প্রকাশ : ২৪ মার্চ, ২০১৭ ০২:২৩:১৩
বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে-
বিক্ষুব্ধ শিল্পীসমাজ টেলিভিশন ও বেতার নিজেদের দখলে রেখেছিল
বাংলাদেশ বাণী, ২৪ মার্চ, ঢাকা : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে ১৯৭১-এর মার্চে  দেশের বিক্ষুব্ধ শিল্পী সমাজ টেলিভিশন ও বেতার নিজেদের দখলে রেখেছিল। ৮ মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত শিল্পীরা জেনারেল ইয়াহিয়ার সেনাবাহিনীর নাকের ডগায় বসে বাঙালি জাতীয়তাবাদের পক্ষে অসাধারণ সব অনুষ্ঠান সম্প্রচার করেছিল। যা মুক্তিযুদ্ধে বাঙালি জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে।
১৯৭১ সালের ১ মার্চ ইয়াহিয়া খান গণপরিষদের সভা স্থগিত ঘোষণা করলে বাঙালি বিক্ষোভে ফেটে পরে। বঙ্গবন্ধু ওই দিনই পাকিস্তান সরকারের বিরুদ্ধে অসহযোগের ডাক দিয়ে ৭ মার্চের জনসভা থেকে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণার কথা জানান।
বঙ্গবন্ধুর অসহযোগের ঘোষণা দেয়ায় আমরা বিক্ষুব্ধ শিল্পী সমাজ ১ মার্চ থেকেই বেতার ও টিভির অনুষ্ঠান বর্জন করতে শুরু করেন। এ বর্জন এতটাই সর্বাত্মক হয়েছিল যে, পাকিস্তানিরা বেতার-টিভি চালাতে পারছিল না। কারণ সে সময় অনুষ্ঠান রেকর্ডিংয়ের কোনো সুযোগ ছিল না বলে সব অনুষ্ঠানই সরাসরি সম্প্রচার করা হতো। এতে তৎকালীন পাকিস্তানি বেতার ও টিভি কর্তৃপক্ষকে বেশ বেকায়দায় পড়তে হয়েছিল।
বঙ্গবন্ধু তখন তাদের সামনেই তৎকালীন তথ্যসচিব জহুরুল হককে ফোন করেন এবং বলেন, আমার ছেলেদের পাঠাচ্ছি, ওদের কথামত যদি বেতার-টিভি চালান তাহলে তা অসহযোগের বাইরে থাকবে, তা না হলে গণমাধ্যম দুটিও অসহযোগের আওতায় পড়বে। তারা তখনই বঙ্গবন্ধুর বাড়ি থেকে বের হয়ে জহুরুল হকের বাসায় যান। সচিব তাদের বসিয়ে রাওয়ালপিন্ডির সঙ্গে কথা বলেন এবং জানান, দুটি শর্ত মানলে তাদের (শিল্পীদের) হাতে বেতার-টিভির দায়িত্ব দিতে পারেন।
তিনি বলেন, শর্ত দুটি ছিল- পাকিস্তানের অখ-তা ও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে কিছু বলা ও প্রচার করা যাবে না। তারা সঙ্গে সঙ্গে বঙ্গবন্ধুকে ফোন করে শর্ত দুটির কথা জানান। তখন বঙ্গবন্ধু তাদের বলেন- ‘আপাতত শর্ত দুটি মেনে বেতার-টিভি দখল কর।
তিনি বলেন, ১ মার্চ শিল্পীদের দ্বারা গঠিত তাদের সংগঠন ‘বিক্ষুব্ধ শিল্পী সমাজ’-এর নেতৃবৃন্দ ৮ মার্চ বেতার ও টিভির কর্মকর্তা ও প্রযোজকদের সঙ্গে বসে মোস্তফা মনোয়ারকে বেতারের এবং আশরাফুজ্জামানকে টেলিভিশনের আহ্বায়ক করে দুটি কমিটি গঠন করেন। এ কমিটি ৮ মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত ইয়াহিয়ার সেনাবাহিনীর নাকের ডগায় বসে বাঙালি জাতীয়তাবাদের পক্ষে অসাধারণ সব অনুষ্ঠান প্রচার করে। যা মুক্তিযুদ্ধে বাঙালি জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। এ সময় শিল্পীরা এসব অনুষ্ঠানের জন্য কোনো পারিশ্রমিক নেয়নি বলেও জানা যায়।
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে