প্রকাশ : ১৫ জুলাই, ২০১৭ ০৯:৩৯:৫৯
দেশে এমএলএম প্রতারণা : প্রতারকদের শাস্তি নিশ্চিত করাটা জরুরী
বাংলাদেশ বাণী, ঢাকা : দেশের ভুয়া মাল্টিলেভেল মার্কেটিং (এমএলএম) কোম্পানি নিয়ে আগেও অনেক লেখালেখি হয়েছে। ডেসটিনি, যুবক, ইউনিপেটুইউসহ এ ধরনের কয়েকটি কোম্পানির প্রতারণা ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর তাদের কার্যক্রমের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী জনমত গড়ে উঠেছিল।

এ পরিপ্রেক্ষিতে মাল্টিলেভেল কোম্পানির প্রতারণা রোধে আইনের কড়াকড়িও আরোপ করা হয়েছিল। মাঝখানে এ ধরনের কোম্পানির প্রতারণার খবর খুব একটি শোনা যায়নি। তবে কি আবারও শুরু হয়েছে মাল্টিলেভেল প্রতারণা? দেশে বহুস্তর বিপণন (এমএলএম) পদ্ধতির সব কোম্পানিই এখন বেআইনি। সরকার লাইসেন্স দিয়েছে, এমন একটিও এমএলএম কোম্পানি আর নেই। এমএলএম পদ্ধতিতে কেউ ব্যবসা করলে আইনত দণ্ডনীয় হবেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও ইউনিপেটু নামের এমএলএম কোম্পানিটি আবারও প্রতারণার ফাঁদ নিয়ে মাঠে নেমেছে। এমন অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।

অথচ সরকারের নির্দেশ সত্ত্বেও এখনও ওই কোম্পানিতে লগ্নিকৃত ২০ লাখ গ্রাহকের অর্থ ফেরত পাওয়া যায়নি। প্রতারক চক্রের নতুন তৎপরতা বন্ধ ও নিঃস্ব গ্রাহকদের বিনিয়োগের অর্থ দ্রুত ফেরত পেতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে প্রতারিত গ্রাহকদের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে।

বিভিন্ন সময়ে আমরা দেখেছি, স্বল্প বিনিয়োগে অধিক মুনাফার লোভ দেখিয়ে এমএলএম কোম্পানিগুলো বিপুল সংখ্যক মানুষের কোটি কোটি টাকা আত্মসাত্ করেছে। টাকার হিসাবে ডেসটিনি প্রতারণা করে মানুষের পকেট কেটে ৪ থেকে ৬ হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। কিন্তু গোটা সমাজের তরুণদের জীবনের যে ক্ষতি করেছে, তার মূল্য হিসাব করে বের করা কঠিন।

এদিকে প্রতারণার কারণে যারা সর্বস্বান্ত হল তাদের এখন কী হবে? এ দেশের গ্রামীণ মানুষের সচেতনতার স্তর অনেক নিচুতে। অশিক্ষা, কুশিক্ষা ও বাস্তব জ্ঞানের অভাব মিলিয়ে তারা এমন জীবনযাপন করেন যে, তাদের সঙ্গে প্রতারণা করা কঠিন কাজ নয়। তাদের সরলতার সুযোগে দেশের আনাচে-কানাচে গজিয়ে উঠেছে অনেক মাল্টিলেভেল কোম্পানি ও মাইক্রোক্রেডিট সংস্থা।

এদের অধিকাংশই প্রতারণার জাল বিছিয়ে বেআইনিভাবে হাতিয়ে নিচ্ছে মানুষের কষ্টার্জিত টাকা। এসব সংস্থার বিরুদ্ধে আবারও রুখে দাঁড়াতে হবে। সুষ্ঠু তদন্ত হবে এবং সেই তদন্তের ভিত্তিতে আইনের আওতায় আনতে হবে দোষীদের। প্রতারণার মাধ্যমে হাজার কোটি টাকা আয় করে যদি নির্বিঘ্নে তা ভোগ করা যায়, তবে অন্যান্য প্রতারক গোষ্ঠীও নিত্যনতুন প্রতারণার জাল তৈরি করবে।

সুতরাং সরকারের উচিত হবে দ্রুত প্রতারকদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া। অতীতে সরকারের কিছু উদ্যোগ পরিলক্ষিত হলেও প্রতারিতদের টাকা ফেরত পাওয়ার সংবাদ আমাদের জানা নেই। দরিদ্র জনগণের কষ্টার্জিত উপার্জন নিয়ে এমএলএম কোম্পানিগুলোর প্রতারণার পথ বন্ধ করার এখনই সময়। এসব কোম্পানিতে বিনিয়োগকৃত টাকা গ্রাহকদের ফেরত দিতে সরকার কার্যকর পদক্ষেপ নেবে, আমরা সেই রকম প্রত্যাশাই করি।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • পৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেননির্বাচনকে প্রভাবিত করার রাজনীতি বিএনপি'র হাত ধরেই শুরু হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমিয়ানমারের চলমান সহিংসতায় ১ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে : জাতিসংঘরোহিঙ্গা শরণার্থীদের গ্রহণে বাংলাদেশ কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে : ওয়াশিংটনতিনটি ভাষায় প্রকাশিত হচ্ছে শেখ হাসিনার লেখা বই ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’চট্টগ্রাম টেস্টে : ৯ উইকেটে ৩৭৭ রান তুলে দিন শেষে করেছে অসিরাআগাম নির্বাচনের দাবি আগাম রসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয় : ওবায়দুল কাদেরঅবিলম্বে সহিংসতা ও রোহিঙ্গা প্রবেশ বন্ধে মিয়ানমারের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান
  • পৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেননির্বাচনকে প্রভাবিত করার রাজনীতি বিএনপি'র হাত ধরেই শুরু হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমিয়ানমারের চলমান সহিংসতায় ১ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে : জাতিসংঘরোহিঙ্গা শরণার্থীদের গ্রহণে বাংলাদেশ কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে : ওয়াশিংটনতিনটি ভাষায় প্রকাশিত হচ্ছে শেখ হাসিনার লেখা বই ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’চট্টগ্রাম টেস্টে : ৯ উইকেটে ৩৭৭ রান তুলে দিন শেষে করেছে অসিরাআগাম নির্বাচনের দাবি আগাম রসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয় : ওবায়দুল কাদেরঅবিলম্বে সহিংসতা ও রোহিঙ্গা প্রবেশ বন্ধে মিয়ানমারের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান
উপরে