প্রকাশ : ০৫ আগস্ট, ২০১৭ ০১:৪০:৪৪
রোহিঙ্গা ইস্যুতে ওআইসি মিয়ানমারের উপর চাপ সৃষ্টি করবে : ওআইসি মহাসচিব
বাংলাদেশ বাণী, বিশেষ প্রতিবেদক : বাংলাদেশ সফররত ইসলামী সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) মহাসচিব ড. ইউসুফ বিন আহমদ আল-ওসাইমিন রোহিঙ্গাদের মৌলিক মানবাধিকার লংঘিত হচ্ছে উল্লেখ করে বলেছেন, ওআইসি এ বিষয়ে মিয়ানমারের উপর চাপ সৃষ্টি করবে। যাতে করে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফেরত যেতে পারে।

ওআইসি মহাসচিব রোহিঙ্গাদের সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশকে ১ লাখ ডলার প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি শুক্রবার কক্সবাজার ও রাজধানী ঢাকায় পৃথকভাবে এসব কথা বলেছেন।
ওআইসি মহাসচিব শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর আগারগাঁওস্থ ইসলামিক ফাউন্ডেশন সভাকক্ষে আয়োজিত আলেম-ওলামাদের সাথে মতবিনিময় করেন।
উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। ধর্মসচিব মোঃ আব্দুল জলিল ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক এতে বক্তৃতা করেন।

ওআইসি মহাসচিব পরে রাজধানীর আগারগাঁও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নবনির্মিত ‘হালাল ডায়াগনস্টিক ল্যাবরেটরী’ উদ্বোধন করেন। বিভিন্ন ভোগ্যপণ্যের হালাল অবস্থান নিরূপণের জন্য হালাল সার্টিফিকেট প্রদানের লক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশন এই হালাল ল্যাবরেটরী প্রতিষ্ঠা করেন।

মতবিনিময়ে ওআইসি মহাসচিব বলেন, রোহিঙ্গাদের মৌলিক মানবাধিকার লংঘিত হচ্ছে। তাঁরা বাঁচার জন্য সংগ্রাম করছে। বাংলাদেশ সরকার আশ্রয় দিচ্ছে। তাদেরকে সাহায্য করছে। ওআইসি মহাসচিব রোহিঙ্গাদের সাহায্য করার জন্য বাংলাদেশকে ১ লাখ ডলার প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।

ওআইসি মহাসচিব বিশ্বব্যাপি হালাল পণ্যের চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে উল্লেখ করে বলেন, বর্তমানে সারা বিশ্বে প্রায় ২.৩ ট্রিলিয়ন ডলারের হালাল ভোগ্যপণ্যের বাজার রয়েছে। ওআইসি হালাল পণ্যের বাজার তৈরিতে ভূমিকা রাখছে।

এরআগে ওআইসি মহাসচিব শুক্রবার সকালে কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে বিমান যোগে কক্সবাজার এসে তিনি দুপুর সাড়ে ১২ টায় উখিয়ায় কুতুপালং নিবন্ধিত ক্যাম্পে যান। এরপর তিনি অনিবন্ধিত ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

উখিয়া ক্যাম্প পরিদর্শনকালে রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বর্বরতার বর্ণনা শুনে দুঃখ প্রকাশ করেন ওআইসি মহাসচিব। এই সময় মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গা নাগরিকদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করেন ওআইসি মহাসচিব। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জন্য বাসস্থান, চিকিৎসা ও খাবার সামগ্রী ব্যবস্থা করায় বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

ওআইসিভুক্ত রাষ্ট্রসহ বিশ্বের সকল দেশকে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে মিয়ানমার সরকারের উপর চাপ প্রয়োগ করার আহবান জানান ওআইসি মহাসচিব। যেসব দেশ রোহিঙ্গা সমস্যার কথা এখনো জানেনা তাদেরকে বাংলাদেশে এসে তাদের সঙ্গে কথা বলার আহবানও জানান তিনি।

কুতুপালং ক্যাম্পে পৌঁছে ওআইসি মহাসচিব আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) পরিচালিত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার ১৭ রোহিঙ্গার সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় রোহিঙ্গারা তাদের উপর ভয়াবহ নির্যাতনের কথা জানান।
এরপর তিনি জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা ও এনজিও কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • সিকান্দারের ব্যাটিং নৈপুণ্যে : স্বাগতিকরা ৪০ রানে হারিয়েছে সিলেট সিক্সার্সকেইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনি মধ্যপ্রাচ্যের ‘নয়া হিটলার’ : সৌদি যুবরাজবঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি যথাযথ মর্যাদায় সারা দেশে উদযাপন আজআওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষের সত্যিকার উন্নতি হয় : প্রধানমন্ত্রী দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন শেষ হয়েছেজার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও
  • সিকান্দারের ব্যাটিং নৈপুণ্যে : স্বাগতিকরা ৪০ রানে হারিয়েছে সিলেট সিক্সার্সকেইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনি মধ্যপ্রাচ্যের ‘নয়া হিটলার’ : সৌদি যুবরাজবঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি যথাযথ মর্যাদায় সারা দেশে উদযাপন আজআওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষের সত্যিকার উন্নতি হয় : প্রধানমন্ত্রী দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন শেষ হয়েছেজার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও
উপরে