প্রকাশ : ১৫ জুলাই, ২০১৭ ০৯:৩৯:৫৯
দেশে এমএলএম প্রতারণা : প্রতারকদের শাস্তি নিশ্চিত করাটা জরুরী
বাংলাদেশ বাণী, ঢাকা : দেশের ভুয়া মাল্টিলেভেল মার্কেটিং (এমএলএম) কোম্পানি নিয়ে আগেও অনেক লেখালেখি হয়েছে। ডেসটিনি, যুবক, ইউনিপেটুইউসহ এ ধরনের কয়েকটি কোম্পানির প্রতারণা ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর তাদের কার্যক্রমের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী জনমত গড়ে উঠেছিল।

এ পরিপ্রেক্ষিতে মাল্টিলেভেল কোম্পানির প্রতারণা রোধে আইনের কড়াকড়িও আরোপ করা হয়েছিল। মাঝখানে এ ধরনের কোম্পানির প্রতারণার খবর খুব একটি শোনা যায়নি। তবে কি আবারও শুরু হয়েছে মাল্টিলেভেল প্রতারণা? দেশে বহুস্তর বিপণন (এমএলএম) পদ্ধতির সব কোম্পানিই এখন বেআইনি। সরকার লাইসেন্স দিয়েছে, এমন একটিও এমএলএম কোম্পানি আর নেই। এমএলএম পদ্ধতিতে কেউ ব্যবসা করলে আইনত দণ্ডনীয় হবেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও ইউনিপেটু নামের এমএলএম কোম্পানিটি আবারও প্রতারণার ফাঁদ নিয়ে মাঠে নেমেছে। এমন অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।

অথচ সরকারের নির্দেশ সত্ত্বেও এখনও ওই কোম্পানিতে লগ্নিকৃত ২০ লাখ গ্রাহকের অর্থ ফেরত পাওয়া যায়নি। প্রতারক চক্রের নতুন তৎপরতা বন্ধ ও নিঃস্ব গ্রাহকদের বিনিয়োগের অর্থ দ্রুত ফেরত পেতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে প্রতারিত গ্রাহকদের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে।

বিভিন্ন সময়ে আমরা দেখেছি, স্বল্প বিনিয়োগে অধিক মুনাফার লোভ দেখিয়ে এমএলএম কোম্পানিগুলো বিপুল সংখ্যক মানুষের কোটি কোটি টাকা আত্মসাত্ করেছে। টাকার হিসাবে ডেসটিনি প্রতারণা করে মানুষের পকেট কেটে ৪ থেকে ৬ হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। কিন্তু গোটা সমাজের তরুণদের জীবনের যে ক্ষতি করেছে, তার মূল্য হিসাব করে বের করা কঠিন।

এদিকে প্রতারণার কারণে যারা সর্বস্বান্ত হল তাদের এখন কী হবে? এ দেশের গ্রামীণ মানুষের সচেতনতার স্তর অনেক নিচুতে। অশিক্ষা, কুশিক্ষা ও বাস্তব জ্ঞানের অভাব মিলিয়ে তারা এমন জীবনযাপন করেন যে, তাদের সঙ্গে প্রতারণা করা কঠিন কাজ নয়। তাদের সরলতার সুযোগে দেশের আনাচে-কানাচে গজিয়ে উঠেছে অনেক মাল্টিলেভেল কোম্পানি ও মাইক্রোক্রেডিট সংস্থা।

এদের অধিকাংশই প্রতারণার জাল বিছিয়ে বেআইনিভাবে হাতিয়ে নিচ্ছে মানুষের কষ্টার্জিত টাকা। এসব সংস্থার বিরুদ্ধে আবারও রুখে দাঁড়াতে হবে। সুষ্ঠু তদন্ত হবে এবং সেই তদন্তের ভিত্তিতে আইনের আওতায় আনতে হবে দোষীদের। প্রতারণার মাধ্যমে হাজার কোটি টাকা আয় করে যদি নির্বিঘ্নে তা ভোগ করা যায়, তবে অন্যান্য প্রতারক গোষ্ঠীও নিত্যনতুন প্রতারণার জাল তৈরি করবে।

সুতরাং সরকারের উচিত হবে দ্রুত প্রতারকদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া। অতীতে সরকারের কিছু উদ্যোগ পরিলক্ষিত হলেও প্রতারিতদের টাকা ফেরত পাওয়ার সংবাদ আমাদের জানা নেই। দরিদ্র জনগণের কষ্টার্জিত উপার্জন নিয়ে এমএলএম কোম্পানিগুলোর প্রতারণার পথ বন্ধ করার এখনই সময়। এসব কোম্পানিতে বিনিয়োগকৃত টাকা গ্রাহকদের ফেরত দিতে সরকার কার্যকর পদক্ষেপ নেবে, আমরা সেই রকম প্রত্যাশাই করি।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে যাচ্ছে : বাহাদুর বেপারীশুরু হলো বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলারক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয়! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’
  • আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে যাচ্ছে : বাহাদুর বেপারীশুরু হলো বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলারক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয়! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’
উপরে