প্রকাশ : ১৮ আগস্ট, ২০১৭ ০১:২৭:২৩
অভিনব প্রতিবাদ ★ শালিস না করায় চেয়ারম্যানের সামনেই বিধবার বিষপান !
বাংলাদেশ বাণী, বরিশাল জেলা প্রতিনিধি : বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলায় শালিস করতে রাজি না হওয়ার ক্ষোভে ইউপি চেয়ারম্যানের সামনে বসেই বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন ববিতা মুখার্জী (৫০) নামের এক বিধবা নারী। মুর্মুর্ষ অবস্থায় তাকে বুধবার রাতে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার কলসকাঠী ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে বুধবার সন্ধ্যায়। ববিতা মুখার্জী উপজেলার কলসকাঠী জমিদার বাড়ির রাধা গোবিন্দ মন্দির এলাকার মৃত গৌতম ওরফে বাবুলাল মুখার্জীর স্ত্রী। স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ববিতার শ্বশুর বাড়ির পূর্ব পুরুষরা মন্দিরের জমি দান করেছেন। দানকৃত ওই জমি ছাড়াও মন্দির কমিটি প্রয়াত বাবুলের আরও জমি মন্দিরের নামে দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছেন। এনিয়ে ববিতা ও মন্দির কমিটি আদালতে পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করেন।

ববিতার স্বামীর মারা যাওয়ার পর মন্দির কমিটি ওই জমি দখল করতে মরিয়া হয়ে উঠে। এসব ঘটনা জানাতে ববিতা বুধবার বিকেলে কলসকাঠী ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক তালুকদারের কাছে বিচার দাবি করেন। জমি নিয়ে আদালতে মামলা থাকায় চেয়ারম্যান সালিশ-বিচার করতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওইদিন সন্ধ্যায় চেয়ারম্যানের সামনে বসেই বিধবা ববিতা বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্ঠা করে। গুরুতর অবস্থায় প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং সেখান থেকে মুর্মুর্ষ অবস্থায় ওইদিন রাতেই ববিতাকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক তালুকদার বিষপানের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ওই জমির বিষয়ে ববিতা আমাকে শালিস করে দেয়ার অনুরোধ করেন। কিন্তু জমি নিয়ে আদালতের মামলা বিচারাধীন থাকায় আমি তাকে আদালত ও পুলিশকে অবহিত করার পরামর্শ দেয়া মাত্রই তার সাথে থাকা একটি বোতল মুখের মধ্যে ঢেলে বিষাক্তদ্রব্য পান করেন। চেয়ারম্যান আরও বলেন, বোতলটি পুলিশের কাছে হ¯তান্তর করা হয়েছে।

মন্দির কমিটির সভাপতি দুলাল ঘোষ বলেন, মন্দিরের পূর্বের কমিটির সাথে জমি নিয়ে ববিতার মামলা শুরু হওয়ায় এ বিষয়ে আমার কিছুই করার নেই। এ ব্যাপারে বাকেরগঞ্জ থানার ওসি আজিুজর রহমান জানান, ইউনিয়ন পরিষদে বিধবা ববিতা মুখার্জীর বিষপানের বিষয়টি তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে