প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০২:৫০:৫০
রাবি আইন বিভাগের শিক্ষককে মারধর-
মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ : ২ ঘন্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক
বাংলাদেশ বাণী, রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয় আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এটিএম এনামুল জহিরকে মারধরের ঘটনায় প্রায় ২ ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে বিশ^বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা।
বুধবার দিবাগত রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে তুচ্ছ ঘটনায় মারধরের শিকার হন শিক্ষক এনামুল জহির। ওই ঘটনার প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বিশ^বিদ্যালয় প্রধান ফটকের সামনের ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক প্রায় ২ ঘন্টা অবরোধ করে রাখেন। ঐ সময় উভয় দিকেই যানবাহনগুলো আটকে যায়।

সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে ৩০ নং ওয়ার্ড থেকে ফিরছিলেন আইন বিভাগের ওই শিক্ষক। রামেক হতে বের হওয়ার সময় ইন্টার্নি ডাক্তার পিংকি নামের একজনের সাথে ভুলবশত ধাক্কা লেগে যায়।
এতে ওই নারী চিকিৎসক তাকে অপমানজনক আচরন করেন। এতে শিক্ষক জহির কথার প্রেক্ষিতে তাকে বেয়াদব বলেন। পরেই বিষয়টি ওয়ার্ডে অন্য ইন্টার্ন চিকিৎসকদের জানালে বেশ কয়েকজন ইন্টার্ন চিকিৎসক এটিএম জহিরকে বেধড়কভাবে পেটায়। তাদের বেধড়ক মারধরে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে সেখানে চিকিৎসা নিতে না পেরেই বাড়িতে ফিরে আসেন জহির।

এদিকে ঘটনা সম্পর্কে জানতে রামেক ইন্টার্নি চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি মির্জা কামাল বলেন, ‘ধাক্কা লাগা নিয়ে একটু চড়াও হয় চিকিৎসকরা। আমরা আগে জানতাম না যে শিক্ষক মানসিক ভাবে অসুস্থ। জানার পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।’

এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বের হন। মিছিলটি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে ১১ টার দিকে প্রধান ফটকের সামনে গিয়ে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে গিয়ে বসে পড়েন শিক্ষার্থীরা এবং বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্তব্যরত ইন্টার্ন চিকিৎসকদের বিশ^বিদ্যালয় হতে বহিস্কারের দাবি জানান।

সেই সাথে মারধরকারী ওই চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে যতক্ষণ না আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে ততক্ষণ অবরোধ চালিয়ে যাওয়ার হুমকি দেন। এবং বিকাল ৪ টার মধ্যে মারধরকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানান। এদিকে মারধরকারী চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া না হলে ক্লাস বর্জন করা হবে বলে জানান আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

পরে বেলা ১১ টা ১৫ এর দিকে ঘটনাস্থলে প্রক্টর ড. অধ্যাপক লুৎফর রহমানের নেতৃত্বে প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের কøাসে ফিরে আসার জন্য বলেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. জান্নাতুল ফেরদৌস। তিনিও শিক্ষার্থীদের দাবি নিয়ে একটি স্মারকলিপি দিতে আহ্বান জানিয়ে ফিরে আসার জন্য অনুরোধ করেন শিক্ষার্থীদের। এতেও শিক্ষার্থীরা সেখানেই আন্দোলন চালিয়ে যেতে থাকেন।

পরে বেলা ১১টা ৪৫ এর দিকে উপস্থিত হন মারধরের শিকার অধ্যাপক এনামুল জহির। তিনিও শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যেতে বললেও শিক্ষার্থীরা ফিরে যায়নি। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে প্রায় ২ ঘন্টা যাবৎ যান চলাচল বন্ধ থাকে।

জানতে চাইলে মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মেহেদী হাসান বলেন, শিক্ষকদের মারধরের ঘটনায় শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছিল। প্রায় দুই ঘন্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এদিকে, বেলা ২ টার দিকে বিশ^বিদ্যালয় প্রশসন ভবন ঘেরাও করে আন্দোলন করতে শুরু করলে সেখানে উপস্থিত হন বিশ^বিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান। সেখানে তিনি বলেন, এখনও বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে লিখিত কোন কিছু জানানো হয়নি। তবে মারধরের শিকার শিক্ষক আইনগত ব্যবস্থা নিতে পারেন।

এখানে বিশ^বিদ্যালয় হতে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে না বলে জানান। কিন্তু বিভাগ বা শিক্ষক যদি মামলা করেন তাহলে বিশ^বিদ্যালয় লজিস্টিক সার্পোর্ট টুকু দিবে। এসময় বিশ^বিদ্যালয় উপ-উপাচার্য ড. আনন্দ কুমার সাহা, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এম এ বারী, প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান, জনসংযোগ কর্মকর্তা ড. প্রভাষ কর্মকার উপস্থিত ছিলেন। এসব কথা বলেই ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন উপাচার্যসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স ৩৫ বছর করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকারবাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে ৫টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরএনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে
  • সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স ৩৫ বছর করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকারবাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে ৫টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরএনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে
উপরে