প্রকাশ : ০৭ আগস্ট, ২০১৭ ০১:৪৪:৩১
বরিশালে চিকিৎসক কর্তৃক রোগীনীকে ধর্ষণের চেষ্টা ★ আদালতে মামলা
বাংলাদেশ বাণী, বরিশাল জেলা প্রতিনিধি : চিকিৎসার নামে নারী রোগীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে নগরীর এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে রবিবার বিকেলে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ভূক্তভোগী ওই নারী (মামলা নং ১৩৩/২০১৭)। বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মোঃ আবু তাহের মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেটকে দায়িত্ব দিয়েছেন।

আদালতে দায়ের করা এজাহারে জানা গেছে, বরিশাল জেনারেল হাসপাতালের (সদর হাসপাতাল) অর্থ সার্জারী বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ মোঃ সফিকুল ইসলামের কাছে গত ৯ জুলাই চিকিৎসার জন্য আসেন গৌরনদী পৌর এলাকার উত্তর বিজয়পুর গ্রামের এইচএম মাকসুদ আলী সুমনের স্ত্রী সাকিলা খানম রিয়া (২০)। হাসপাতালের সরকারী টিকিট কেটে চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিতে আসলে সে (চিকিৎসক) তার পছন্দমতো ডায়াগনস্টিক সেন্টারে টেস্ট দিয়ে প্রাইভেট চেম্বারে দেখা করতে বলেন। সে অনুযায়ী টেস্ট করিয়ে ডাঃ সফিকুল ইসলামের প্রাইভেট চেম্বার নগরীর সদর রোডের মোকলেচুর রহমান ক্লিনিকে যায় গৃহবধূ রিয়া।

এজাহারে আরও জানা গেছে, টেস্টগুলো দেখে প্রথমে চিকিৎসক সফিকুল ইসলাম জানায় রোগীর (রিয়া) মেরুদন্ডের হাড় ফাঁকা হয়ে গেছে। পরবর্তীতে পরীক্ষার নামে প্রাইভেট চেম্বারের বেডে শুইয়ে গৃহবধূ রিয়ার বুকে টিউমার আছে বলে জানিয়ে জোরপূর্বক বুক খুলে আপত্তিকর আচরণ করে ডাঃ সফিকুল ইসলাম। পরে সে (সফিকুল) জানায়, টিউমারের অবস্থা ভাল নয়, ওষুধ লিখে দিলাম পরে আর একবার আসলে ভাল হয়ে যাবে।

এজাহারে আরও জানা গেছে, পরবর্তীতে গত ৩১ জুলাই বিকেলে গৃহবধূ রিয়া তার স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে ডাঃ সফিকুল ইসলামের চেম্বারে দেখা করেন। ওই সময় রিয়া একাই চিকিৎসকের রুমে প্রবেশ করার পর তার টিউমারের অবস্থা দেখার জন্য ওই চিকিৎসক চেম্বারের বেডে শুইয়ে পূর্ণরায় শরীরে আপত্তিকর ভাবে হাত দেয়। এর পর ধর্ষণের ব্যর্থ চেষ্টা করে। এ সময় গৃহবধূ রিয়ার চিৎকারে তার স্বামীসহ অন্যান্যরা এগিয়ে এসে তাকে রক্ষা করেন।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
উপরে