প্রকাশ : ২৪ মার্চ, ২০১৭ ০২:২৩:১৩
বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে-
বিক্ষুব্ধ শিল্পীসমাজ টেলিভিশন ও বেতার নিজেদের দখলে রেখেছিল
বাংলাদেশ বাণী, ২৪ মার্চ, ঢাকা : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে ১৯৭১-এর মার্চে  দেশের বিক্ষুব্ধ শিল্পী সমাজ টেলিভিশন ও বেতার নিজেদের দখলে রেখেছিল। ৮ মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত শিল্পীরা জেনারেল ইয়াহিয়ার সেনাবাহিনীর নাকের ডগায় বসে বাঙালি জাতীয়তাবাদের পক্ষে অসাধারণ সব অনুষ্ঠান সম্প্রচার করেছিল। যা মুক্তিযুদ্ধে বাঙালি জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে।
১৯৭১ সালের ১ মার্চ ইয়াহিয়া খান গণপরিষদের সভা স্থগিত ঘোষণা করলে বাঙালি বিক্ষোভে ফেটে পরে। বঙ্গবন্ধু ওই দিনই পাকিস্তান সরকারের বিরুদ্ধে অসহযোগের ডাক দিয়ে ৭ মার্চের জনসভা থেকে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণার কথা জানান।
বঙ্গবন্ধুর অসহযোগের ঘোষণা দেয়ায় আমরা বিক্ষুব্ধ শিল্পী সমাজ ১ মার্চ থেকেই বেতার ও টিভির অনুষ্ঠান বর্জন করতে শুরু করেন। এ বর্জন এতটাই সর্বাত্মক হয়েছিল যে, পাকিস্তানিরা বেতার-টিভি চালাতে পারছিল না। কারণ সে সময় অনুষ্ঠান রেকর্ডিংয়ের কোনো সুযোগ ছিল না বলে সব অনুষ্ঠানই সরাসরি সম্প্রচার করা হতো। এতে তৎকালীন পাকিস্তানি বেতার ও টিভি কর্তৃপক্ষকে বেশ বেকায়দায় পড়তে হয়েছিল।
বঙ্গবন্ধু তখন তাদের সামনেই তৎকালীন তথ্যসচিব জহুরুল হককে ফোন করেন এবং বলেন, আমার ছেলেদের পাঠাচ্ছি, ওদের কথামত যদি বেতার-টিভি চালান তাহলে তা অসহযোগের বাইরে থাকবে, তা না হলে গণমাধ্যম দুটিও অসহযোগের আওতায় পড়বে। তারা তখনই বঙ্গবন্ধুর বাড়ি থেকে বের হয়ে জহুরুল হকের বাসায় যান। সচিব তাদের বসিয়ে রাওয়ালপিন্ডির সঙ্গে কথা বলেন এবং জানান, দুটি শর্ত মানলে তাদের (শিল্পীদের) হাতে বেতার-টিভির দায়িত্ব দিতে পারেন।
তিনি বলেন, শর্ত দুটি ছিল- পাকিস্তানের অখ-তা ও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে কিছু বলা ও প্রচার করা যাবে না। তারা সঙ্গে সঙ্গে বঙ্গবন্ধুকে ফোন করে শর্ত দুটির কথা জানান। তখন বঙ্গবন্ধু তাদের বলেন- ‘আপাতত শর্ত দুটি মেনে বেতার-টিভি দখল কর।
তিনি বলেন, ১ মার্চ শিল্পীদের দ্বারা গঠিত তাদের সংগঠন ‘বিক্ষুব্ধ শিল্পী সমাজ’-এর নেতৃবৃন্দ ৮ মার্চ বেতার ও টিভির কর্মকর্তা ও প্রযোজকদের সঙ্গে বসে মোস্তফা মনোয়ারকে বেতারের এবং আশরাফুজ্জামানকে টেলিভিশনের আহ্বায়ক করে দুটি কমিটি গঠন করেন। এ কমিটি ৮ মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত ইয়াহিয়ার সেনাবাহিনীর নাকের ডগায় বসে বাঙালি জাতীয়তাবাদের পক্ষে অসাধারণ সব অনুষ্ঠান প্রচার করে। যা মুক্তিযুদ্ধে বাঙালি জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। এ সময় শিল্পীরা এসব অনুষ্ঠানের জন্য কোনো পারিশ্রমিক নেয়নি বলেও জানা যায়।
সর্বশেষ সংবাদ
  • বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় ভাষা শহীদদের স্মরণ করেছে সমগ্র জাতি“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ”একুশের গ্রন্থমেলায় মেলায় প্রতিদিনই বই বিক্রি বাড়ছেআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’
  • বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় ভাষা শহীদদের স্মরণ করেছে সমগ্র জাতি“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ”একুশের গ্রন্থমেলায় মেলায় প্রতিদিনই বই বিক্রি বাড়ছেআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’
উপরে