প্রকাশ : ২৮ জুলাই, ২০১৭ ০১:১৫:৫৮
জগন্নাথপুরে বিদ্যালয় বন্ধের সম্মূখিন : শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন অনিশ্চিত
বাংলাদেশ বাণী, বিপ্লব দেব নাথ, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুরে একটি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদান বন্ধ হতে চলেছে। আর্থিক অনটনের কারণে নিয়মিত বিদ্যালয় খোলা হচ্ছে না বিধায় বিদ্যালয়ের ৯৬ জন শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। পঞ্চম শ্রেণীর ১১জন শিক্ষার্থী প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন অভিভাবকরা ।

জানা যায়, জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের বালিকান্দি গ্রামে এফআইভিডিবির অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত মোকামপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম বিদ্যালয় পরিচালনার অভাবে বন্ধের মুখে রয়েছে। বিদ্যালয়টি স্থাপিত হওয়ার পর থেকে বিদ্যালয়ের দায়িত্বে ছিল এফআইভিডিবি। এক বছর এফআইভিডিবির দায়িত্বে, সঠিকভাবে বিদ্যালয়টি চলছিল।

কিন্তু এক বছর পর এফআইভিডিবি বিদ্যালয়ের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ায়। পরে গ্রামবাসীর সহযোগীতায় ও প্রবাসীদের অর্থায়নে ৩ বছর বিদ্যালয়ের কার্যক্রম চলে আসছিল। হঠাৎ প্রবাসীদের অর্থের যোগান বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে শিক্ষকরা নিয়মিত বেতন পাচ্ছেন না।

এমনকি গত ৮মাস যাবৎ শিক্ষকরা বেতন পাচ্ছেন না। এমন সমস্যার কারণে মাস দু’য়েক বন্ধ ছিল বিদ্যালয়টি। বর্তমানে দৈনিক পাঠদান স্বল্প সময়ের অর্থাৎ দুপুর ১২ঘটিকা পর্যন্ত চলে। মাঝে মধ্যে বন্ধও থাকে বিদ্যালয়টি। বিদ্যালয় দু’জন শিক্ষক দিয়ে পরিচালিত হত বিদ্যালয়টি। তাছাড়া পিএসসি পরীক্ষার চুড়ান্ত তালিকা তৈরীর সময় দীর্ঘ দিন বিদ্যালয় বন্ধ থাকার কারণে পিএসসি পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ১১জন শিক্ষার্থী।

সম্প্রতি সরেজমিনে বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় বিদ্যালয়ের কক্ষগুলোতে তালা ঝুলছে। তখন ঘড়িতে সময় ছিল দুপুর ১২ ঘটিকা। স্থানীয় লোকদের সাথে আলাপ করে জানা যায় বিদ্যালয়টি দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ ছিল। কয়েকদিন হল বিদ্যালয় মাঝে মধ্যে খোলা হয়। আর যেদিন খোলা হয় দুপুর ১২টার আগে ছুটি হয়ে যায়।

এমন অবস্থায় শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়েছে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রের অভিবাভক বলেন, আমার ছোট ভাই সমাপনী পরিক্ষার্থী সে বিদ্যালয় কতৃপক্ষের দায়িত্বহীনতার কারণে ফাইনাল পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে পারছে না একটি বছর তার নষ্ট হয়ে গেল।

বিদ্যালয়ের শিক্ষক শাহিদ আহমদ ও জাহাঙ্গীর আলম জানান, বিদ্যালয় স্থাপিত হওয়ার পর থেকে স্বল্প বেতন নিয়ে আমি এই বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছি। কিন্তু আট/দশ মাস থেকে বেতন পাচ্ছি না। দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর এখন বিদ্যালয়টি খুলছি।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আমিনুল হক তুতি বলেন, বিদ্যালয়ের কিছুদিন পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ ছিল এখন আমরা কমিটি বসে বিদ্যালয়টি আবার চালু করেছি। শিক্ষকদের বেতন সময়মত যাতে দেওয়া হয় সে ব্যাপারেও আমরা আলোচনা করেছি।

এব্যাপারে কলকলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুল হাসিম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি স্কুলের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে অবহিত নয়। তবে এব্যাপারে আমি সংশ্লিষ্টদের সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি জেনে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করব।

জগন্নাথপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবেদীন জানান, এনজিও সংস্থা পরিচালিত বিদ্যালয়টি শুনেছি স্থানীয় লোকজন পরিচালনা করছেন। এসব বিদ্যালয়ের বিষয়ে আমাদের কিছু জানা নেই।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে নেদারল্যান্ডস সরকারের আর্থিক সহযোগিতায় এফআইভিডিবির পরিচালনায় কলকলিয়ার মামুনুর রশীদ ও জেসমিন বেগমের দানকৃত ১১ শতক জমির উপরে প্রতিষ্ঠিত হয় মোকামপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়টি।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ঈদ কেনাকাটা নিশ্চিত করতে আইন-শৃংখলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তা বলয়প্রধানমন্ত্রী আজ দু'দিনের সরকারি সফরে কলকাতা যাচ্ছেন সিটি কর্পোরেশন আচরণ বিধিমালায় ১১টি বিষয়ে সংশোধনের প্রস্তাব করেছে ইসিদু'দিনের সরকারি সফরে শুক্রবার কলকাতা যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীআজ থেকে সিয়াম-সাধনার মাস পবিত্র মাহে রমজান শুরুবাংলার লাল-সবুজের কন্যা শেখ হাসিনার ৩৮ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালনপ্রাকৃতিক দুর্যোগে আঘাতপ্রাপ্তদের বেশি সহায়তা প্রদানের পরামর্শ সায়মা ওয়াজেদেরআগামীকাল শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজানআবারও খুলনার নগরপিতা হলেন তালুকদার আব্দুল খালেক২৬ জুন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের নতুন তারিখ ঘোষণা জাতীয় সংসদের স্পিকার সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরেছেনঐতিহাসিক স্যাটেলাইট ‘বঙ্গবন্ধু-১’ উৎক্ষেপণ করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ : বাংলাদেশের ৫৭ তম দেশের মর্যাদা অর্জনযথাযোগ্য মর্যাদার সাথে বিশ্বকবি রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী পালিতব্যয় ধরা হয়েছে ১৩ হাজার ২৮৮ কোটি টাকা-একনেকে'র সভায় খুলনা-দর্শনা ডাবল লাইন রেলওয়েসহ ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনআজ প্রকাশিত হবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল নাটকে প্রতিফলিত হতে থাকে ঐতিহাসিক ও সমসাময়িক ঘটনাবলি : স্পিকারআজ ঢাকায় শুরু হচ্ছে ওআইসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৫ তম সম্মেলনভারতে চলতি সপ্তাহে একের পর এক শক্তিশালী ঝড়ের আঘাত : নিহত ১৫০আজকের আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ ও শিলাবৃষ্টি হতে পারে।
  • ঈদ কেনাকাটা নিশ্চিত করতে আইন-শৃংখলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তা বলয়প্রধানমন্ত্রী আজ দু'দিনের সরকারি সফরে কলকাতা যাচ্ছেন সিটি কর্পোরেশন আচরণ বিধিমালায় ১১টি বিষয়ে সংশোধনের প্রস্তাব করেছে ইসিদু'দিনের সরকারি সফরে শুক্রবার কলকাতা যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীআজ থেকে সিয়াম-সাধনার মাস পবিত্র মাহে রমজান শুরুবাংলার লাল-সবুজের কন্যা শেখ হাসিনার ৩৮ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালনপ্রাকৃতিক দুর্যোগে আঘাতপ্রাপ্তদের বেশি সহায়তা প্রদানের পরামর্শ সায়মা ওয়াজেদেরআগামীকাল শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজানআবারও খুলনার নগরপিতা হলেন তালুকদার আব্দুল খালেক২৬ জুন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের নতুন তারিখ ঘোষণা জাতীয় সংসদের স্পিকার সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরেছেনঐতিহাসিক স্যাটেলাইট ‘বঙ্গবন্ধু-১’ উৎক্ষেপণ করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ : বাংলাদেশের ৫৭ তম দেশের মর্যাদা অর্জনযথাযোগ্য মর্যাদার সাথে বিশ্বকবি রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী পালিতব্যয় ধরা হয়েছে ১৩ হাজার ২৮৮ কোটি টাকা-একনেকে'র সভায় খুলনা-দর্শনা ডাবল লাইন রেলওয়েসহ ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনআজ প্রকাশিত হবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল নাটকে প্রতিফলিত হতে থাকে ঐতিহাসিক ও সমসাময়িক ঘটনাবলি : স্পিকারআজ ঢাকায় শুরু হচ্ছে ওআইসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৫ তম সম্মেলনভারতে চলতি সপ্তাহে একের পর এক শক্তিশালী ঝড়ের আঘাত : নিহত ১৫০আজকের আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ ও শিলাবৃষ্টি হতে পারে।
উপরে