প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর, ২০১৬ ০১:২৩:২৬
দ্বীনের মহব্বতে এসেছি ছারছীনায় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বাংলাদেশ বাণী, ছারছীনা থেকে মো: আবদুর রহমান : আমীরে হিযবুল্লাহ, মুজাদ্দিদে যামান ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব কেবলা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ) বলেছেন-নামাজ শ্রেষ্ঠ ইবাদত। কিয়ামতের মাঠে সর্বপ্রথম আল্লাহ নামাজের হিসাব নিবেন। তাই নামাজ কায়েমের ব্যাপারে সকলকে যতœবান হতে হবে। আর নামাজ কবুলের জন্য বিশুদ্ধ কোরআন তেলাওয়াত একান্ত প্রয়োজন। পাশাপাশি নিয়মিত আল্লাহর জিকির করা এবং প্রিয় নবী (স:) এর শানে দরূদ পাঠ করার দ্বারা নামাজের মধ্যে একাগ্রতা বেশি পয়দা হয়।
পীর ছাহেব বলেন, ইলমে মারেফাতের চর্চা করব শরীয়তের মধ্যে থেকে। শরীয়ত বিরোধী কর্মকান্ড যে দরবারে হয়, যারা নামাজ রোজার ধার ধারেনা, সুন্নতের আমল করেনা তারা কখনো হক্কানী হতে পারেনা। ছারছীনা দরবার দলীয় রাজনীতিমুক্ত একটি হক দরবার। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই কোরআন-সুন্নাহ মোতাবেক এ দরবার পরিচালিত হচ্ছে। বেদায়াতী, বেয়াদবী ও ভন্ডামীর স্থান এ দরবারে নেই।
পীর ছাহেব কেবলা মাহফিলে আগত লাখো লাখো পীর-ভাই, মুহিব্বীন ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন-আমাদের ভারত বর্ষে কোন নবীর আগমণ ঘটেনি। বণিক ও মুবাল্লিগ বেশে কতিপয় সাহাবায়ে কেরাম এ দেশে এসেছেন। তবে উল্লেখ যোগ্য হারে যারা এসেছেন তারা হচ্ছেন নায়েবে নবী তথা আউলিয়ায়ে কেরাম। এ দেশের মুসলিম শাসন আউলিয়ায়ে কেরামের আগমনের পথ সুগম করেছে মাত্র। এদেশের কোন বিধর্মীকে জোর পূর্বক ইসলাম ধর্মে দীক্ষিত করা হয়েছে মর্মে ইতিহাসে কোন প্রমাণ নেই। বরং আউলিয়ায়ে কেরামের চরিত্র-মাদধুর্য এবং তাছাররুফের বদৌলতে সাগর পাড়ের এ বঙ্গদেশটি মুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণের রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। আমরা তাদের উত্তরসূরী, এ কথাটি আমাদের মনে রাখতে হবে। তবে শয়তান বসে নেই, সে নিত্য নতুন সুরাতে নানা বেশে মানুষের দ্বারে হাযির হয় তার গোমরাহীর পসরা সাজিয়ে। বে এলেম, মূর্খ, হাকীকতে দীন সম্পর্কে অজ্ঞ লোকদের মুখেও এটা কিতাবে নেই, ওটা হাদীসে নেই, এটা বেদআত, ওটা সুন্নাতের খেলাফ, এটা যঈফ অথবা জাল হাদীস ইত্যাদি বক্তব্য বেশ শোনা যাচ্ছে।
আমরা হানাফী মাযহাবের অনুসারী। হানাফী মাযহাব যে হাদীসের নির্যাস থেকে উৎসারিত তা সহীহ হাদীস দ্বারা আল্লামা ইমাম ত্বহাবী (রহ:) প্রমাণ করে গেছেন। ওলামায়ে কেরামের ইজমা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে একথার উপরে যে, কেবল মাত্র চার মাযহাবের অনুসারীগণই আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের অন্তর্ভুক্ত। এবং কেবল মাত্র তারাই নাযী বা পরিত্রাণ প্রাপ্ত দল। যাদের শানে প্রিয় নবী (সা:) এরশাদ করেছেন, যে মত ও পথের উপর আমি ও আমার সাহাবাগণ আছে। কিন্তু বর্তমানে বিদেশী মদদে আমাদের চারপাশে একদল লোক ইসলামের নামে উদ্ভট বক্তব্য দিয়ে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। এদেও থেকে আমাদের বেঁচে থাকতে হবে।
পীর ছাহেব কেবলা মায়ানমারের মুসলমানদের উপর নির্মম নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে এ ব্যাপারে সকলকে সোচ্চার হওয়ার এবং বিশেষ করে সরকারকে এ ব্যাপারে জোরালো ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।      
বুধবার ছারছীনা দরবার শরীফের তিন দিনব্যাপী ১২৬ তম ইছালে ছওয়াব মাহফিল ও বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহ সম্মেলনের শেষদিনে আখেরী মোনাজাতের পূর্বে গুরুত্বপূর্ণ নসীহত করতে গিয়ে পীর ছাহেব কেবলা একথা বলেন।
মাহফিলে বিশেষ মেহমান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান খান কামাল (এমপি), আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম.এম এনামুল হক, বানারীপাড়া-২ আসনের সংসদ সদস্য এড. তালুকদার মো: ইউনুস, পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ.কে.এম.এ আউয়াল, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার মো: গাউস, ডিআইজি শেখ মারুফ হাসান সহ সরকারের বিভিন্ন স্তরের এবং বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর নের্তৃবৃন্দ।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন- ছারছীনা দরবারে দ্বীনের জন্য, নিজের শান্তির জন্য ঢল নামে। এখানে যারা আসে তারা নিজের ঈমান ও আমলকে মজবুত করে আল্লাহওয়ালা হওয়ার জন্যই আসে। আমি মুসলমান। আমি দ্বীন তথা ধর্মকে ভালোবাসি। আর তাই দ্বীনের মহব্বতেই এ হক্কানী দরবারে আমার ছুটে আসা।
মাহফিলে কোরআন ও হাদীসের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলীর উপর আলোচনা করেন- বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমীর ও পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা আলহাজ্ব শাহ আবু নছর নেছারুদ্দিন আহমদ হুসাইন, মরহুম হযরত পীর ছাহেব কেবলার সফরসঙ্গি আলহাজ্ব মাওলানা আবু জাফর মোঃ শামসুদ্দোহা, চৈতা দরবারের পীর ছাহেব আলহাজ্ব মাওলানা মোঃ নূর খান, দারুন্নাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা ওসমান গণি ছালেহী, সহ অন্যান্য ওলামায়ে কেরাম।
মাহফিলে কোরআন তেলাওয়াত, জিকির-আজকার, মীলাদ-কিয়াম ও তওবা-ইস্তেগফার করে লাখো লাখো মুরীদানদের নিয়ে দেশ-জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সার্বিক কল্যান ও মায়ানমারের মুসলমানদেও সুখ-শান্তি ও আল্লাহর রহমত কামনা করে আমীওে হিযবুল্লাহ হযরত পীর ছাহেব কেবলা আখেরী মুনাজাত পরিচালনা করেন।
সর্বশেষ সংবাদ
  • ট্রাম্প হচ্ছেন ‘আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে নবাগত দুষ্টু ব্যক্তি’: ইরানের প্রেসিডেন্টমিয়ানমারের সিত্তুয়েতে রোহিঙ্গাদের জন্য রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলাজলি আত্মহত্যা প্ররোচণা মামলার চার্জশিট -‘সঠিক জবানবন্দি উপস্থাপন করতে পারেনি পুলিশ’রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরী মানবিক সহায়তা ২৬২ কোটি ৩ লাখ টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ‌‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আপনাদের ঐক্য প্রদর্শন করুন’ : ওআইসিকে প্রধানমন্ত্রীপৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেননির্বাচনকে প্রভাবিত করার রাজনীতি বিএনপি'র হাত ধরেই শুরু হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমিয়ানমারের চলমান সহিংসতায় ১ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে : জাতিসংঘ
  • ট্রাম্প হচ্ছেন ‘আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে নবাগত দুষ্টু ব্যক্তি’: ইরানের প্রেসিডেন্টমিয়ানমারের সিত্তুয়েতে রোহিঙ্গাদের জন্য রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলাজলি আত্মহত্যা প্ররোচণা মামলার চার্জশিট -‘সঠিক জবানবন্দি উপস্থাপন করতে পারেনি পুলিশ’রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরী মানবিক সহায়তা ২৬২ কোটি ৩ লাখ টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ‌‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আপনাদের ঐক্য প্রদর্শন করুন’ : ওআইসিকে প্রধানমন্ত্রীপৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীমন্ত্রিসভার বৈঠকে জাতিসংঘ পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তি স্বাক্ষরের অনুমোদনওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি আজ আস্তানার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেননির্বাচনকে প্রভাবিত করার রাজনীতি বিএনপি'র হাত ধরেই শুরু হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমিয়ানমারের চলমান সহিংসতায় ১ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে : জাতিসংঘ
উপরে