প্রকাশ : ০৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০২:৪১:১৭
রোহিঙ্গা শিবির ভিত্তিক ১২টি এনজিও’র কার্যক্রম নিষিদ্ধ
বাংলাদেশ বাণী, ফরিদুল মোস্তফা খান, কক্সবাজার থেকে : রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকা- পরিচালনার পাশাপাশি অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে কক্সবাজারে টেকনাফ এবং উখিয়ায় রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবির ভিত্তিক ১২টি এনজিও’র কার্যক্রম বন্ধ করছে সরকার। এনজিও ব্যুরোর কোন রকম অনুমোদন ছাড়াই এনজিওগুলো আশ্রয় শিবিরে সন্দেহজনক কার্যক্রম পরিচালনা করছে বলে গোয়েন্দাপ্রতিবেদন পাওয়ার পর এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো ১২টি এনজিও’র তালিকা সম্বলিত কার্যক্রম নিষিদ্ধের চিঠি উখিয়া উপজেলাপ্রশাসনের হাতে পৌঁছেছে।

নিয়ম অনুযায়ী এনজিওগুলোর অনুমোদন ছাড়া কোনো রকম কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষমতা নেই দেশি-বিদেশি কোনো সংস্থার। এর মাঝে মিয়ানমার থেকেপ্রাণভয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করার ক্ষেত্রে বিধি নিষেধের পরিমাণ আরো বেশি। তারপরও শুধু এনজিওগুলো নয়, স্থানীয়প্রশাসনকে অবহিত না করে শুরুর দিকে শতাধিক এনজিও কাজ করেছে রোহিঙ্গাদের নিয়ে।


রোহিঙ্গাপ্রত্যাবাসন কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আদিল চৌধুরি বলেন, ‘এরা মূলত একই সাথে বিভিন্ন ক্যাম্পের সংগঠিত কর দিচ্ছে এবং ওদের মধ্যে যোগাযোগের সুযোগ সৃষ্টি করে দিচ্ছে তারা।’
কুতুবপালং আশ্রয় শিবিরের ক্যাম্প ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন, ‘তারা কি কাজ করছে, তাদের যদি আমরা নজরদারি করতে না পারি তাহলে সেটাই ক্যাম্প পরিচালনার ক্ষেত্রে আমাদের জন্য বড় ধরনের সমস্যা।’

এরমধ্য অনেক এনজিওর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় বিরোধী কর্মকা-ে জড়িত থাকার পাশাপাশি না অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। গোয়েন্দাপ্রতিবেদন পাওয়ার প্রেক্ষিতে রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবির ভিত্তিক ১২টি এনজিও কার্যক্রম নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নিকারুজ্জামান চৌধুরি বলেন,’এনজিওগুলো সরকারের যে নীতি নিয়ম রয়েছে সেগুলোর বিরুদ্ধে কাজ করছে, এবং সরকারি পলিসির বিরুদ্ধে কাজ করছে তাই এনজিওগুলোর নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

১২টি এনজিও সরকার নিষিদ্ধ করলেও এখনো রয়ে গেছে বেশকটি এনজিওর সন্দেহজনক কার্যক্রম। এসব এনজিওগুলোর কার্যক্রমগুলো গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।
কক্সবাজার পুলিশ সুপার এ কে এম ইকবাল বলেন, ‘কোন দেশ থেকে ফান্ড আসে, এবং কোথায় ব্যবহার করা হচ্ছেপ্রত্যেকটা আমরা জবাবদিহিতার মধ্য এনেছি।’

কক্সবাজার উখিয়া ও টেকনাফের রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরগুলোতে বর্তমানে ১৯০টিপ্রকল্প নিয়ে কাজ করছে দেশি বিদেশি ৯০টি এনজিও সংস্থা। রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের শুরু থেকে নানাভাবে সহযোগীতার কথা বলে কাজ করেছে শত শত এনজিও। ছিলোনা কোনো তদারকি। যা ক্ষতি হওয়ার তা হয়ে গেছে। শেষ পর্যন্ত সরকার ১২টি এনজিও নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া সন্দেহভাজন যারা আছে তাদের জন্য নেয়া হচ্ছে কঠোর ব্যবস্থা। এখন দেখা যাক এ সিদ্ধান্ত কতটা কার্যকর হয়।
সর্বশেষ সংবাদ
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
উপরে