প্রকাশ : ২২ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০২:১৪:৫৬
মানবাধিকার বিষয়ে মিশরের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি
বাংলাদেশ বাণী, কায়রো, ( মিশর) থেকে উজ্জল হোসেন খান : সরকার চাইলে যে কোন দেশের মানবাধিকার ব্যবস্থা শক্তিশালী করা যায়, তার এক উজ্জল প্রমান হতে যাচ্ছে মিশর। আরব বসন্ত মূলত হয়েছিল মানবাধিকার সংক্রান্ত বিষয়গুলোকে কেন্দ্র করে। আরব বসন্তকে কেন্দ্র করে জঙ্গি সংগঠন ব্রাদারহুডের  ক্ষমতা দখল এবং সামরিক বাহিনী কর্তৃক পুনরায় গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সময় অসংখ্য মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা ঘটেছে। নিকট অতীতে মিশর বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড, বিচারিক দীর্ঘসূত্রিতা, সাংবাদিক নির্যাতনসহ বহুমূখী মানবাধিকার লংঘনের ঘটনায় অভিযুক্ত ছিল।

তবে বর্তমান প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসি ক্ষমতায় আসার পর মানবাধিকার বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দেন। প্রেসিডেন্ট একটি শক্তিশালী মানবাধিকার কমিশন গঠন করে দেন। এরপর থেকে সরকারী মানবাধিকার কমিশন মিশরের প্রতিটি সেক্টরে স্বাধীন ভাবে কাজ করা শুরু করে।

ইতিমধ্যেই ১০০ জনের উপর গোয়েন্দা, পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের বিভিন্ন অপরাধে সাজা প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে আমনাত দৌলা বা ন্যাশনাল সিকিউরিটির করেকজন কর্মকর্তার যাবত জীবন সাজা ভোগের রায় হয়েছে। মিশরের কারাগারে বিভিন্ন অপরাধে মাত্র ৭ জন সাংবাদিক আটক আছেন। প্রতিটি বিষয়ের জন্য সরকারী মানবাধিকার কমিশরের আলাদা আলাদ সেল আছে।

গত ২১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে মিশরের তথ্য মন্ত্রনালয় আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে স্টেট ইনফরমেশন সার্ভিসের প্রধান ডঃ ডিয়া রাশওয়ান দুঃখ প্রকাশ করে বলেন  “বিভিন্ন ধরনের রাজনৈতিক কারনে বিশ্ব মিডিয়া মিশরের মানবাধিকার বিষয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করে। অথচ আমরা বরাবর বলে আসছি কোন অভিযোগ থাকলে সুনির্দিষ্ট ভাবে জানান আমরা উপযুক্ত ব্যাবস্থা নিব। আপনাদের বুঝতে হবে মিশর অনেক বড় একটি দেশ একদিনেই পুরো ব্যাবস্থা পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। তবে আমাদের টিম দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। আপনারা অচিরেই একটি আধুনিক মিশর দেখতে পারবেন।”

বাংলাদেশী সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয় সব ধরনের বিচারিক ব্যাবস্থা দ্রুত করার জন্য অনেকগুলো প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া অনেকগুলো আইন সংশোধনের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া মিশরের প্রতিটি কারাগারে শীতাতাপ যন্ত্র, প্রয়োজনীয় বিশুদ্ধ খাদ্য ও চিকিৎসা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। নিকট ভবিষ্যতে মিশরের বিচারিক কার্যক্রম যে কোন উন্নত দেশের মত দ্রুততার সাথে সম্পন্য হবে।

পরিশেষে একটি কথা না বলে পারছি না, অনেক প্রতিকূলতা স্বত্বেও মিশর করে দেখাচ্ছে। কিন্তু আমরা উপমহাদেশের দেশ গুলি মানবাধিকারের নিশ্চয়তা দিতে পারি না। বিশেষ করে বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তানের মানবাধিকার পরিস্থিতি দিন দিন খারাপ হচ্ছে। পাকিস্তান অলরেডি ধ্বংশ হয়ে গেছে। কিন্তু বাংলাদেশ ভারত কিরছে। প্রতিনিয়ত মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে। গুম, খুন, চাদাবাজি, ধর্ষন, বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড সহ সব ধরনের মানবাধিকার বিরোধী কর্মকান্ড যেন আমাদের গা সওয়া হয়ে যাচ্ছে। আর কতদিন পর আমাদের হুশ ফিরবে।


 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে টিকে সিরিজে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো লংকাআখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হয়েছেআজ আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে চলতি বছরের ৫৩ তম বিশ্ব ইজতেমাদক্ষিণ সুুনামগঞ্জে সিরিজ ডাকাতি ॥ জনমনে চরম আতঙ্ক : প্রশাসন নিরবযশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদ
  • ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে টিকে সিরিজে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো লংকাআখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হয়েছেআজ আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে চলতি বছরের ৫৩ তম বিশ্ব ইজতেমাদক্ষিণ সুুনামগঞ্জে সিরিজ ডাকাতি ॥ জনমনে চরম আতঙ্ক : প্রশাসন নিরবযশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদ
উপরে