প্রকাশ : ০৮ মে, ২০১৫ ২৩:২২:৪৬
ফরিদপুরের কৃতি সন্তান জীবন দেবনাথের সিআইপি কার্ড অর্জন

বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকম, এস.এম. তরুন, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি :  বাংলাদেশ সরকার এবছর ৫৬ জন ব্যবসায়ীকে সিআইপি [কমার্শিয়াল ইম্পরটেন্ট পার্সন] হিসেবে মনোনিত করে তাদেরকে এই মর্যাসম্পন্ন কার্ড দিয়েছেন। রাজধানী ঢাকার অভিজাত হোটেল পুর্বানীতে আজ বৃহস্পতিবার এক জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শিল্প মন্ত্রী আমির হোসেন আমু ব্যাবসায়ীদের হাতে এই গুরুত্বপুর্ন কার্ডটি তুলে দেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, এফবিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট কাজী আকরাম উদ্দীন।

ব্যবসার বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় তাদের এই মর্যাদার আসনে আসীন করা হয়। একজন ব্যবসায়ীর জীবনে এটি সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ন সম্মান হিসেবে বিবেচিত হয়। প্রতিটি ব্যবসায়ীর জীবনের বড় স্বপ্ন থাকে সিআইপি কার্ড অর্জনের বিষয়টি। ব্যবসায়ীদের সফলতা অর্জনের এটি একটি অন্যতম সার্টিফিকেট। এই সিআইপি কার্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা পাবেন।
আজ যে ৫৬ জন ব্যাবসায়ীকে সিআইপি কার্ড প্রদান করা হয়েছে তার মধ্যে ফরিদপুরের বোয়ালমারী এলাকায় ধোপাডাঙ্গা গ্রামে জন্ম নেওয়া একজন কৃতি সন্তান রয়েছেন। তিনি হচ্ছেন টেকনো মিডিয়া লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক যশোদা জীবন দেবনাথ। টেকনো মিডিয়া ছাড়াও অন্তত এক ডজন সফল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের অন্যতম কর্নধার তিনি।

যশোদা জীবন দেবনাথের জন্ম ১৯৭২ সালে ফরিদপুরের বোয়ালামরী উপজেলার ধোপাডাঙ্গা গ্রামে। তার পিতার নাম গোপাল চন্দ্র দেবনাথ এবং মা শোভা রানী দেবনাথ। জীবন দেবনাথরা  ২ ভাই ও ৩ বোন। তার ছোট ভাই সুদর্শন দেবনাথ সম্প্রতি ঢাকায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়।
জীবন দেবনাথ অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের সন্তান। অভাবের তাড়নায় এক সময় জীবন দেবনাথ ফরিদপুর শহরের নিউমার্কেটে জনতা ষ্টোরে কর্মচারী ছিলেন। কলেজে ভর্তি হওয়ার মত টাকা তার এবং তার পরিবারের ছিলনা। ঐ সময় ফরিদপুরের বিশিষ্ট সমাজ সেবক খন্দকার নূরুল হোসেন নুরু মিয়া জীবন দেবনাথকে ৫ হাজার দিয়ে সরকারী রাজেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ভর্তি করে দেন। তার পর জীবন দেবনাথের পড়ালেখা আর বন্ধ হয়নি। জীবন দেবনাথ ২০০১ সালে টেকনোমিডিয়া প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে তার ব্যবসা জীবন শুরু করেন। পরিশ্রম সততা ন্যায় নিষ্ঠার জোড়ে দ্রুত গতিতে সফলতা অর্জন করতে থাকেন জীবন। সাফল্যের পর সাফল্যের মধ্য দিয়ে দেশ বিদেশে সে অনেকগুলো পুরস্কারও অর্জন করেছেন তিনি। এর পর পেছনে ফিরে আর তাকাতে হয়নি তরুন এই ব্যবসায়ী জীবন নাথকে।

জশোদা জীবন দেবনাথ তার প্রতিক্রিয়ায় আরো বলেন, “বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমি কৃতজ্ঞ কারন আমার মত একজন তরুন ব্যবসায়ীর হাতে সিআইপি কার্ড তুলে দিয়েছে এই সরকার। শুধুমাত্র ব্যবসার জন্য ব্যবসা নয় বরং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এবং বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে প্রাইভেট সেক্টর থেকে অবদান রাখার  সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো আমি। দরিদ্র পরিবারের সন্তান এবং একটি দরিদ্র দেশের সন্তান হিসেবে বাকী জীবন আমি দেশের জন্য এবং দেশের মানুষের কল্যানে কাজ করে যাবো।

জীবন দেব নাথ শধু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নয় তিনি অসংখ্য সামাজিক প্রতিষ্ঠানের সাথেও জড়িত। যশোদা জীবন দেবনাথ ফরিদপুর ফাউন্ডেশনের ডোনার মেম্বার, ফরিদপুরের শিশু হাসপাতাল, ফরিদপুর ডায়াবেটিক এ্যাসোসিয়েশন, ফরিদপুর হার্ট ফাউন্ডেশন, ফরিদপুর আবাহনী ক্রীড়াচক্র, ফরিদপুর শ্রীধাম শ্রীঅঙ্গন এর সদস্য, বোয়ালমারী ধোপাডাঙ্গা হাই স্কুলের প্রেসিডেন্ট সহ বিভিন্ন  শিক্ষা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের সাথে সরাসরি জড়িত থেকে এসব প্রতিষ্ঠানকে উন্নয়নের শেখড়ে পৌছে দেবার লক্ষে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

জীবন নাথের এই বিরল সম্মান অর্জনের ফরিদপুরের বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ বাণী/কাসা/মফ:/ফরিদ/তরুন/০৮/০৫/২০১৫ ইং ১১.২০ (পিএম) ঘ.
সর্বশেষ সংবাদ
  • বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন
  • বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন
উপরে