প্রকাশ : ২০ নভেম্বর, ২০১৭ ২৩:১৬:২৭
রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বড় সমস্যা জনসংখ্যা বিস্ফোরণ
বাংলাদেশ বাণী, বিশেষ প্রতিবেদক, কক্সবাজার থেকে :  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আস্তে আস্তে বড় সমস্যা হয়ে দেখা দিচ্ছে জনসংখ্যা বিস্ফোরণ। গত দু’মাসে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে জন্ম নিয়েছে তিন হাজারের অধিক শিশু। আর সন্তান সম্ভবা আরো ৩০ থেকে ৩৫ হাজার নারী। ক্যাম্পের ছোট্ট গ-িতে ক্রমবর্ধমান এই জনস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে আনা না গেলে তা আরও ভয়াবহ সংকট তৈরি করবে বলে আশংকা সংশ্লিষ্টদের। তবে প্রশাসন বলছে, রোহিঙ্গাদের জন্ম নিয়ন্ত্রণে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে।

বুরকিয়াজ বেগম নামে ৩০ বছর বয়সী এক নারী জন্ম দিয়েছেন আট সন্তান। এর মধ্যেই অষ্টম সন্তান জন্ম মাত্র দু’মাস আগে উখিয়ার রোহিঙ্গা শিবিরে। তার মতো আরেক নারী জহুরা বেগম। বয়স ২৫ না পার হতেই জন্ম দিয়েছেন চার সন্তান।

বুরকিয়াজ আর জহুরা মতো এমন হাজারো নারী রয়েছে যারা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছেন উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে। যাদের সন্তান সংখ্যা পাঁচ বা দশের বেশি।

তারা জানান, বার্মা না থেকে এখানে এসেছি,আমার আট সন্তান রয়েছে। আরেক জানান, বার্মার সেনাবাহিনীরা আমাদের ওপর পর অত্যাচার শুরু করেন। আমার চার ছেলে আছে।

জন্মনিয়ন্ত্রণ নিয়েও কোন ধারণা নেই বেশিরভাগ রোহিঙ্গার। অজ্ঞতার পাশাপাশি বেশি সন্তানে প্রভাব প্রতিপত্তি বাড়ে বলে ধারণা পোষণ করেন তারা।

এক রোহিঙ্গা জানান, আমাদের সন্তান ২০টা হলেও কোন অশান্তি নেই। আরও শান্তি। মাঝে মাঝে কিছু মানুষ এসে আমাদের নিষেধ করে। আমরা তাদের কথা মানি না, আল্লাহ আমাদের যা দিয়েছে তাই ভালো।

রোহিঙ্গাদের জন্ম নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা না গেলে; তা বাংলাদেশের জন্য নতুন ভয়াবহ সংকট তৈরি করবে বলে আশঙ্কা করছেন এই চিকিৎসক।

চিকিৎসক ডা. পারভীন আক্তার বলেন,’ বিভিন্ন এনজিও তাদের সন্তান হিসেব করে ওদেরকে খাবারের ব্যবস্থাটা করে দিচ্ছে।

প্রশাসনে কর্মকর্তা জানালেন রোহিঙ্গাদের জন্মনিয়ন্ত্রণে তেমন কোন উদ্যোগ ছিল না মিয়ানমারে। তবে রোহিঙ্গাদের জন্মনিয়ন্ত্রণে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে।

উখিয়ার নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন ‘জন্ম নিয়ন্ত্রণে যে সকল পদ্ধতিগুলো রয়েছে; আমাদের স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন তাদেরকে উদ্বুদ্ধ করছেন। আমাদের ফ্যামিলি বিভাগও এখানে কাজ করছে। আমরা কিছুটা সফলতা পাচ্ছি। আশা করি সময় গেলে আমরা আরো বেশি সফল হবো।’

স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া তথ্য মতে কক্সবাজারে উখিয়া ও টেকনাফে রোহিঙ্গা শিবিরের ২০ ব্লকে প্রতিদিন গড়ে জন্ম নিচ্ছে অন্তত ৪০-৫০ জন শিশু। রোহিঙ্গাদের জন্মহার স্থানীয়দের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অনাবাসিক দূতদের আলোচনা ও সমর্থনত্যাগের মহিমায় যোগ্য নাগরিক হিসেবে নিজেদেরকে গড়ে তুলেতে হবে : প্রধানমন্ত্রীমহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাসাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে বীর শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর গভীর শ্রদ্ধাবিজয় দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে যান চলাচলে ডিএমপি’র নির্দেশনামহান বিজয় দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআজ মহান বিজয় দিবস : শোক আর রক্তের ঋণ শোধ করার গর্বে উজ্জীবিত জাতি দেশবরেণ্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী আর নেইমৃত্যুদন্ডাদেশপ্রাপ্ত বিদেশে পলাতক যুদ্ধাপরাধীদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে : সেতুমন্ত্রীমিয়ানমারে সহিংসতা শুরুর প্রথম মাসেই অন্তত ৬ হাজার ৭ শ’ রোহিঙ্গাকে হত্যা : এমএসএফবিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় গোটা জাতি'র শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণআজকের সম্পাদকীয়- আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস : গোটা জাতি'র বিনম্র শ্রদ্ধা ৩ দিনের সরকারি সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী আজ দেশে ফিরবেন গেইলের বিধ্বংসী সেঞ্চুরি : ঢাকা ডায়নামাইটসকে ৫৭ রানে হারালো রংপুর রাইডার্সকংগ্রেসের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে রাহুল গান্ধীর নাম ঘোষণা নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরি বিধি প্রকাশ করেছে সরকারআওয়ামীলীগের ওপর মানুষের বিশ্বাস ও সমর্থন বৃদ্ধি পেয়েছে : সজীব ওয়াজেদ জয় ‘অগ্নিকন্যা মতিয়া চৌধুরী নকলাকে কৃষিখাতে সফল বিপ্লবের সাফল্য দেখিয়েছেন’আগামী নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীআজ বেগম রোকেয়া দিবস : রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র পৃথক বাণী
  • রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অনাবাসিক দূতদের আলোচনা ও সমর্থনত্যাগের মহিমায় যোগ্য নাগরিক হিসেবে নিজেদেরকে গড়ে তুলেতে হবে : প্রধানমন্ত্রীমহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাসাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে বীর শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর গভীর শ্রদ্ধাবিজয় দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে যান চলাচলে ডিএমপি’র নির্দেশনামহান বিজয় দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআজ মহান বিজয় দিবস : শোক আর রক্তের ঋণ শোধ করার গর্বে উজ্জীবিত জাতি দেশবরেণ্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী আর নেইমৃত্যুদন্ডাদেশপ্রাপ্ত বিদেশে পলাতক যুদ্ধাপরাধীদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে : সেতুমন্ত্রীমিয়ানমারে সহিংসতা শুরুর প্রথম মাসেই অন্তত ৬ হাজার ৭ শ’ রোহিঙ্গাকে হত্যা : এমএসএফবিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় গোটা জাতি'র শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণআজকের সম্পাদকীয়- আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস : গোটা জাতি'র বিনম্র শ্রদ্ধা ৩ দিনের সরকারি সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী আজ দেশে ফিরবেন গেইলের বিধ্বংসী সেঞ্চুরি : ঢাকা ডায়নামাইটসকে ৫৭ রানে হারালো রংপুর রাইডার্সকংগ্রেসের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে রাহুল গান্ধীর নাম ঘোষণা নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরি বিধি প্রকাশ করেছে সরকারআওয়ামীলীগের ওপর মানুষের বিশ্বাস ও সমর্থন বৃদ্ধি পেয়েছে : সজীব ওয়াজেদ জয় ‘অগ্নিকন্যা মতিয়া চৌধুরী নকলাকে কৃষিখাতে সফল বিপ্লবের সাফল্য দেখিয়েছেন’আগামী নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীআজ বেগম রোকেয়া দিবস : রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র পৃথক বাণী
উপরে