প্রকাশ : ০৭ আগস্ট, ২০১৭ ০৩:৪২:৫৮
অস্তিত্বহীন লবণ মিলের নামে সিন্ডিকেট! আমদানির পারমিট পেতে তদ্বির
বাংলাদেশ বাণী, ফরিদুল মোস্তফা খান, কক্সবাজার থেকে : সরকারের লবণ আমদানির সিদ্ধান্তের সুযোগে কেবল কাগজ-কলম সর্বস্ব অস্তিত্বহীন লবণ মিলের নামে লবণ আমদানির অনুমতি পেতে উঠেপড়ে লেগেছেন ভুয়া লবণ মিল মালিকেরা। ইতোমধ্যে ‘পারমিট’ নিশ্চিত করতে বিসিকের কক্সবাজার ও ঢাকা অফিসের কয়েক কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। কোনো ধরনের লবণ উৎপাদনে নেই, বছরের বেশির ভাগ সময় বন্ধ থাকে, এমনকি বিসিকের তালিকায় নেই আবেদনের শেষ দিনে এমন মিলের নামেও আবেদন জমা পড়েছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। এতে প্রকৃত মিলাররা হতাশ।

অভিযোগ রয়েছে, কক্সবাজারের মহেশখালীর মাতারবাড়ীর একব্যক্তি ও শিল্প মন্ত্রণালয়েরর এক যুগ্ম সচিব বিসিককে পাশ কাটিয়ে নিজস্ব পছন্দের ৩০/৪০ মিল নিয়ে সিন্ডিকেট করেছেন। পারমিট নিশ্চিত করতে প্রতি মিল থেকে তারা নিয়েছেন নূন্যতম দেড় লাখ টাকা।

প্রকৃত মিল মালিকদের অভিযোগ, ভুয়া লবণ মিল মালিকদের প্রত্যয়ন ও ফাইল প্রসেসিং কাজে বিসিক লবণ শিল্প উন্নয়ন প্রকল্পের উপমহাব্যবস্থাপক মো: আবছার উদ্দিন ও মনিটরিং অফিসার নিতাই চন্দ্র রায় সরাসরি জড়িত রয়েছেন। তারা অস্তিত্বহীন মিলের নামে আনুষঙ্গিক ডকুমেন্ট তৈরি করে দিয়েছেন।

অন্য একটি সূত্রের দাবি, বিসিককে সম্পূর্ণ অন্ধকারে রেখে লবণ আমদানির আবেদন ফাইল সংশ্লিষ্ট দফতরে জমা করেছেন অস্তিত্বহীন লবণ মিল মালিকেরা।

কক্সবাজার লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি সামশুল আলম আজাদ বলেন, আমরা শুনেছি অস্তিত্বহীন কিছু লবণ মিলের নামে ফাইল জমা পড়েছে। কারা এ জালিয়াতির সাথে জড়িত তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া দরকার ; তা না হলে প্রকৃত মিলাররা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

প্রকৃত লবণ মিলের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিসিক লবণ শিল্প উন্নয়ন প্রকল্পের উপমহাব্যবস্থাপক মো: আবছার উদ্দিন বলেন, ‘আমার অফিসে কোনো তালিকা নেই। এ বিষয়ে কিছুই জানি না। মনিটরিং অফিসার নিতাই চন্দ্র রায় জানবেন। সম্ভবত তার মাধ্যমে সব করা হয়েছে।’
বিসিক কক্সবাজারের একজন সর্বোচ্চ কর্তা হয়ে কেন কিছুই জানেন না ? জিজ্ঞেস করলে তিনি প্রশ্ন এড়িয়ে যান।

সূত্র জানায়, দেশে লবণের সরবরাহ ও বাজার স্বাভাবিক রাখতে গত জুনে শিল্প মন্ত্রণালয়ে খাত সংশ্লিষ্টদের নিয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে তিন লাখ টন লবণ আমদানির সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু বাণিজ্য মন্ত্রণালয় অনুমতি দিয়েছে পাঁচ লাখ টন লবণ আমদানির।

বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) কক্সবাজারের লবণ শিল্প উন্নয়ন প্রকল্প কার্যালয় সূত্র জানায়, চলতি বছরে দেশে লবণের চাহিদা ১৫ দশমিক ৭৬ লাখ টন। এর বিপরীতে গত জুনে শেষ হওয়া মওসুমে উৎপাদন হয়েছে ১৩ দশমিক ৬৪ লাখ টন। এ হিসাবে চাহিদার চেয়ে লবণের ঘাটতি আছে দুই লাখ ১২ হাজার টন। কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের বাঁশখালী (আংশিক) অঞ্চলের ৬৫ হাজার একর জমিতে লবণ উৎপাদন হয়।
কক্সবাজার সদরের বিসিক শিল্পনগরী ইসলামপুরকেন্দ্রিক ৩৫টিসহ জেলায় ছোট-বড় মিলিয়ে গড়ে উঠেছে অন্তত: ৫০টি লবণ কারখানা।

 
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে