প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর, ২০১৫ ০০:২৭:৫৯
স্বাধীনতার যুদ্ধে অংশ গ্রহনের স্বার্থকতা আজ উপলব্ধি করছি : বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল আলম বাবু
বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকম, রাজশাহী প্রতিনিধি : ১৯৬৬-৬৭ সালে রাজশাহীর চারঘাটে তৎকালিন সময়ে আ’লীগের কোন কমিটি ছিল না। তৎকালিন সময়ে আমি চারঘাট পাইলট হাইস্কুলের স্কাউট মাষ্টার হিসেবে কর্মরত ছিলাম।

এ সময় আমি নিজ উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্দা শহীদ এ এইচ এম কামরুজ্জামান ও তৎকালিন সময়ের হরিরামপুরের বাসিন্দা এম এন এ নাজমুল হকের সহযোগীতায় চারঘাটে আ’লীগের কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পান আমার পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মুন্সি নুরুল হক এবং সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব আমি নিজেই পাই। ১৯৬৮ সালের শেষের দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৬ দফা দাবী আদায়ের আন্দোলন শুরু হলে আগরতলা ষড়যন্ত মামলায় পাক বাহিনীর হাতে আটক হোন বঙ্গবন্ধু।

বঙ্গবন্ধু পাকিস্থানী জেলে আটক থাকা অবস্থায় আমরা মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ি। কথা গুলো বলছিলেন, চারঘাট উপজেলা অনুপমপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মুন্সি নুরুল হকের ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল আলম বাবু। তিনি বলেন, এক সময় চারঘাটের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ ভাসানীর নেতৃত্বে গঠন করা হয় পাকিস্থান ডেমোক্রেটিক মুভম্যান্ট (পিডিএম) গঠন করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আগরতলা ষড়যন্ত মামলা থেকে পাকিস্থানী জেল থেকে মুক্তি পেয়ে গঠন করা হয় সংগ্রাম পরিষদ। এরপর ১৯৭১ সালের ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঢাকার রেসর্কোস ময়দানে ভাষন দেন। এ সময় আমি দেশ রক্ষায় নিজেকে নিয়োজিত করার লক্ষে মুক্তিযুদ্ধের জন্য চারঘাট পাইলট হাইস্কুল মাঠে আনছারসহ বিভিন্ন অবসর পুলিশ অফিসারের নেতৃত্বে গঠিত প্রশিক্ষন শিবির থেকে প্রশিক্ষন গ্রহন করি।

৪ঠা এপ্রিলে আমিসহ গফুর শাহ এবং রইছ উদ্দিন নামে তিনজন ভারতের কোলকাতায় পশ্চিম বঙ্গের নিরক্ষরতা দুরীকরনের কমিটির সাধারন সম্পাদক পার্থ সেন এর নিকট থেকে গুলি বারুদসহ অস্ত্র সংগ্রহ করি। এরপর আমি আরো গোলা বারুদ সংগ্রহের জন্য ভারতেই থেকে যায় এবং আমার সহযোগীদের গোলা বারুদসহ চারঘাটে পাঠিয়ে দেই। এরপর আমি দুই তিন দিন পরে ভারত থেকে চারঘাটে আসি। এর কিছু দিন পরে আমিসহ আরো অনেকে ভারতের কাজিপাড়া ক্যাম্পে গিয়ে আশ্রয় নেই।

মে মাসের প্রথম সপ্তাহের দিকে কাজিপাড়া ক্যাম্পের ইপিআর এর সুবেদার মোবাসশেরুল ইসলামের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জনের মুক্তিযোদ্ধা দল দুটি নৌকা যোগে গোলা বারুদ নিয়ে রাতের অন্ধকারে বাঘার  মীরগঞ্জ ও চারঘাটের পিরোজপুর এলাকায় আসি। কিন্তু আমাদের আসতে আসতে সকাল হয়ে যাওয়ায়, ওই দিন আর অপরেশান করতে পারিনি। পরে সেখান থেকে ফিরে যায় কাজিপাড়া ক্যাম্পে। পরে ৪/৫ দিন পরে আবারো সুবেদার মোবাসশেরুল ইসলামের নেতৃতে রাতের অন্ধকারে বাঘার একটি মাদ্রাসায় আসি অপারেশনে। এ সময় ওই মাদ্রাসায় রাজাকারদের সঙ্গে প্রচন্ড গুলি বিনিময় হলে ৫/৬ জন রাজাকার গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। এর সপ্তা খানিক পরে তারই নেতৃত্বে রুস্তমপুর এলাকায় রাজাকারদের সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত হই। সেখানে গোলা গুলিতে ২ রাজাকার মৃত্যু বরন করে। আমি নিজে সরাসরি মুক্তিযোদ্ধে অংশ গ্রহন করে দেশ স্বাধীন করেছি।

দেশ স্বাধীন হলেও আজ ও রাজাকারদের বিচার শেষ হয়নি। কিন্তু বর্তমানে মানবতা বিরোধী অপরাধে রাজাকারদের বিচারের কাজ শুরু হওয়ায়, আমি আজ খুবই গর্ববোধ করছি। মানবতা বিরোধী যুদ্ধপরাধীদের বর্তমান সরকার বিচারের মুখোমুখি করায় দেশের জন্য স্বাধীনতার যুদ্ধে অংশ গ্রহনের স্বার্থকতা আজ উপলব্ধি করছি।

বাংলাদেশ বাণী/কাসা/ডেস্ক/নি.প্রতি/শহীদুল/রাজশাহী/০২/১২/২০১৫. ১২.২৫ (এএম) ঘ.
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
উপরে