প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০২:৩৪:৫৪
নারায়ণগঞ্জে স্কুলে ফের তদন্ত কমিটি’র পরিদর্শন
বাংলাদেশ বাণী, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘নারায়ণগঞ্জ বার একাডেমী’ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বহিস্কার দাবীতে বিক্ষোভ ও তাকে লাঞ্ছনার ঘটনা তদন্তে আবারো স্কুলটি পরিদর্শন করেছেন তদন্ত কমিটি।

বুধবার দুপুরে তদন্ত কমিটির প্রধান জেলা শিক্ষা অফিসার শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল স্কুলটি পরিদর্শনে যান। এসময় তারা প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান মনিরকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়ে এডহক কমিটির রেজ্যুলেশন ও শিক্ষকদের বক্তব্য নেন। এছাড়া স্কুলটির পরিবেশ উন্নয়নে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে নানা দিক নির্দেশনা দেন তদন্ত কমিটি।
 
জানা গেছে, গত ২০ আগস্ট মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস স্কুলটির ম্যানেজিং কমিটির তফসিল ঘোষণা করলেও স্কুলটির প্রধান শিক্ষক ও এডহক কমিটির সদস্য সচিব মনিরুজ্জামান পুরো বিষয়টি গোপন রাখেন বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। পূর্বতন কমিটির সভাপতি শামীম চৌধুরীকে প্রধান রেখে একটি কমিটি জমা করে সেটাকে অনুমোদন আনার চেষ্টা করেন মনিরুজ্জামান।

গত ২১ আগষ্ট প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান মনিরের বিভিন্ন অনিয়ম তুলে ধরে তাকে বরখাস্তের দাবিতে জেলা প্রশাসকের বরাবরে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে জেলা শিক্ষা অফিসার শরিফুল ইসলামকে প্রধান করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। অন্য দুইজন সদস্য হলেন জেলা শিক্ষা অফিসের গবেষণা কর্মকর্তা নাজমুন্নাহার খানম ও প্রধান সহকারী মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। এদিকে গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পরে অভিভাবক, শিক্ষার্থীরা ও স্থানীয়রা ক্ষোভে ফুঁসে উঠতে থাকে। তারা এ ব্যাপারে কয়েকদিন ধরেই আন্দোলন করার প্রস্তুতি নেয়। এছাড়া ঈদুল আযহার কয়েকদিন পূর্বে কয়েকজন ছাত্রের চুল কেটে দেন প্রধান শিক্ষক। এতে করে অভিভাবকদের ক্ষুদ্ধতা আরো বাড়ে।
 
সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে তদন্ত কমিটির প্রধান জেলা শিক্ষা অফিসার শরীফুল ইসলামের নেতৃত্বে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি স্কুলটি পরিদর্শনে আসেন। তবে এর আগেই স্কুলটির সামনে বিক্ষুব্দ অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী ব্যানার ও ঝাড়– নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকে।

তদন্ত কমিটি স্কুল আসলে তারা তাদেরকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ প্রদর্শণসহ নানা অভিযোগ প্রদান করতে থাকে। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ স্কুলটিতে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এরপর তদন্ত কমিটি প্রধান শিক্ষকের কক্ষে বসে অভিভাবক, প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও স্থানীয়দের নানা অভিযোগ শোনেন। এসময় প্রধান শিক্ষকের উপস্থিতিতেই তার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন বিক্ষুদ্ধরা।

ওই সময় প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান মনির তদন্ত কমিটিকে বলেন, আমি হুকুমের গোলাম। আমাকে ম্যানেজিং কমিটি যেভাবে নির্দেশ দিয়েছে আমি সেটা পালন করেছি। তিনি একটি কমিটি উপজেলা শিক্ষা অফিসে জমা দিয়েছেন বলেও স্বীকার করেন। এদিকে জেলা শিক্ষা অফিসার পার্শ্ববর্তী শিক্ষকদের মিলনায়তনে গিয়ে শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলতে গেলে তখন বিক্ষুব্দরা এক পর্যায়ে প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানকে টেনে হিচড়ে বের করে আনা হয়।

এসময় তাকে লাঞ্ছিতও করা হয়। তখন পূর্বতন ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক প্রতিনিধি সদস্য নুরুজ্জামান তাকে উদ্ধার করে গাড়িতে করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এরপর স্কুলটির ৩৫ জন শিক্ষক তদন্ত কমিটির কাছে প্রধান শিক্ষকের অনিয়মের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন।
 
মঙ্গলবার দুপুরে স্কুলটিতে আসেন স্কুলটির এডহক কমিটির সভাপতি শামীম চৌধুরী, এডহক কমিটির সদস্য আলী হায়দার শামীম, সাবেক ম্যানেজিং কমিটির কো-অপ্ট সদস্য জিয়াউদ্দিন আহম্মেদ, সাবেক ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক প্রতিনিধি সদস্য নুরুজ্জামান, আজাহারুল ইসলাম। পরে তারা স্কুলটির শিক্ষকদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠকে বসেন। এ সময় স্কুলটির শিক্ষকরা প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও সেচ্ছাচারিতার অভিযোগ তুলে ধরেন। এসময় শিক্ষকরা অভিযোগ করেন, নরসিংদীর চর মাধবপুরের সরকারি মদিনাতুল দাখিল মাদ্রাসার এমপিও ভুক্ত শিক্ষিকা বিউটি আক্তার মাসের পর মাস অবৈধ ভাবে বালিকা শাখায় বাংলা শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ প্রদান করেছেন। যা অবৈধ ও আইন পরিপন্থি। একটি স্কুলের এমপিও ভুক্ত শিক্ষক যার পিআইটি নং-২১১১৩৫৮ সরকারি মদিনাতুল দাখিল মাদ্রাসা, চর মাধবপুর কর্মের অনুপস্থিতি থেকে তার ঘনিষ্ঠ জন অবৈধ ভাবে এবং প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানের সহযোগিতার শিক্ষকতা করে আসছেন।
 
বৈঠক শেষে এডহক কমিটির সভাপতি শামীম চৌধুরী সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে জানান, প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানের সঙ্গে সোমবার যে ঘটনাটি ঘটেছে সেটা পূর্ব পরিকল্পিত। পূর্বে থেকেই ব্যানার করার বিষয়টিতেই সেটা প্রমানিত হয়। তবে তারা বিষয়টি টের পাননি। এছাড়া প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানকে বদমেজাজী উল্লেখ করে তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে শিক্ষকদের কাছ থেকে নানাবিধ অভিযোগ পেয়ে তাকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের কোন দালিলিক প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এছাড়া দুর্নীতির অভিযোগে শিক্ষিকা বিউটি আক্তারকেও সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
 
এদিকে বুধবার দুপুরে তদন্ত কমিটি স্কুলটি পরিদর্শনে যান। এসময় তারা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন।
 
এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন কারী হুমায়ন কবির জানান, তদন্ত কমিটি বুধবার দুপুরে স্কুলটিতে এসেছিলেন। তারা আমাদের সঙ্গে নানা বিষয়ে কথা বলেছেন এবং প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান মনির ও শিক্ষক বিউটি আক্তারকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়ে এডহক কমিটির রেজ্যুলেশন নিয়ে গেছেন। এছাড়াও তদন্ত কমিটি স্কুলটির পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে আমাদের নানা দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।
 
তদন্ত কমিটির প্রধান জেলা শিক্ষা অফিসার শরীফুল ইসলাম জানান, তদন্ত প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। বুধবারও তদন্তে গিয়েছিলাম। বেশ কিছু তথ্য এখনো পাইনি। আশা করছি দ্রুতই তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করতে পারবো।
সর্বশেষ সংবাদ
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
উপরে