প্রকাশ : ০৭ আগস্ট, ২০১৭ ০১:৩৬:৪৫
ইউএনও’র বিরুদ্ধে মামলা : ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটির কাজ শুরু
বাংলাদেশ বাণী, বরিশাল জেলা প্রতিনিধি : জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার সাবেক নির্বাহী অফিসার পরবর্তীতে বরগুনা সদর উপজেলার ইউএনও (বর্তমানে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের সহকারী সিনিয়র সচিব) গাজী তারিক সালমনের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতির অপরাধে দায়ের করা মানহানি মামলা সংক্রান্ত বিষয়টি খতিয়ে দেখতে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির সদস্যরা বরিশালে কাজ শুরু করেছেন।

রবিবার সকালে ঢাকা থেকে আসা কমিটির প্রধানমন্ত্রী পরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব এম বজলুল করিম চৌধুরীর নেতৃত্বে ওই কমিটিতে রয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ, আইন ও বিচার বিভাগ এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একজন করে যুগ্মসচিব।

বরিশাল জেলা প্রশাসক মোঃ হাবিবুর রহমান জানান, ঢাকা থেকে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি সকাল দশটায় বরিশাল সার্কিট হাউজে এসে পৌঁছেছেন। সেখানে বর্তমানে প্রত্যাহার হওয়া মামলার বাদী এ্যাডভোকেট ওবায়েদুল্লাহ সাজু, গাজী তারিক সালমনের আইজীবী মোঃ মোখলেসুর রহমান খান ও ঘটনারদিন আদালতে দায়িত্ব পালন করা ছয় পুলিশ সদস্য তদন্ত কমিটির সাথে সার্কিট হাউজে অবস্থান করছেন। তদন্ত কমিটির সদস্যরা প্রয়োজন মনে করলে এর বাইরে কারও সাথে কথা বলতে পারেন।

উল্লেখ্য যে, মহান স্বাধীনতা দিবস উদ্যাপনে আমন্ত্রণপত্রে বঙ্গবন্ধুর (শিশুর আঁকা) ছবি বিকৃত করে ছাঁপানোর অভিযোগে গত ৭জুন আগৈলঝাড়ার সাবেক ইউএনও তারিক সালমনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেন বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক (বর্তমানে বহিস্কৃৃত) এ্যাডভোকেট ওবায়েদুল্লাহ সাজু।

ওই মামলায় তারিক সালমন আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক মোহাম্মদ আলী হোসাইন জামিন নামঞ্জুর করে তাকে (ইউএনও) কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়ার পর ইউএনওকে আদালতের হাজতখানায় রাখা হয়।

পরবর্তীতে তারিক সালমনের আইনজীবী আবারও জামিনের আবেদন করলে দুই ঘন্টা পর ইউএনও তারিক সালমনকে জামিন প্রদান করেন বিচারক। এনিয়ে সারাদেশে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠে। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানতে পেরে তাৎক্ষনিকভাবে তিনি মামলার বাদীকে দলীয় পদ থেকে বহিস্কারের নির্দেশ দেন। পাশাপাশি এ ঘটনায় সঠিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি (প্রধানমন্ত্রী) স্ব-স্ব মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে