প্রকাশ : ২৯ মে, ২০১৭ ১৬:১৯:৩৯
প্রতিদিনকার ইফতারে আপনার জন্য কিছু স্বাস্থ্যকর তথ্য
বাংলা্দেশ বাণী, লাইাফস্টাইল ডেস্ক : ইসলামিক ঐতিহ্য অনুযায়ী রমজান মাস সবচেয়ে পবিত্র মাস। সারা বিশ্বের মুসলিম সম্প্রদায় এই মাসে রোজা রাখেন। রোজা রাখার উদ্দেশ্যে সূর্যোদয়ের আগে সেহরি খাওয়া হয় এবং সূর্যাস্তের পরে ইফতার করা হয়।

ঐতিহ্যগতভাবেই ইফতারের সময় খেজুর এর সাথে পানি, দুধ বা জুস গ্রহণ করা হয়। এছাড়াও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ইফতারের জন্য বিভিন্ন ধরনের চমৎকার সব খাবার প্রস্তুত করা হয়।

আফগানিস্তানের মানুষ ইফতারির জন্য স্যুপ তৈরি করেন, পেঁয়াজ দিয়ে মাংসের তরকারি রান্না করেন, কাবাব ও পোলাউ তৈরি করেন। আমাদের এই উপমহাদেশে মিষ্টি পানীয়, হালিম, জিলাপি, পরটা, পোলাও, মাংসের তরকারি, ফলের সালাদ, শামি কাবাব,  পিঁয়াজু, বেগুনী এবং আরো অনেক মুখরোচক খাবার তৈরি করা হয়। সারাদিন রোজা রাখার  পর ইফতারিতে ও রাতের খাবারে যখন মাংস সমৃদ্ধ ও চর্বি জাতীয় ভারী খাবার বেশি খাওয়া হয় তখন তা পরিপাক তন্ত্রের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে এবং পেট ফাঁপার সমস্যা তৈরি করতে পারে। যাতে এ ধরনের কোন সমস্যায় পড়তে না হয় সেজন্য কিছু স্বাস্থ্যকর টিপস জেনে নিন...।

১। খাবারের সাথে ফল মেশাবেন না :
রোজা ভাঙার সময় ফল খান অথবা খাবার খাওয়ার পরে ফল খান। অন্য খাবারে উপস্থিত খনিজ, চর্বি ও প্রোটিনের সাথে যখন ফল যুক্ত হয় তখন তা হজমে বাঁধার সৃষ্টি করে।

২। সামুদ্রিক খাবার, বাদাম ও মাংসের সাথে পনির যোগ করবেন না :
একবারে উচ্চ ঘনত্বের এক ধরনের প্রোটিনকে হজম করার জন্য আপনার শরীর প্রোগ্রাম করা। তাই একবারে একের অধিক প্রোটিন গ্রহণ করলে তা আপনার পরিপাক তন্ত্রের জন্য জটিলতা সৃষ্টি করে।

৩। সাইট্রাস ফলের সাথে দুধের তৈরি খাবার মিশ্রিত করা এড়িয়ে চলুন :
প্রোটিন ও স্টার্চ একসাথে যোগ করা কোন ভালো ধারণা নয়। চর্বিহীন মাংসের সাথে তাজা সবজি খেয়ে ভারসাম্য রক্ষা করতে পারেন।

সহজ ভাবে নিন :
আপনার খাবার শেষ করার জন্য তাড়াহুড়া করবেন না। সারাদিন রোজা রাখার পর যদি একসাথে অনেক বেশি খাবার খেয়ে ফেলেন তাহলে বদহজম ও গ্যাস্ট্রিকের অন্য সমস্যা হতে পারে। ইফতারের শুরুতে ফল, দই, শরবত বা স্মুদির মত তরল খাবার গ্রহণ করুন।  এর বেশ কিছুক্ষণ পরে মূল খাবার খান। এর ফলে আপনার পাকস্থলী কিছুটা সময় পাবে নিজেকে প্রস্তুত করার জন্য। ফলে সে ঠিকভাবে কাজ করতে পারবে।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে টিকে সিরিজে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো লংকাআখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হয়েছেআজ আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে চলতি বছরের ৫৩ তম বিশ্ব ইজতেমাদক্ষিণ সুুনামগঞ্জে সিরিজ ডাকাতি ॥ জনমনে চরম আতঙ্ক : প্রশাসন নিরবযশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদ
  • ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে টিকে সিরিজে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো লংকাআখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হয়েছেআজ আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে চলতি বছরের ৫৩ তম বিশ্ব ইজতেমাদক্ষিণ সুুনামগঞ্জে সিরিজ ডাকাতি ॥ জনমনে চরম আতঙ্ক : প্রশাসন নিরবযশোরে পৃথক স্থান থেকে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশটঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব : কঠোর নিরাপত্তা বলয়শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদ
উপরে