প্রকাশ : ০৪ এপ্রিল, ২০১৭ ০৩:১১:৫৮
শ্রমবাজারের সন্ধান বাংলাদেশের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ
বাংলাদেশ বাণী, ৪ এপ্রিল, ঢাকা : বর্তমান বিশ্ব শ্রমবাজারে বাংলাদেশকে টিকে থাকতে হলে দক্ষ জনশক্তি রপ্তানির বিষয়টি গুরুত্বসহকারে আমলে নিয়ে সে অনুযায়ী কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে এবং এর কোনো বিকল্প নেই। তবে এ ক্ষেত্রে ‌তার ব্যত্যয় ঘটছে।

বর্তমান বৈশ্বিক মন্দারকালে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের শ্রমবাজার ধরে রাখার পাশাপাশি নতুন নতুন শ্রমবাজারের সন্ধান বাংলাদেশের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ। যে করেই হোক বাংলাদেশকে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে।

একই সঙ্গে অভিবাসন ব্যয় হ্রাস, দক্ষ জনশক্তি রপ্তানি, অভিবাসনের পর কর্মীদের সহযোগিতা দান এবং দূতাবাসগুলোকে যথাযথভাবে কাজে লাগানোর ব্যাপারে সরকারকে আরও অধিক মনোযোগী হতে হবে।

এক প্রতিবেদনে প্রকাশ, আনুপাতিকহারে নারীকর্মী পাঠানোর শর্ত পূরণ করতে ব্যর্থ হওয়ায় বিদেশে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় কর্মক্ষেত্র সৌদিসহ মধ্যপ্রাচ্যের শ্রমবাজার বড় ধরনের হুমকির মুখে পড়েছে। শুধু গত বছরের ডিসেম্বরেই ৫০ হাজার পুরুষকর্মীর পাসপোর্ট জমা নেয়নি সৌদি দূতাবাস। পরবর্তী মাসগুলোয়ও এ ধারা অব্যাহত রয়েছে। এ অবস্থায় সে দেশে শ্রমিক রপ্তানিতে ভয়াবহ ধস নেমেছে।

গত ডিসেম্বর থেকে সৌদি দূতাবাস প্রতি ১০০ জনে ২৫ জন নারী ও ৭৫ জন পুরুষের পাসপোর্ট জমা না দিলে পুরুষকর্মীদের পাসপোর্ট জমা নেয়া বন্ধ করে দেয় সংশ্লিষ্ট দূতাবাস। দেশের রিক্রুটিং এজেন্সিগুলো আনুপাতিক হারে নারীকর্মী জোগাড়ে ব্যর্থ হওয়ায় হাজার হাজার পুরুষকর্মীর পাসপোর্ট আটকে যাচ্ছে। ফলে দেশটির বিশাল শ্রমবাজারে প্রবেশের ক্ষেত্রে বড় ধরনের হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আমরা মনে করি এই অবস্থার দ্রুত অবসান হওয়া জরুরি। কারণ বাংলাদেশ যদি শর্ত পূরণে ব্যর্থ হয় এবং সৌদি দূতাবাস যদি নারী-পুরুষ আনুপাতিক হারকে অধিকহারে গুরুত্ব দিয়ে কঠোর অবস্থানে থাকে তা হলে শ্রমিক রপ্তানির ক্ষেত্রে বড় ধরনের ধস নামবে। যা রেমিটেন্সের ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

মনে রাখতে হবে দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রেখেছে প্রবাসী শ্রমিকদের পাঠানো রেমিটেন্সপ্রবাহ। সুতরাং বিদেশে জনশক্তি রপ্তানিতে যাতে কোনোরকম ব্যত্যয় না ঘটে সেদিকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে বিশেষ মনোযোগ দেয়া অতীব জরুরি।

বলার অপেক্ষা রাখে না যে আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারে বাংলাদেশের শ্রমিকদের যথেষ্ট চাহিদা থাকা সত্ত্বেও আমরা বিভিন্ন সময়ে শ্রমিক রপ্তানি করতে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছি। এর পাশাপাশি রয়েছে প্রবাসে বাংলাদেশি শ্রমিকদের নানা ধরনের অপরাধপ্রবণতা। ফলে বিদেশি বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে। বাংলাদেশের শ্রমিকরা যেসব দেশে কর্মরত রয়েছে ওইসব দেশের বাংলাদেশ দূতাবাস কী করছে?

অপরাধকর্ম ছাড়াও অনেক শ্রমিকই মানবেতর জীবনযাপন করছে, অনেকেই প্রতারিত হচ্ছে। এসব বিষয়েও সরকারকে তদারকিতে আনতে হবে।

অপরাধপ্রবণতা ছাড়াও দক্ষ শ্রমিকের অভাবে বাংলাদেশ অনেক দেশের শ্রমবাজার হারাচ্ছে। নতুন নতুন বাজার সন্ধানের পাশাপাশি শ্রমবাজার ধরে রাখার চেষ্টা চালাতে হবে। কারণ বিদেশে কর্মরত বিপুলসংখ্যক শ্রমিক যদি বেকার হয়ে দেশে ফিরে আসে তখন কী হবে? এমনিতেই তো দেশে কর্মসংস্থানের দারুণ অভাব। সুতরাং বাড়তি চাপ সহ্য করা খুবই কঠিন। এ বিষয়েও সরকার ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে ভাবতে হবে।

জনশক্তি রপ্তানি প্রক্রিয়া স্বচ্ছ ও ত্রুটিমুক্ত করতে পররাষ্ট্র, প্রবাসী কল্যাণ, শ্রম ও জনশক্তি মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সমন্বয় সাধন করে সম্মিলিতভাবে কাজ করাও জরুরি। দূতাবাসগুলোয় কর্মরতদের অদক্ষতার বিষয়টি আমলে নেয়া উচিত। দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি ও প্রবৃদ্ধির কথা বিবেচনায় এনে সরকার অবিলম্বে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে এটাই আমাদের প্রত্যাশা।
সর্বশেষ সংবাদ
  • রাতে ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন গ্রেফতার তফসিল ঘোষণার আগেই আলোচনায় বসার আহ্বান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টেরজাতীয় সংসদ নির্বাচনে সর্বদলীয় সরকার চায় কয়েকটি বিদেশি দূতাবাস ও প্রতিষ্ঠানইমরুলের সেঞ্চুরিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের উড়ন্ত সূূচনা স্বাগতিক বাংলাদেশের সংসদ নির্বাচনের আচরণ বিধিমালার সংশোধনী অনুমোদন করেছে ইসিআজ শুরু হচ্ছে দশম জাতীয় সংসদের ২৩ তম ও শেষ অধিবেশন সুপার শপ প্রিন্স বাজারের কাণ্ডজ্ঞান : শারদীয় অফারে গরুর মাংসের মূল্যছাড় !ইয়াবা সাম্রাজ্যে'র তালিকার শীর্ষে আবারো আলোচিত সাংসদ বদি'র নাম ! আওয়ামীলীগের এবারের নির্বাচনী ইশতেহারে থাকছে নতুন চমকশ্রদ্ধা-ভালবাসা আর শোকাশ্রু'তে কিংবদন্তি শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুকে চির বিদায়নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে শহীদ শেখ রাসেলের ৫৫ তম জন্মদিন উদযাপিত ‘দেশের অপরাধীদের জন্য অশনি সংকেত অপেক্ষা করছে’: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণাআগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জঙ্গিবাদ কোন প্রভাব ফেলতে পারবে না : আইজিপি সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স ৩৫ বছর করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকারবাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে ৫টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরএনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসি
  • রাতে ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন গ্রেফতার তফসিল ঘোষণার আগেই আলোচনায় বসার আহ্বান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টেরজাতীয় সংসদ নির্বাচনে সর্বদলীয় সরকার চায় কয়েকটি বিদেশি দূতাবাস ও প্রতিষ্ঠানইমরুলের সেঞ্চুরিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের উড়ন্ত সূূচনা স্বাগতিক বাংলাদেশের সংসদ নির্বাচনের আচরণ বিধিমালার সংশোধনী অনুমোদন করেছে ইসিআজ শুরু হচ্ছে দশম জাতীয় সংসদের ২৩ তম ও শেষ অধিবেশন সুপার শপ প্রিন্স বাজারের কাণ্ডজ্ঞান : শারদীয় অফারে গরুর মাংসের মূল্যছাড় !ইয়াবা সাম্রাজ্যে'র তালিকার শীর্ষে আবারো আলোচিত সাংসদ বদি'র নাম ! আওয়ামীলীগের এবারের নির্বাচনী ইশতেহারে থাকছে নতুন চমকশ্রদ্ধা-ভালবাসা আর শোকাশ্রু'তে কিংবদন্তি শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুকে চির বিদায়নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে শহীদ শেখ রাসেলের ৫৫ তম জন্মদিন উদযাপিত ‘দেশের অপরাধীদের জন্য অশনি সংকেত অপেক্ষা করছে’: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণাআগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জঙ্গিবাদ কোন প্রভাব ফেলতে পারবে না : আইজিপি সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স ৩৫ বছর করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকারবাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে ৫টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরএনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসি
উপরে