প্রকাশ : ১৭ জুলাই, ২০১৭ ১২:০৭:১৬
যে লক্ষণগুলো দেখলে বুঝবেন সম্পর্কের মাঝে দূরত্ব সৃষ্টি হচ্ছে
বাংলাদেশ বাণী, লাইফস্টাইল ডেস্ক : সম্পর্ক একঘেয়ে হয়ে উঠলে দূরত্ব বাড়তে থাকে। সম্পর্ক গড়তে যতটা সময় লাগে, তার চেয়ে অনেক বেশি যত্ন নিতে হয় সেই সম্পর্ককে সুন্দর করে তুলতে আর বাঁচিয়ে রাখতে।
সম্পর্ক যখন অভ্যাসে পরিণত হয়, তখন অনেক সময়ই তা একঘেয়ে হয়ে ওঠে। আর এই একঘেয়েমি থেকেই দূরত্ব বাড়তে থাকে সম্পর্কে। এই লক্ষণগুলো দেখলে বুঝবেন আপনাদের মধ্যে দূরত্ব বাড়ছে।

শারীরিক সম্পর্ক :
সম্পর্কে দূরত্ব বাড়তে থাকলে বিশ্বাস কমতে থাকে। যার ফলে শারীরিক সম্পর্কেও দূরত্ব বাড়ে। কারণ, শারীরিক সম্পর্কের সময় একে আপরের কাছে দুর্বলতা প্রকাশ পায়। যৌনতা কমে আসা সম্পর্কে দূরত্ব বাড়ার প্রধান লক্ষণ বলা যেতে পারে।

কী চলছে জানেন না :
সম্পর্কে থেকেও একে অপরের জীবনে কী চলছে না জানা, খবর না রাখা অস্বাভাবিক। কারও সঙ্গে দূরত্ব বাড়াতে হলে আমরা প্রথমেই কথা বলা বন্ধ করে দিই। মনোবিদরা বলে থাকেন, যে কোনও সম্পর্ক নষ্ট করার প্রধান অস্ত্র হল কমিউনিকেশন বন্ধ করে দেওয়া। তাই যদি দেখেন দু’জনের মধ্যে যোগাযোগ, কথার আদান-প্রদান কমে আসছে, বুঝতে হবে দূরত্ব বাড়ছে।

প্রাধান্য :
ভালসাবার মানুষদের আমরা যেমন প্রাধান্য দিই, তেমনই তাদের কাছ থেকে গুরুত্ব পেতেও অভ্যস্ত হয়ে থাকি। সম্পর্কে দূরত্ব বাড়তে থাকলে একে অপরের কাছে প্রাধান্য কমতে থাকে। যদি বুঝতে পারেন সঙ্গীর জীবনে আপনার প্রয়োজনীয়তা কমে আসছে, তা হলে একে অপরের প্রতি আরও বেশি যত্নশীল হওয়ার সময় এসেছে।

এক সঙ্গে মজা করা :
এখন আর আপনার সঙ্গী আপনার সঙ্গে মজা করতে, এক সঙ্গে সময় কাটাতে, উপভোগ করতে বিশেষ উত্সাহ দেখান না? একে অপরের সঙ্গে সময় কাটালেও সেই আনন্দের অনুভূতি এখন আর আসে না? সম্পর্ক একঘেয়ে হয়ে উঠলে দূরত্ব বাড়তে থাকে।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা :
একে অপরের সঙ্গে থাকার স্বপ্ন দেখলে স্বাভাবিক ভাবেই দু’জনে মিলে ভবিষ্যতের পরিকল্পনা করি আমরা। আপনারা কি একে অপরকে ছাড়াই নিজেদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করছেন? নিজেদের প্ল্যানিংয়ে কি একে অপরের জায়গা রয়েছে? দূরত্ব বাড়তে থাকলে আমরা বুঝে ওঠার আগেই একে অপরের জীবন থেকে মুছে যেতে থাকি।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন
  • বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন
উপরে