে রোধ বৃষ্টির কবল থেকে রক্ষা পেতে অস্থায়ী ন্যাড়ার ঘর তৈরী করে ধান শুকানোর কাজ করতে দেখা গেছে। গতকাল বুধবার বৃহৎ নলুয়া ও মইয়ার হাওর ঘুরে দেখা গেছে ক’দিন আগের সোনালী ফসলের সমারোহ এখন আর নেই।

হাওরগুলোতে দেখা যাচ্ছে ধান গাছের কাঁটা অংশ। সেই সাথে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক নির্মিত হাওর রক্ষা বাঁধ গুলো যেন মহা সড়কের দৃশ্যমান।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ সহ পাউবোর উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো: নাসির উদ্দিনের  সুষ্টু তদারকীর ফলে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি) কর্তৃক মজবুদ করে হাওর রক্ষা বাঁধগুলো নির্মান করা হয়। কৃষক আরশ আলী জানান, পানি সম্পদ মন্ত্রীর কড়া নির্দেশনায় এবারে হাওর রক্ষা বাধ ইতিহাস হয়ে থাকবে।

প্রশাসনের কড়া নজরধারীর ফলে  এবং আল্লাহ পাকের অশেষ রহমতে কৃষকরা তাদের ফসল গোলায় তুলতে পেরেছেন। তবে এরকম প্রতিবছর হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মান করা হলে বোরো ফসল আবাদে কৃষকরা উৎসাহিত হবেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ সবুজ সিলেটকে জানান, আল্লাহ পাকের অশেষ মেহেরবানীতে এবার কৃষকদের মুখের হাসির ঝিলিক যেন প্রতিটি বছর থাকে সেই প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন ইতোমধ্যে উপজেলার প্রতিটি হাওরের ৯০ থেকে ৯৫ ভাগ জমির ধান কাঁটা শেষ হয়ে গেছে। বাকি জমির ধানগুলো আগামী সপ্তাহ খানেক সময়ের মধ্যে কৃষকরা কেটে ফেলার কাজ শেষ করবেন।

প্রকৃতি মাঝে মাঝে বৈরী অবস্থান সৃষ্টি করলেও হাওর এখন  শংকামুক্ত। তবে বাপাউবোর নির্মিত হাওর রক্ষা বাধ যেন দুষ্ট চক্রদ্বারা ক্ষতি গ্রস্থ না হয় সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড জগন্নাথপুরের উপ-সহকারি প্রকৌশলী নাসির উদ্দিন জানান, দুষ্কৃতকারি মাছ শিকারী দ্বারা যাহাতে হাওর রক্ষা বাঁধ কেটে ক্ষতি করতে না পারে সে জন্য ইতোমধ্যে জগন্নাথপুর থানায় সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে।

কৃষি অফিস সূত্রে জানাযায়, চলতি বোরো মৌসুমে জগন্নাথপুর উপজেলার ৯টি হাওরে ১৪হাজার ৪শ ৭৫হেক্টর এবং হাওর বহির্ভূত ৫ হাজার ৮শ ৫৮ হেক্টরসহ মোট ২০ হাজার ৩ শ ৩৩ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষাবাদ করা হয়েছে। এর মধ্যে বৃহৎ নলুয়ার হাওরে ৪ হাজার ২’শ হেক্টর, বৃহৎ মইয়ার হাওরে ২ হাজার ১’শ ৫০ হেক্টর, জামাই কাঁটা হাওরে ১হাজার ৮শ হেক্টর, হাফাতি হাওরে ১ হাজার ৫ শ হেক্টর, পারুয়ার হাওরে ১ হাজার ৬ শ হেক্টর, বানাইর হাওরে ১ হাজার হেক্টর, রাঙ্গারকিত্তা হাওরে ৫ শ ৫৫ হেক্টর, ডলুয়ার হাওড়ে ৬ শ ২০ হেক্টর এবং পিংলার হাওরে ১হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে এবং হাওর বহির্ভূত ৫হাজার ৮শ ৫৮ হেক্টর জমিতে ব্রি-২৮, ব্রি-২৯, ব্রি-৫০, ব্রি-৫৮, ব্রি-৫৫, বিআর-২৬ সহ হাইব্রিড জাতের ধান চাষাবাদ করা হয়েছিল।
সর্বশেষ সংবাদ
  • সমগ্র জাতির পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনগোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জাতির জনকের সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাবাংলাদেশকে দ্বিতীয় পাকিস্তান বানাতে খুনি মুশতাক-জিয়া অনেক অপকর্ম করেছে : শেখ সেলিমবঙ্গবন্ধু স্মরণে শেখ হাসিনা রচিত “শেখ মুজিব আমার পিতা” আজ সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু'র শাহাদতবার্ষিকীআজ শোকাবহ ১৫ আগষ্ট : আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধাবরেণ্য সাংবাদিক ও সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আর নেই‘শেখ মুজিব পালিয়ে যাবে না, মরলে বাংলার মাটিতেই মরবে’৩-০ গোলে নেপালকে উড়িয়ে দিয়ে সেমিতে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলসেই রাতের বর্ণণা ❏ ঘাতকদের মুখোমুখি হয়েও গর্জে উঠেছিলেন জাতির জনক আগামী ২২ আগস্ট পবিত্র ঈদুল আজহামোমিনুলের বিধ্বংসী ব্যাটিং : জয়ের স্বাদ পেল বাংলাদেশ ‘এ’ দলকোরবানির পশুর চামড়ার দর নির্ধারণ করেছে সরকারবাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের ১৪-০ গোল পাকিস্তানের জালে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের সভায় ১২টি প্রকল্প অনুমোদন আজ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৮৮ তম জন্মবার্ষিকীতারেক জিয়ার নীল নকশা বাস্তবায়ন হয়নি : রুখে দিল সরকারমধ্যপাড়া পাথর খনি থেকে ফের ৩ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিকটন পাথর উধাওআন্দোলনরত কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের ঘরে ফিরে যাওয়ার আহবান প্রধানমন্ত্রী'র আজ ২২ শ্রাবণ : বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী
  • সমগ্র জাতির পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনগোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জাতির জনকের সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাবাংলাদেশকে দ্বিতীয় পাকিস্তান বানাতে খুনি মুশতাক-জিয়া অনেক অপকর্ম করেছে : শেখ সেলিমবঙ্গবন্ধু স্মরণে শেখ হাসিনা রচিত “শেখ মুজিব আমার পিতা” আজ সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু'র শাহাদতবার্ষিকীআজ শোকাবহ ১৫ আগষ্ট : আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধাবরেণ্য সাংবাদিক ও সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আর নেই‘শেখ মুজিব পালিয়ে যাবে না, মরলে বাংলার মাটিতেই মরবে’৩-০ গোলে নেপালকে উড়িয়ে দিয়ে সেমিতে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলসেই রাতের বর্ণণা ❏ ঘাতকদের মুখোমুখি হয়েও গর্জে উঠেছিলেন জাতির জনক আগামী ২২ আগস্ট পবিত্র ঈদুল আজহামোমিনুলের বিধ্বংসী ব্যাটিং : জয়ের স্বাদ পেল বাংলাদেশ ‘এ’ দলকোরবানির পশুর চামড়ার দর নির্ধারণ করেছে সরকারবাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের ১৪-০ গোল পাকিস্তানের জালে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের সভায় ১২টি প্রকল্প অনুমোদন আজ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৮৮ তম জন্মবার্ষিকীতারেক জিয়ার নীল নকশা বাস্তবায়ন হয়নি : রুখে দিল সরকারমধ্যপাড়া পাথর খনি থেকে ফের ৩ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিকটন পাথর উধাওআন্দোলনরত কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের ঘরে ফিরে যাওয়ার আহবান প্রধানমন্ত্রী'র আজ ২২ শ্রাবণ : বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী
উপরে