প্রকাশ : ৩০ মে, ২০১৭ ১৭:৫১:৫৬
‘মোরা’র বিদায়ের পর এবার আসবে বাংলাদেশী ‘অক্ষি’
বাংলাদেশ বাণী, ডেস্ক রিপোর্ট : বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট মৌসুমের প্রথম ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ থাইল্যান্ডের দেওয়া নাম। যার অর্থ ‘সাগরের তারা’। প্রবল ঘূর্ণিঝড়টি মঙ্গলবার (৩০মে) ভোরে বাংলাদেশ উপকূলে আঘাত হেনে এরই মধ্যে দুর্বল হয়ে পড়েছে। এতে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছেন এর গতিপথে থাকা মানুষজন।

সম্ভাব্য তাণ্ডব চালিয়ে ঘূর্ণিঝড়গুলো বিদায় নিলেও এর ভয়াবহতা থেকে বাদ যান না উপকূলবাসী। বরং ঘুরে দাঁড়িয়ে পরবর্তী ঝড় থেকে বাঁচার জন্য তাদের প্রস্তুত হতে হয়।

এদিকে মোরা’র বিদায়ের পর এবার আসছে ‘অক্ষি’। যার অর্থ চোখ। ভারত, আরব বা বঙ্গোপসাগরের যেখানেই ঘূর্ণিঝড় তৈরি হবে তার নাম ‘অক্ষি’ ব্যবহার করা হবে। যেমন-‘মোরা’ শব্দটি থাইল্যান্ডের দেওয়া অথচ উৎপত্তিস্থল বঙ্গোপসাগরে। চপলা আরব সাগরে উৎপন্ন হলেও নামটি বাংলাদেশের দেওয়া। ঝড় যেখানেই উৎপন্ন হোক না কেন পূর্বনির্ধারিত নামগুলো পর্যায়ক্রমে ব্যবহার করা হবে।

এরইমধ্যে নাদা (ওমান), ভারদাহ (পাকিস্তান), মারুথা (শ্রীলঙ্কা), মোরা (থাইল্যান্ড) আঘাত হেনেছে। পরবর্তীতে ঘূর্ণিঝড়গুলোর নাম হলো- অক্ষি (বাংলাদেশ), সাগার (ভারত), মেকুনু (মালদ্বীপ), দেইয়া (মায়ানমার), লুবান (ওমান), টিটলি (পাকিস্তান), গাজা (শ্রীলঙ্কা), পিহেটাই (থাইল্যান্ড), ফণি (বাংলাদেশ), ভাইয়ু (ভারত), হিক্কা (মালদ্বীপ), কাইয়ার (মালদ্বীপ), মাহা (ওমান), বুলবুল (পাকিস্তান), পাওয়ান (শ্রীলঙ্কা) ও আমপান (থাইল্যান্ড)।

বিশ্ব আবহাওয়া বিজ্ঞান সংগঠন (ডাব্লিউএমও) এবং ইউএন ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল কমিউনিকেশন এশিয়া অ্যান্ড প্যাসিফিক (ইএসসিএপি) প্যানেল ঝড়ের নামগুলো ঠিক করে। প্যানেল নির্ধারিত ৬৪টি ঘূর্ণিঝড়ের পরবর্তীটির নাম ‘অক্ষি’।

এ প্রসঙ্গে আবহাওয়া অধিদফতরের উপ-পরিচালক আয়েশা খাতুন বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের নামগুলো আগে থেকেই রাখা হয়েছে। সিরিয়াল অনুসারে এগুলো ব্যবহার করা হয়। মোরা’র পরেই ব্যবহার করা হবে বাংলাদেশের দেওয়া প্রস্তাবিত নাম ‘অক্ষি’।

ইএসসিএপি প্যানেল বোর্ডের সদস্যরা প্রতি বছর সভার মাধ্যমে ঝড়ের নাম নির্ধারণ করে। প্যানেলের ৮ সদস্য হলো- বাংলাদেশ, ভারত, মালদ্বীপ, মায়ানমার, ওমান, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা এবং থাইল্যান্ড। তবে প্যানেলে নতুন করে যুক্ত হচ্ছে ইয়েমেন। প্রতিটি দেশ ৮টি করে নাম প্রস্তাব করে। ক্রমানুসারে নামগুলো ব্যবহার করা হয়।

বাংলাদেশের প্রস্তাবিত ৮টি নাম হলো-অনিল, অগ্নি, নিশি, গিরি, হেলেন, চপলা, অক্ষি ও ফণি। দুই বছর আগে ‘চপলা’ নামটি ব্যবহার করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া দফতর ১৯৫৩ সালে ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ শুরু করে। তাদের দেওয়া প্রথম নামটি ছিল ‘অ্যালিস’। ঝড়ের আচরণ নারীর মতোই অনিশ্চিত-এমন একটি প্রচলিত ধারণা থেকে এ নামটি রাখা হয়।
সর্বশেষ সংবাদ
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
উপরে