প্রকাশ : ২৪ জুলাই, ২০১৭ ০২:৪৩:০০
তাহসান-মিথিলার একমাত্র সন্তানের কোথায় আশ্রয় মিলবে?
বাংলাদেশ বাণী, বিনোদন প্রতিবেদক : দেশের জনপ্রিয় জুটি ও দম্পতি গায়ক ও অভিনেতা তাহসান এবং গায়িকা ও অভিনেত্রী মিথিলার দাম্পত্য জীবনের আনুষ্ঠানিক অবসান ঘটতে যাচ্ছে বলে এই জুটি একটি যৌথ বিবৃতি দেন বৃহস্পতিবার ২০ জুলাই ২০১৭।

তাদের রয়েছে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তান, তার নাম-আইরা তেহরীম খান। প্রশ্ন হচ্ছে আইনানুগভাবে কে পাবে মেয়ের অধিকার? কার কাছে থাকবে আইরা? আইরা কি পারবে এই এই ডিভোর্সের বিপক্ষে দাঁড়াতে? কে দেবে ভরণপোষণ? এ সকল প্রশ্ন নিয়ে কথা বলেছেন আইনজীবী, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট এবং ম্যানেজিং পার্টনার, দ্য লিগ্যাল স্পেইস, পারিবারিক আইন বিষয়ক একাধিক গ্রন্থ প্রণেতা তানজিম আল ইসলাম।

তিনি জানান-যেহেতু তাহসান ও মিথিলার সন্তান হচ্ছে একটি কন্যা সন্তান, সেহেতু আইনানুগভাবে যতদিন না আইরা ঋতুস্রাব হওয়ার বয়সে পৌছাবে ততদিন পর্যন্ত আইরা মায়ের হেফাজতেই থাকবে, অবশ্য এর পরও মায়ের কাছে থাকা যাবে।

কোন কারনে বিষয়টি যদি আদালতে গড়ায় তাহলে মেয়ে যদি বাবা বা মায়ের কাছে থাকতে চায়, তাহলে আদালত মেয়েরও মতামত নিতে পারে যদি মেয়ের মতামত দেয়ার মত সক্ষমতা থাকে। যদিও মেয়ের মতামত প্রদানের জন্য ১৮ বছর পূর্ণ হতে হয়, তবুও আদালত অনেক সময় ১৮ বছরের নিচের মেয়েরও মতামতের মূল্যায়ন করে এবং কার কাছে থাকলে মেয়ের ভালো হবে-সেই বিবেচনা করেই আদালত রায় প্রদান করবে। তবে মেয়ের অভিভাবকত্ব তথা ভরণপোষণের দায়িত্ব থাকবে বাবা তথা তাহসানের উপরেই। যতদিন না মেয়ে কর্মক্ষম কিংবা বিয়ে হয়ে যাবে, ততদিন এই ভরণপোষণ চালিয়ে যেতে হবে।

এছাড়াও তাহসান মিথিলা মিউচুয়ালভাবে এই বিষয়ের সমাধান করে নিতে পারেন নিজেরাই। তবে মেয়ে যার কাছেই থাকুক না কেন, বাবা কিংবা মায়ের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ দিতে হবে ওকে, এক্ষেত্রে বাঁধা প্রদান করা যাবে না।

ডিভোর্সের পর মিথিলা যদি অন্য কারো সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন, তাহলে সন্তানকে নিজ হেফাজতে রাখার অধিকার হারানোর আশঙ্কা থাকবে তার। অন্যদিকে তাহসান যদি অন্য কাউকে বিয়ে করেন, তবুও তিনি কন্যার উপর তার অধিকার হারাবেন না।

কোন আইন থেকে এই বক্তব্য দিলেন তানজিম আল ইসলাম? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান-

অভিভাবক ও প্রতিপাল্য আইন ১৮৯০ যা সাধারণত গার্ডিয়ানশীপ অ্যাক্ট নামে পরিচিত। এছাড়াও পারিবারিক আদালতের ক্ষেত্রে ১৯৮৫ সালের পরিবারিক আদালত অধ্যাদেশ থেকে উপরোক্ত বক্তব্য দিয়েছেন তিনি।
সর্বশেষ সংবাদ
  • ‘বাংলাদেশেও হতে পারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিচার’বিএনপির সঙ্গে কোন রাজনৈতিক সমঝোতা নাকচ করে দিলেন প্রধানমন্ত্রীট্রাম্প হচ্ছেন ‘আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে নবাগত দুষ্টু ব্যক্তি’: ইরানের প্রেসিডেন্টমিয়ানমারের সিত্তুয়েতে রোহিঙ্গাদের জন্য রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলাজলি আত্মহত্যা প্ররোচণা মামলার চার্জশিট -‘সঠিক জবানবন্দি উপস্থাপন করতে পারেনি পুলিশ’রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরী মানবিক সহায়তা ২৬২ কোটি ৩ লাখ টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ‌‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আপনাদের ঐক্য প্রদর্শন করুন’ : ওআইসিকে প্রধানমন্ত্রীপৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন
  • ‘বাংলাদেশেও হতে পারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিচার’বিএনপির সঙ্গে কোন রাজনৈতিক সমঝোতা নাকচ করে দিলেন প্রধানমন্ত্রীট্রাম্প হচ্ছেন ‘আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে নবাগত দুষ্টু ব্যক্তি’: ইরানের প্রেসিডেন্টমিয়ানমারের সিত্তুয়েতে রোহিঙ্গাদের জন্য রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলাজলি আত্মহত্যা প্ররোচণা মামলার চার্জশিট -‘সঠিক জবানবন্দি উপস্থাপন করতে পারেনি পুলিশ’রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরী মানবিক সহায়তা ২৬২ কোটি ৩ লাখ টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ‌‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আপনাদের ঐক্য প্রদর্শন করুন’ : ওআইসিকে প্রধানমন্ত্রীপৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন
উপরে