প্রকাশ : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৬ ০১:৪৫:২৩
দেশ স্বাধীনের সনদ পেলেও মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পাননি আব্দুল হামিদ
বাংলাদেশ বাণী, গাইবান্ধ জেলা প্রতিনিধি : ১৯৭১ খ্রিস্টাব্দে টগবগে একজন যুবক ছিলেন গাইবান্ধার আব্দুল হামিদ। সেই সময় দেশটা ছিল উত্তাল, বাংলাকে নিজের রুপ ফিরিয়ে দেওয়ার নেশায় নিজের রক্তের বিনিময় হলেও মুক্তিযোদ্ধে অংশগ্রহণ করে ছিলেন আব্দুল হামিদ। পাকিস্থানীদের শোষণ আর অত্যাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাড়িয়েছিলেন এদেশের আপাময় জনগণ। ঠিক তখনেই আব্দুল হামিদ বাড়ীতে বসে না থেকে দেশকে স্বাধীন করার জন্য নেমে পড়েন মহান মুক্তিযুদ্ধে।
ফলে দেশ স্বাধীন হয়েছে, জনগণ পেয়েছে স্বাধীনতার সুখ। কিন্তু আব্দুল হামিদ দেশ স্বাধীনতার সংগ্রামের সনদ প্রাপ্ত হলেও আজ পর্যন্ত তিনি পাননি মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি। আব্দুল হামিদ জীবন বাজি রেখে ১৯৭১-এ দেশ স্বাধীন করলেও জীবন যুদ্ধে তিনি আজ পরাজিত এক সৈনিক। বর্তমানে তিনি দু’নয়নের দৃষ্টি শক্তি হারিয়ে অন্ধত্ব বরণ করে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতন জীবন যাপন করছেন। দেশ স্বাধীনের ৪৫ বছর পেরিয়ে গেলেও আব্দুল হামিদ কোন সরকারী সুযোগ সবিধা কিংবা মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পাননি।
গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের জয়েনপুর গ্রামের মৃত্যু মুনছুর আলীর পুত্র আব্দুল হামিদ। তার বয়স প্রায় ৬৭ বছর। আব্দুল হামিদ জানান ১৯৬৯ সালে মুজিববাদ ছাত্রলীগের সাদুল্যাপুর থানার সভাপতির দায়িত্ব নিয়ে ঢাকায় রেসকোর্স ময়দানে সম্মেলনে যোগদেন। সম্মেলন শেষে নিজ জেলা গাইবান্ধার বিভিন্ন আন্দোলনে অংশগ্রহন করে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন । তিনি বলেন ছাত্র আন্দোলন অব্যাহত রেখে ১৯৭১ সালে জাতির পিতা শেখ মজিবুর রহমানের আহবানে দেশ স্বাধীনের জন্য মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন।
১১নং সেক্টরে সুবেদার আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে তৎকালিন জেলা ছাত্রলীগের নেতা নাজমুল আরেফিন তারেকসহ  অন্যান্যদের সাথে তিনি পীরগঞ্জ উপজেলার মাদারগঞ্জ এলাকায় সম্মুখ যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। এরপরে পাকিস্থানী বাহিনী পীরগঞ্জের আংড়ার ব্রীজে মুক্তিযোদ্ধাদের আক্রমন করলে তিনি ও তার সহযোগী আবেদ আলীকে সাথে নিয়ে ওই যুদ্ধে ঝাঁপিযে পড়ে তাদের প্রতিহত করেন। এ কারণে তিনি তৎকালিন স্বরাষ্ট সচিব তসলিম আহম্মেদ ও আঞ্চলিক অধিনায়ক মনিরুল ইসলামের স্বাক্ষরিত একটি স্বাধীনতা সংগ্রামের সনদ প্রাপ্ত হন।
যার নং-২০২৩১। এখন পর্যন্ত  সরকারী কোন সুযোগ-সুবিধা না পাওয়ায় স্ত্রী ছালেহা বেগমসহ ৪ ছেলে ও ৪ মেয়েকে নিয়ে বর্তমানে তিনি মানবেতর জীবন যাপন করছেন। সরকারী সুবিধা পেতে একাধিকবার সংশ্লিষ্ট দপ্তরে তিনি আবেদন করেও এখন পর্যন্ত কোন ভাতা কিংবা সুযোগ-সুবিধা পাননি। জীবন চলার পথে তিনি সাদুল্যাপুর সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে দলিল লেখক হিসেবে কাজ করে সংসার চালিয়ে আসলেও ২০১৩ সালের ডিসেম্বর থেকে দু’নয়নের দৃষ্টি শক্তি হারিয়ে অন্ধত্ব বরণ করেন। অর্থাভাবে উন্নত চিকিৎসা সেবা নিতে না পারায় অবশেষে চোখের দৃষ্টি শক্তি হারিয়ে ফেলে ঘরের কোনে বসে দিন অতিবাহিত করছেন। দীর্ঘ সংগ্রামের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করে শুধুই পেয়েছেন একটি সার্টিফিকেট। এটাই তার জীবনের শুধু স্মৃতি হয়ে আছে !
সাদুল্যাপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড মেছের আলী সরকার বলেন আব্দুল হামিদ মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছে এ বিষয়ে আমার জানা নেই। তবে স্থানীয় বীরমুক্তিযোদ্ধো আব্দুল জলিল আজমী জানান আব্দুল হামিদ স্বাধীনতা সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেছিলেন। সাদুল্যাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব বলেন আব্দুল হামিদের বিষয়টি যাচাই-বাচাই করে দেখা হবে।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • গাজীপুরে সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে নির্বাচন কমিশনের ব্যাপক প্রস্তুতিকলম্বিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভ সূচনা করলো এশিয়ার দল জাপানদলীয় মনোনয়ন নিয়ে নানামুখী আলোচনা ॥ বরিশালে সিটি’তে চার মেয়র প্রার্থীসহ ৪৭ জনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহআজিজ আহমেদকে নতুন সেনা প্রধান নিয়োগআনন্দ-উচ্ছ্বাসের মধ্যদিয়ে রাজধানীসহ দেশজুড়ে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হচ্ছেদু’বারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার সাথে আইসল্যান্ডের ১-১ গোলে ড্রআজ খুশি'র ঈদ ❏ মুসলিম জাহানের সমৃদ্ধি কামণার অঙ্গীকারে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র পৃথক পৃথক বাণীপ্রধানমন্ত্রী গণভবনে আজ ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেনশেষ মুহূর্তের আত্মঘাতী গোলে বিশ্বকাপে মিসরকে হারালো উরুগুয়েআজ চাঁদ দেখা গেলে : শনিবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপননিজেদের মাঠে দাপুটে জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলো স্বাগতিক রাশিয়াঈদে অজ্ঞান ও মলম পার্টির দৌরাত্ম রোধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর : আইজিপি ঈদুল ফিতরের তারিখ নির্ধারণে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা কাল আজ মহিমান্বিত পবিত্র লাইলাতুল কদরের রজনীআজ বাজারে আসছে নতুন ২ ও ৫ টাকা মূল্যমানের নোটনারী এশিয়া কাপ টি টোয়েন্টিতে ভারতকে হারিয়ে, বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করায়, প্রাণঢালা আন্তরিক অভিনন্দন।চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেতমালয়েশিয়াকে ৭০ রানে হারিয়ে এশিয়া কাপের স্বপ্নের ফাইনালে বাংলাদেশ : প্রতিপক্ষ ভারত আজ শুরু হচ্ছে দশম জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন
  • গাজীপুরে সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে নির্বাচন কমিশনের ব্যাপক প্রস্তুতিকলম্বিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভ সূচনা করলো এশিয়ার দল জাপানদলীয় মনোনয়ন নিয়ে নানামুখী আলোচনা ॥ বরিশালে সিটি’তে চার মেয়র প্রার্থীসহ ৪৭ জনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহআজিজ আহমেদকে নতুন সেনা প্রধান নিয়োগআনন্দ-উচ্ছ্বাসের মধ্যদিয়ে রাজধানীসহ দেশজুড়ে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হচ্ছেদু’বারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার সাথে আইসল্যান্ডের ১-১ গোলে ড্রআজ খুশি'র ঈদ ❏ মুসলিম জাহানের সমৃদ্ধি কামণার অঙ্গীকারে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র পৃথক পৃথক বাণীপ্রধানমন্ত্রী গণভবনে আজ ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেনশেষ মুহূর্তের আত্মঘাতী গোলে বিশ্বকাপে মিসরকে হারালো উরুগুয়েআজ চাঁদ দেখা গেলে : শনিবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপননিজেদের মাঠে দাপুটে জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলো স্বাগতিক রাশিয়াঈদে অজ্ঞান ও মলম পার্টির দৌরাত্ম রোধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর : আইজিপি ঈদুল ফিতরের তারিখ নির্ধারণে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা কাল আজ মহিমান্বিত পবিত্র লাইলাতুল কদরের রজনীআজ বাজারে আসছে নতুন ২ ও ৫ টাকা মূল্যমানের নোটনারী এশিয়া কাপ টি টোয়েন্টিতে ভারতকে হারিয়ে, বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করায়, প্রাণঢালা আন্তরিক অভিনন্দন।চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেতমালয়েশিয়াকে ৭০ রানে হারিয়ে এশিয়া কাপের স্বপ্নের ফাইনালে বাংলাদেশ : প্রতিপক্ষ ভারত আজ শুরু হচ্ছে দশম জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন
উপরে