প্রকাশ : ০২ আগস্ট, ২০১৭ ০১:৫৮:৪৯
ধর্ষক তুফানসহ সকল আসামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বগুড়ায় মানববন্ধন
বাংলাদেশ বাণী, বগুড়া জেলা প্রতিনিধি : মঙ্গলবার সকাল ১১টায় সিপিবি-বাসদ, গণতান্ত্রিক বামমোর্চা বগুড়া জেলার উদ্যোগে ধর্ষক তুফানসহ সকল আসামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা, তদন্ত ও বিচার প্রক্রিয়া তরান্বিত করার দাবিতে সাতমাথায় মানববন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাসদ জেলা আহ্বায়ক অ্যাড: সাইফুল ইসলাম পল্টু। সভাপতি তার প্রারম্ভিক বক্তব্যে বলেন “তুফান সরকার শুধুমাত্র একজন ব্যক্তি হিসেবে এই অপরাধ ঘটায়নি, এর সাথে যুক্ত ক্ষমতাসীন দলের প্রশয়। শুধুমাত্র তুফান সরকারের বিচার নয় তার সকল সহযোগী এবং যারা তাদেরকে রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় লালন-পালন করেছেন তাদেরও বিচারের আওতায় আনা দরকার।”  

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিবি জেলা সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ফরিদ, বাসদ (মার্কবাদী) জেলা সমন্বয়ক সামছুল আলম দুলু, গণসংহতি আন্দোলন জেলা সমন্বয়ক আব্দুর রশিদ, বাসদ জেলা সদস্য সচিব সাইফুজ্জামান টুটুল, টিইউসি নেতা হাসান আলী শেখ, উদীচী নেতা মাহমুদুস সোবহান মিন্নু, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের আহ্বায়ক দিলরুবা নূরী, যুব ইউনিয়ন নেতা শাহনেওয়াজ খান পাপ্প, মার্কসবাদী শ্রমিক নেতা আব্দুল হাই, ছাত্র ইউনিয়ন নেতা নাদিম মাহমুদ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জেলা সভাপতি রাধা রানী বর্মন, নারীমুক্তি কেন্দ্র জেলা সদস্য বনানী রায় ববি, আনন্দ কুমার, মোস্তাফিজুর রহমান ফিজু, অ্যাড: লুৎফর রহমান, প্রবীন রাজনীতিবিদ মাহফুজুল হক দুলু, কবি সিকতা কাজল। সমাবেশ পরিচালনা করেন বাসদ (মার্কবাদী) নেতা আমিনুল ইসলাম।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, তুফান সরকার, কাউন্সিলর রুমকী সহ তাদের সহযোগীরা সোনালীকে ধর্ষণ, ধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ না করতে চাপ প্রয়োগ এবং পরবর্তীতে ভিকটিম ও তার মাকে নির্যাতন ও মাথা মুড়িয়ে দেয়ার ঘটনা শুধু ন্যাক্কারজনক নয় মধ্যযুগীয় বর্ববরতাকেও ছাড়িয়ে গেছে।

এই বর্বর সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য দ্রুত তদন্ত ও বিচার করার দাবি জানায় নেতৃবৃন্দ। এই অপরাধীরা নানান অপরাধের সাথে যুক্ত, তারা যেন কোনভাবেই ছাড় না পায়। ধর্ষককে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করাই যথেষ্ট নয়। সেই সাথে কাউন্সিলর রুমকীকে তার পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান।
আজকের এই মানববন্ধনে বগুড়ার বিপুল সংখ্যক জনগণ অংশগ্রহন করে। জনগণের এই অংশগ্রহন বলে দেয় বগুড়ার মানুষ কি চায়।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
উপরে