প্রকাশ : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০৪:০৯:৪৬
জঙ্গী নেতা হাফেজ ছালাহুলের হুমকিতে কক্সবাজারের ব্যবসায়ীরা আতঙ্কিত
বাংলাদেশ বাণী, কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি : মাদ্রাসা নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত নির্মাণ সামগ্রীর পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে আইনজীবীদের সামনে গালিগালাজ, অশোভন আচরণসহ প্রাণ নাশের হুমকি দিলেন কক্সবাজারের কথিত জঙ্গী নেতা ও ইমাম মুসলিম (রা.) রিসার্চ সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হাফেজ ছালাহুল ইসলাম। ৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। ফলে নিরাপত্তাহীনতাসহ আতঙ্কে ভূগছেন কক্সবাজার এক ব্যবসায় নোমান ছিদ্দিকি।

নোমান ছিদ্দিকির বর্ণনা মতে জানা যায়, আলী হাসান চৌধুরীর স্বত্বাধিকারী মেসার্স নাহার এন্টারপ্রাইজ রড, সিমেন্টের দোকান থেকে ওই জঙ্গী নেতা হাফেজ ছালাহুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে রড, সিমেন্ট ক্রয় করে ইমাম মুসলিম (রা) এর নামে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন। দেনা-পাওনা নিস্পত্তি সাপেক্ষে ৬লাখ ৪৫ হাজার ৭শ ২৫ টাকা মেসার্স নাহার এন্টারপ্রাইজ পাওনা ছিল। দীর্ঘ অনেক মাস তাগাদা দেওয়ার পর হাফেজ ছালাহুল ইসলাম কর্ণপাত না করায় অবশেষে গত ৪ মে ২০১৭ইং সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত নং-৪, কক্সবাজার আমমোক্তার গ্রহণকারী নোমান ছিদ্দিকি বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- সি.আর-৫৯৫/২০১৭ইং। উক্ত মামলায় পিআইবি রিপোর্টও বাদী পক্ষে দেওয়া হয়। পরে কোর্ট কর্তৃক সমন জারি করা হয়। গত ২২ আগষ্ট ওই মামলার আদালতে দিন ধার্য্য ছিল। সেদিন হাফেজ ছালাহুল ইসলাম ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি এডভোকেট আহমদ হোসেন এর অনুরোধে মামলাটি স্থানীয়ভাবে নিস্পত্তি করে দেব এবং পাওনা টাকার অর্ধেক নগদে বাকী টাকার চেক প্রদান করবে বলে আশ্বাস পেয়ে বাদী আদালতে সময়ের দরখাস্ত দিয়ে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় নেন।

ওই মামলার বাদী নোমান ছিদ্দিকি আরও জানান, গত ৬সেপ্টেম্বর বিকালে এডভোকেট আহমদ হোসেন বাদীর সিনিয়র আইনজীবী আয়াছুর রহমানকে চেম্বারে ডাকলে তিনিসহ চেম্বারে যাই। এডভোকেট আহমদ হোসেন বিবাদীর কথাশুনে অতঃপর আমাকে (বাদী) কথা বলতে চাইলে হাফেজ ছালেহুল ইসলাম ও তার ছেলে তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

বাদী নোমান ছিদ্দিকি, দোকানের ক্যাশিয়ার প্রদীপ বড়–য়াকে অশ্রাভ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং প্রাণে মেরে ফেলবে বলে হুমকি ধমকি প্রদান করেন।
এসময় হ্নীলা মাদ্রাসার সাবেক মুহতামিম আবছার উদ্দিন চৌধুরী সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। ফলে বাদী নোমান ও দোকানের ক্যাশিয়ার প্রদীপ বড়ুয়া নিরাপত্তাহীনতাসহ আতঙ্কে ভুগছেন।

উল্লেখ্য যে, রোহিঙ্গা সলিডারিটি অর্গানাইজেশনের (আরএসও) সামরিক বাহিনীর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন হাফেজ সালাহুল ইসলাম। তার অর্থায়নে ও সহযাগিতায় কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবির ঘিরে রোহিঙ্গা জঙ্গিরা তৎপর হয়ে উঠেছে। জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার কারণে বিভিন্ন সময় বেশ কয়েবার আটক হলেও বারবার প্রভাবশালীদের সহায়তায় জামিন নিয়ে কৌশলে বের হয়ে আসে সালাহুল।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে