প্রকাশ : ০৪ মে, ২০১৭ ০০:২১:২০
বিশ্বমানের উন্নয়ন করার পরিকল্পনা-
শেষ হয়েছে কলাতলী-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের কাজ
বাংলাদেশ বাণী, ফরিদুল মোস্তফা খান, কক্সবাজার থেকে : অবশেষে শেষ হয়েছে কক্সবাজার শহরের কলাতলী থেকে টেকনাফ পর্যন্ত ৮০ কিলোমিটার দীর্ঘ মেরিন ড্রাইভ সড়কের কাজ। মে মাসের প্রথম সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধনের মাধ্যমে উন্মুক্ত হবে স্বপ্নের এই সড়ক। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মেরিন ড্রাইভ সড়কের মাধ্যমে খুলে যাবে অপার সম্ভাবনার পর্যটনের অবারিত দুয়ার। এক পাশে সবুজের সমারোহ নিয়ে উঁচু পাহাড় আর অপর পাশে উত্তাল সমুদ্রের ঢেউ আছড়ে পড়ছে বালিয়াড়ির বুকে।

এই দু’য়ের বুক চিরে সু-প্রশস্ত পিচঢালা পথ।এটি বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের কোলঘেঁষে উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়ক।  নানা জটিলতায় ১৯৯৮ সালে শুরু হওয়া মেরিন ড্রাইভ প্রকল্পের কাজ শেষ হতে পার হয়ে যায় দীর্ঘ সময়। সম্প্রতি সেনাবাহিনীর ১৬ ইসিবির তত্ত্বাবধানে শেষ হয় সড়কটির নির্মাণ কাজ। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

স্থানীয়রা বলছেন, সড়কটি উদ্বোধনের মাধ্যমে খুলবে পর্যটনের নতুন দুয়ার। স্থানীয়দের একজন বলেন, ‘বিভিন্ন ধরণের কর্মসংস্থান মূলক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে। এই কর্মকা-ের জন্য আমরা সবাই উপকৃত।

স্থানীয় অপর আর একজন বলেন, ‘মেরিন ড্রাইভ সড়ক চালু হলে আমাদের অর্থনৈতিক চাকা আরো সচল হবে।’  এ সড়কের মাধ্যমে কক্সবাজার একটি সমৃদ্ধশালী পর্যটন শিল্প হিসেবে প্রকাশ পাবে বলে মনে করছেন কক্সবাজার হোটেল মালিক সমিতির সহ সভাপতি সাখাওয়াত হোসাইন।

তিনি বলেন, ‘এই ১২০ কি. মি. রাস্তাকে যদি পরিকল্পিত ভাবে ব্যবহার করতে পারি তাহলে বিশ্বের দরবারে কক্সবাজারকে আরো সমৃদ্ধশালী একটি পর্যটন শিল্প হিসেবে প্রকাশ করতে পারবো।’  কক্সবাজার সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী রানাপ্রিয় বড়ুয়া জানালেন, মেরিন ড্রাইভ সড়ক পর্যটন শিল্পের জন্য নতুন মাত্রা যোগ করবে।  দীর্ঘ এ সড়কে রয়েছে ১৭টি ব্রিজ ও ১শ ৮টি কালর্ভাট। সড়কটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় পাঁচশো কোটি টাকা।

মেরিন ড্রাইভ সড়ককে বিশ্বমানের উন্নয়ন করার পরিকল্পনা

অপরদিকে, কক্সবাজার থেকে টেকনাফ পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ সড়কের কাজ শেষ হয়েছে। আগামী মে মাসের প্রথম সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সড়ক উদ্বোধন করবেন। এর জন্য সকল প্রস্তুতি শেষ করেছে বলে জানিয়েছেন প্রকল্প বাস্তবায়নকারি সেনা কর্মকর্তা।

তিনি বলেছেন শুরুতে নানা চ্যালেঞ্জিং নিয়ে এ সড়কের কাজ করতে হয়েছে। এসড়কের উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন হবে। এ সড়কটি বিশ্ব মানের করার পরিকল্পনাও রয়েছে। এ সড়কের উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে পর্যটন শিল্পের ব্যাপক পরিবর্তন হবে বলে জানান সেনা কর্মকর্তা। একপাশে দাঁড়িয়ে আছে সবুজের সমারোহ নিয়ে উঁচু পাহাড়।

অপর পাশে উত্তাল সমুদ্রের ঢেউ আছড়ে পড়ছে বালিয়াড়ির বুকে। এই দু’য়ের বুক চিরে চলে গেছে সু-প্রশস্ত পিচঢালা পথ। আর এটাই বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের কোলঘেঁষে তৈরী হওয়া কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়ক।

আগামি ৬ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সড়কের উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। আর এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে গণমাধ্যম কর্মীদের মুখোমুখি হন প্রকল্পবাস্তবায়নকারি সেনা বাহিনীর ১৬ ইসিবি’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল কে এম মেহেদী হাসান।  তিনি বলেন, শুরুতে এ সড়কের কাজ করতে নানা জটিলতা তৈরী হয়। তবে সড়কের কাজ শেষ করা সম্ভব হয়েছে। এ সড়কের কারণে সংশ্লিষ্ঠ এলাকার জীবন মানের ব্যাপক উন্নয়ন হবে। এ সড়কটিতে নানা উদ্যোগের মাধ্যমে বিশ্বমানের মেরিন ড্রাইভ সড়ক হিসেবে তৈরীর পরিকল্পনাও রয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সড়কের উদ্বোধনের সকল প্রস্তুতি শেষ এবং এ সড়কের উদ্বোধনের পর কক্সবাজার একটি সমৃদ্ধশালী পর্যটন শিল্প হিসেবে প্রকাশ পাবে বলে মনে করছেন তিনি। এ সড়কে ১৭ টি ব্রীজ, ১০৮টি কালর্ভাট রয়েছে। যেখানে ব্যয় হয়েছে ১ হাজার ৫০ কোটি টাকার কাছাকাছি।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • একুশের গ্রন্থমেলায় মেলায় প্রতিদিনই বই বিক্রি বাড়ছেআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে যাচ্ছে : বাহাদুর বেপারীশুরু হলো বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলা
  • একুশের গ্রন্থমেলায় মেলায় প্রতিদিনই বই বিক্রি বাড়ছেআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে যাচ্ছে : বাহাদুর বেপারীশুরু হলো বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলা
উপরে