প্রকাশ : ০৪ মার্চ, ২০১৮ ০২:০১:২৬
স্বামী ও শ্বাশুড়ীর নির্যাতন সইতে না পেরে-
বাগেরহাটে নিজ গায়ে আগুন ধরিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যার চেষ্টা
বাংলাদেশ বাণী, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি : বাগেরহাটের শরণখোলায় শরীরে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন কমলা নূরী (২০) নামের এক গৃহবধু। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলা সাউথখালী ইউনিয়নের বকুলতলা গ্রামে। ওই গৃহবধুর শরীরের প্রায় ৬০ ভাগ মারাত্মক দগ্ধ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

তাকে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে এদিন দুপুর ১২টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। স্বামী ও শ্বাশুড়ির অমানুষিক নির্যাতন সইতে না পেয়ে এক সন্তানের মা কমলা নূরী শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়েছেন বলে পুলিশ, পরিবার ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

ওই গৃহবধু উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের পশ্চিম রাজাপুর গ্রামের মৃত. মোক্তার খলিফার মেয়ে। একবছর আগে প্রেমের সম্পর্কের মাধ্যমে একই উপজেলার বকুলতলা গ্রামের মোতালেব হাওলাদারের ছেলে মো. ইলিয়াস হাওলাদারের সাথে তার বিয়ে হয়। তাদের ঘরে আরমান নামের তিন মাসের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। ইলিয়াসের এটি দ্বিতীয় বিয়ে।

কুমিল্লার একটি মাছের আড়তে কর্মরত কমলার ভাই মো. আলামিন খলিফা মোবাইল ফোনে বলেন, কমলা চট্টগ্রামের একটি পোশাক কারখানায় (গার্মেন্ট) কাজ করতো। কলসি দিঘিরপাড় একা বাসা নিয়ে থাকতো সে। ওই একই এলাকায় ইলিয়াস একটি খাবার হোটেলে বয় হিসেবে কাজ করার সুবাদে তাদের মধ্যে পরিচয় ঘটে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একবছর আগে তারা নিজেরাই বিয়ে করে। এসময় ইলিয়াস তার প্রথম স্ত্রী ও সন্তানের কথা গোপন রাখে। পরে তারা চট্টগ্রাম থেকে বাড়িতে চলে আসে।

আলামিন আরো বলেন, ইলিয়াসের মা, বাবা ও পরিবারের লোকেরা কমলাকে মেনে নিতে পারেনি। বিভিন্নভাবে নির্যাতন চলতে থাকে তার ওপর। স্বামী ও শ্বাশুড়ি মিলে নানাভাবে শারিরীক ও মানুষিক নির্যাতন চালায়। এনিয়ে বহুবার স্থানীয় মেম্বার ও গণ্যমান্যরা সালিস-বৈঠক করেও নির্যাতন বন্ধ হয়নি। এক সপ্তাহ আগেও আমি গিয়ে তাদেরকে মিলিয়ে দিয়ে এসেছি। স্বমী ও শ্বাশুড়ির নির্যাতন সহ্য করতে না পেরেই আমার বোন গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার করতে চেয়েছে। এব্যাপারে মামলা করা হবে বলে আলামিন জানিয়েছেন।

স্থানীয় ২ নম্বর বকুলতলা ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. দেলোয়ার হোসেন খলিল জানান, ইলিয়াস এবং তার মা তাসলিমা বেগম খুব খারাপ প্রকৃতির মানুষ। তারা দুজনে মিলে কমলাকে মারধরসহ নানাভাবে নির্যাতন করতো। তিন-চার মাস আগে তার শরীরে কারেন্ট শক দিয়েছে ইলিয়াস। এনিয়ে স্থানীয়বাবে একাধিকবার সালিস করা হয়েছে। কিন্তু কিছুদিন পর পর আবার নির্যাতন শুরু হয়।

শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসিম কুমার সমাদ্দার বলেন, গৃহবধুর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার শরীরের ৬০ ভাগ মারাতত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আমি এবং ওসি সাহেব টাকাপয়সা দিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি।

শরণখোলা থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মো. কবিরুল ইসলাম জানান, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে খবর পেয়ে হাসাপাতালে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ গৃহবধুর খোঁজখবর নিয়ে দ্রুত তাকে খুলনা মেডিকেলে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। পারিবারিক নির্যাতনের ফলে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। বিষয়টি তদন্ত চলছে।


 
সর্বশেষ সংবাদ
  • তাজিকিস্তান রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সব রকম সহযোগিতা দেবেসাম্প্রদায়িক ও অশুভ শক্তিকে রুখে দেবার অঙ্গীকার নিয়ে বাংলা বর্ষ বরণউন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনের ঘোষণায় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণআজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস : নানা কর্মসূচি গ্রহণ একনেকের সভায় ৩,৪১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ প্রকল্প অনুমোদনপ্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতরা জাতির শত্রু : বেনজির আহমেদপ্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠানে আমরা সব ব্যবস্থা নিয়েছি : শিক্ষামন্ত্রীগাইবান্ধায় নবজাতককে আঁছড়িয়ে দিয়ে হত্যা করলো পাষণ্ড পিতা!গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা : ১৫ মে ভোট আমি কী পাগল ? প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত করবো ! ফের সমালোচনা ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে সরকার দলীয় এমপি রতন !আজ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনযশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীতে ছেলের হাতে বাবা খুন।সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনআজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস : জাতির বিনম্র শ্রদ্ধাকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াস রায়কে অশ্রুসিক্ত নয়নে শেষ বিদায় ভিয়েতনামে'র হোচিমিন সিটি'র একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড : নিহত ১৩ভারতে রাজ্যসভার জন্য ৭টি রাজ্যে ২৬টি আসনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছেমৌসুমি পাখিদেরকে দলে আশ্রয় প্রশ্রয় দেবেন না : ওবায়দুল কাদেরকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত আরো ৩ জনের মরদেহ ঢাকায় : পরিবারের কাছে হস্তান্তর একনেকে'র সভায় সীমান্ত সড়ক নির্মাণসহ ১৬টি প্রকল্প অনুমোদন
  • তাজিকিস্তান রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সব রকম সহযোগিতা দেবেসাম্প্রদায়িক ও অশুভ শক্তিকে রুখে দেবার অঙ্গীকার নিয়ে বাংলা বর্ষ বরণউন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনের ঘোষণায় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণআজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস : নানা কর্মসূচি গ্রহণ একনেকের সভায় ৩,৪১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ প্রকল্প অনুমোদনপ্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতরা জাতির শত্রু : বেনজির আহমেদপ্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠানে আমরা সব ব্যবস্থা নিয়েছি : শিক্ষামন্ত্রীগাইবান্ধায় নবজাতককে আঁছড়িয়ে দিয়ে হত্যা করলো পাষণ্ড পিতা!গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা : ১৫ মে ভোট আমি কী পাগল ? প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত করবো ! ফের সমালোচনা ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে সরকার দলীয় এমপি রতন !আজ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনযশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীতে ছেলের হাতে বাবা খুন।সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনআজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস : জাতির বিনম্র শ্রদ্ধাকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াস রায়কে অশ্রুসিক্ত নয়নে শেষ বিদায় ভিয়েতনামে'র হোচিমিন সিটি'র একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড : নিহত ১৩ভারতে রাজ্যসভার জন্য ৭টি রাজ্যে ২৬টি আসনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছেমৌসুমি পাখিদেরকে দলে আশ্রয় প্রশ্রয় দেবেন না : ওবায়দুল কাদেরকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত আরো ৩ জনের মরদেহ ঢাকায় : পরিবারের কাছে হস্তান্তর একনেকে'র সভায় সীমান্ত সড়ক নির্মাণসহ ১৬টি প্রকল্প অনুমোদন
উপরে