প্রকাশ : ৩০ জুলাই, ২০১৭ ০০:৪৪:২২
আপনার কি ধনবান ব্যক্তি হয়ে ওঠার খুব ইচ্ছা ?
বাংলাদেশ বাণী, লাইফস্টাইল ডেস্ক : কেউ রাতারাতি ধনী হতে পারেন না। ধনী হওয়ার জন্য চাই সাধনা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ধনীরা এমন কিছু বিষয় জানেন, যা আপনি জানেন না। শুধু তাই নয়, বিষয়গুলো অক্ষরে অক্ষরে পালনও করেন তারা, যা আপনি করেন না। আর এ কারনেই তিনি ধনী, আর আপনি গরীব।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী পত্রিকা ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, ধনী হতে আপনাকে অর্থনৈতিক মুক্তির ওপর চোখ রাখতে হবে। বর্তমানকে উৎসর্গ করতে হবে ভবিষ্যত গঠনের আশায়। এছাড়া রয়েছে আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ উপায়, যেগুলো ধনীরা অক্ষরে অক্ষরে পালন করে থাকেন।

★ তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠা : সকালে ঘুম থেকে ওঠা স্বাস্থ্যসম্মত। বিশেষজ্ঞরা বলেন, সকাল সকাল ঘুম থেকে ওঠলে স্বাস্থ্যবান, জ্ঞানী আর ধনী হওয়া যায়। বেঞ্জামিন ফ্রাঙ্কলিনের ভাষায়, আরলি টু বেড অ্যান্ড আরলি টু রাইজ, মেকস অ্যা ম্যান হেলদি, ওয়েলদি অ্যান্ড ওয়াইজ।
বিশ্বে যারা ধনী তারা এই পন্থা অবলম্বন করেন, যা আপনি করেন না। তারা সকাল সকাল ওঠেই কাজে বেরিয়ে পড়েন। অর্থ আয়ের নেশায় খুঁজে পান বেশি সময়। তাই ধনী হতে চাইলে আপনারও দরকার অর্থ আয়ে সকাল সকাল ঘুব থেকে ওঠে কাজে অতিরিক্ত সময় ব্যয় করা।

★ অতিরিক্ত কাজ করছেন-এমন ধারণা ত্যাগ করা : আপনি অতিরিক্ত কাজ করছেন এই ধারণা আপনার শত্রু হয়ে ওঠতে পারে। সব কাজ করছেন এবং করতে হবে- এমন ধারণা কাজে গড়িমসি ভাব আনতে পারে। যা আপনার ধনী হওয়ার পথে অন্যতম বাধা। তাই ধনী হতে চাইলে এ অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে। জীবনের পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে সম্মুখ পানে।

★ শুরু করা : কোনো কিছু না করার চেয়ে কিছু শুরু করাটা ভালো। তাই দ্রুত ব্যবসায় নেমে পড়তে হবে। তবে এ ক্ষেত্রে সমস্যাও আছে। ছোট কিছু দিয়ে শুরু করলে তার প্রাথমিক ফলও ছোট হবে। তাই বলে ঘাবড়ে গেলে চলবে না। ধৈর্য্য ধরতে হবে। দেখবেন একদিন সাফল্য আসবেই।

★ মিতব্যয়ী হওয়া : অকারণেই অর্থ অপচয় করা থেকে বিরত থাকতে হবে। হতে হবে মিতব্যয়ী। আপনি যদি আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি করেন, সেটা হবে সম্পদ অর্জনের অন্তরায়। সুতরাং মাসিক খরচ কোথায় কত করলেন সেটা লক্ষ্য করতে হবে। খরচ কমানোর উপায় বের করে বাস্তবসম্মত বাজেট তৈরি করতে হবে।
তাই ক্রেডিট কার্ড বয়ে বেড়ানোর মানসিকতা পরিহার করতে হবে। যেখানে সেখানে অর্থ ব্যয় থেকে থাকতে হবে বিরত।

★ গরীবের মতো জীবনযাপন করা : আমাদের চারপাশে অনেকেই আছে যারা ধনী কিন্তু তাদের চলাফেরায় সেটা বোঝা যায় না। তারা শুধু টাকা সঞ্চয় করেন। মানুষের সামনে বড়লোকী ভাব দেখান না। এটার উপকারিতা হচ্ছে আপনাকে কম খরচ করাতে শেখাবে।

★ প্রলোভন এড়িয়ে চলা : অর্থ আয় করতে হবে, অর্থ সঞ্চয় করতে হবে। তার মানে এটা নয় যে, আপনাকে কারো প্রলোভন জালে জড়াতে হবে। কারণ অতিরিক্ত প্রলোভন ভালো নয়। আপনার ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে এমন প্রলোভন সর্বদাই এড়িয়ে চলুন। প্রলোভনকে তৈরি করুন অর্থ আয়ের মাধ্যম হিসেবে।

★ শিক্ষিত হওয়া : ধনী হওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ উপায় হচ্ছে শিক্ষিত হওয়া। শিক্ষা ছাড়া আপনি কোথাও উন্নতি করতে পারবেন না। বিশেষ করে একজন সফল বিনিয়োগকারী হিসেবে নিজেকে গড়তে দরকার অর্থনৈতিক ধারণা। তাই বেশি করে জানতে হবে দৈনন্দিন খবর, অর্থনৈতিক খবর।

★ অর্থ তৈরিতে অর্থ ব্যয় করা : অর্থ ব্যয় করুন, বিনিয়োগ করুন। তবে তা শুধু ব্যয় নয়, এর মাধ্যমে কিভাবে সঞ্চয় বাড়ানো যায়, নতুন করে অর্থ তৈরি করা যায়, সে বিষয়ে ভাবুন।

★ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে অর্থকে দুই ভাগে ভাগ করা : বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কখনই এক ঝুড়িতে সব অর্থকে ঢেলে ফেলবেন না। বিনিয়োগ করার আগে অবশ্যই হাতে কিছু সঞ্চয় রেখে দিতে হবে। এটা আর বিনিয়োগকৃত অর্থকে ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচাবে।

তথ্যসূত্র : ফেসবুক, ছবি : ইন্টারনেট ।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ত্রাণ কার্যক্রমের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেসর্তকতার সঙ্গে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে কাজ করছে সরকার : ওবায়দুল কাদের‘বাংলাদেশেও হতে পারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিচার’বিএনপির সঙ্গে কোন রাজনৈতিক সমঝোতা নাকচ করে দিলেন প্রধানমন্ত্রীট্রাম্প হচ্ছেন ‘আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে নবাগত দুষ্টু ব্যক্তি’: ইরানের প্রেসিডেন্টমিয়ানমারের সিত্তুয়েতে রোহিঙ্গাদের জন্য রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলাজলি আত্মহত্যা প্ররোচণা মামলার চার্জশিট -‘সঠিক জবানবন্দি উপস্থাপন করতে পারেনি পুলিশ’রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরী মানবিক সহায়তা ২৬২ কোটি ৩ লাখ টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ‌‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আপনাদের ঐক্য প্রদর্শন করুন’ : ওআইসিকে প্রধানমন্ত্রীপৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রী
  • সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ত্রাণ কার্যক্রমের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেসর্তকতার সঙ্গে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে কাজ করছে সরকার : ওবায়দুল কাদের‘বাংলাদেশেও হতে পারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিচার’বিএনপির সঙ্গে কোন রাজনৈতিক সমঝোতা নাকচ করে দিলেন প্রধানমন্ত্রীট্রাম্প হচ্ছেন ‘আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে নবাগত দুষ্টু ব্যক্তি’: ইরানের প্রেসিডেন্টমিয়ানমারের সিত্তুয়েতে রোহিঙ্গাদের জন্য রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলাজলি আত্মহত্যা প্ররোচণা মামলার চার্জশিট -‘সঠিক জবানবন্দি উপস্থাপন করতে পারেনি পুলিশ’রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরী মানবিক সহায়তা ২৬২ কোটি ৩ লাখ টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ‌‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আপনাদের ঐক্য প্রদর্শন করুন’ : ওআইসিকে প্রধানমন্ত্রীপৌর অবকাঠামো উন্নয়নে ২০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে এডিবিরোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ট্রাম্পেররোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা আহ্বান সুকি'র রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধে এটাই সুচি’র শেষ সুযোগ : জাতিসংঘ মহাসচিব দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণ : পুলিশের দাবী সন্ত্রাসী হামলাজাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেনমিয়ানমারের আকাশসীমা লংঘনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশমানুষকে খাদ্য নিয়ে কষ্ট পেতে দেব না : সংসদকে প্রধানমন্ত্রীরাখাইন রাজ্যের বর্তমান সংকটে যুক্তরাষ্ট্রের গভীর উদ্বেগ প্রকাশমানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীএ সমস্যা মিয়ানমার তৈরি করেছে-রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তাদেরকেই করতে হবে : সংসদকে প্রধানমন্ত্রী
উপরে