প্রকাশ : ০৮ মে, ২০১৫ ২৩:২২:৪৬
ফরিদপুরের কৃতি সন্তান জীবন দেবনাথের সিআইপি কার্ড অর্জন

বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকম, এস.এম. তরুন, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি :  বাংলাদেশ সরকার এবছর ৫৬ জন ব্যবসায়ীকে সিআইপি [কমার্শিয়াল ইম্পরটেন্ট পার্সন] হিসেবে মনোনিত করে তাদেরকে এই মর্যাসম্পন্ন কার্ড দিয়েছেন। রাজধানী ঢাকার অভিজাত হোটেল পুর্বানীতে আজ বৃহস্পতিবার এক জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শিল্প মন্ত্রী আমির হোসেন আমু ব্যাবসায়ীদের হাতে এই গুরুত্বপুর্ন কার্ডটি তুলে দেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, এফবিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট কাজী আকরাম উদ্দীন।

ব্যবসার বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় তাদের এই মর্যাদার আসনে আসীন করা হয়। একজন ব্যবসায়ীর জীবনে এটি সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ন সম্মান হিসেবে বিবেচিত হয়। প্রতিটি ব্যবসায়ীর জীবনের বড় স্বপ্ন থাকে সিআইপি কার্ড অর্জনের বিষয়টি। ব্যবসায়ীদের সফলতা অর্জনের এটি একটি অন্যতম সার্টিফিকেট। এই সিআইপি কার্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা পাবেন।
আজ যে ৫৬ জন ব্যাবসায়ীকে সিআইপি কার্ড প্রদান করা হয়েছে তার মধ্যে ফরিদপুরের বোয়ালমারী এলাকায় ধোপাডাঙ্গা গ্রামে জন্ম নেওয়া একজন কৃতি সন্তান রয়েছেন। তিনি হচ্ছেন টেকনো মিডিয়া লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক যশোদা জীবন দেবনাথ। টেকনো মিডিয়া ছাড়াও অন্তত এক ডজন সফল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের অন্যতম কর্নধার তিনি।

যশোদা জীবন দেবনাথের জন্ম ১৯৭২ সালে ফরিদপুরের বোয়ালামরী উপজেলার ধোপাডাঙ্গা গ্রামে। তার পিতার নাম গোপাল চন্দ্র দেবনাথ এবং মা শোভা রানী দেবনাথ। জীবন দেবনাথরা  ২ ভাই ও ৩ বোন। তার ছোট ভাই সুদর্শন দেবনাথ সম্প্রতি ঢাকায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়।
জীবন দেবনাথ অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের সন্তান। অভাবের তাড়নায় এক সময় জীবন দেবনাথ ফরিদপুর শহরের নিউমার্কেটে জনতা ষ্টোরে কর্মচারী ছিলেন। কলেজে ভর্তি হওয়ার মত টাকা তার এবং তার পরিবারের ছিলনা। ঐ সময় ফরিদপুরের বিশিষ্ট সমাজ সেবক খন্দকার নূরুল হোসেন নুরু মিয়া জীবন দেবনাথকে ৫ হাজার দিয়ে সরকারী রাজেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ভর্তি করে দেন। তার পর জীবন দেবনাথের পড়ালেখা আর বন্ধ হয়নি। জীবন দেবনাথ ২০০১ সালে টেকনোমিডিয়া প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে তার ব্যবসা জীবন শুরু করেন। পরিশ্রম সততা ন্যায় নিষ্ঠার জোড়ে দ্রুত গতিতে সফলতা অর্জন করতে থাকেন জীবন। সাফল্যের পর সাফল্যের মধ্য দিয়ে দেশ বিদেশে সে অনেকগুলো পুরস্কারও অর্জন করেছেন তিনি। এর পর পেছনে ফিরে আর তাকাতে হয়নি তরুন এই ব্যবসায়ী জীবন নাথকে।

জশোদা জীবন দেবনাথ তার প্রতিক্রিয়ায় আরো বলেন, “বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমি কৃতজ্ঞ কারন আমার মত একজন তরুন ব্যবসায়ীর হাতে সিআইপি কার্ড তুলে দিয়েছে এই সরকার। শুধুমাত্র ব্যবসার জন্য ব্যবসা নয় বরং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এবং বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে প্রাইভেট সেক্টর থেকে অবদান রাখার  সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো আমি। দরিদ্র পরিবারের সন্তান এবং একটি দরিদ্র দেশের সন্তান হিসেবে বাকী জীবন আমি দেশের জন্য এবং দেশের মানুষের কল্যানে কাজ করে যাবো।

জীবন দেব নাথ শধু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নয় তিনি অসংখ্য সামাজিক প্রতিষ্ঠানের সাথেও জড়িত। যশোদা জীবন দেবনাথ ফরিদপুর ফাউন্ডেশনের ডোনার মেম্বার, ফরিদপুরের শিশু হাসপাতাল, ফরিদপুর ডায়াবেটিক এ্যাসোসিয়েশন, ফরিদপুর হার্ট ফাউন্ডেশন, ফরিদপুর আবাহনী ক্রীড়াচক্র, ফরিদপুর শ্রীধাম শ্রীঅঙ্গন এর সদস্য, বোয়ালমারী ধোপাডাঙ্গা হাই স্কুলের প্রেসিডেন্ট সহ বিভিন্ন  শিক্ষা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের সাথে সরাসরি জড়িত থেকে এসব প্রতিষ্ঠানকে উন্নয়নের শেখড়ে পৌছে দেবার লক্ষে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

জীবন নাথের এই বিরল সম্মান অর্জনের ফরিদপুরের বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ বাণী/কাসা/মফ:/ফরিদ/তরুন/০৮/০৫/২০১৫ ইং ১১.২০ (পিএম) ঘ.
সর্বশেষ সংবাদ
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
উপরে