প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর, ২০১৭ ০২:১৯:২৮
ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ :
নিপীড়িত মানুষকে তাদের অধিকার আদায়ের সংগ্রামকে উজ্জীবিত করবে
বাংলাদেশ বাণী, ডেস্ক রিপোর্ট : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়ায় শনিবার বিকেলে রাজধানীসহ সারাদেশে আনন্দ শোভাযাত্রা ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এ উপলক্ষ্যে কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দ্দী উদ্যানে আয়োজিত এক সমাবেশে সরকারের দু’জন সিনিয়র সচিব তাদের বক্তৃতায় বলেন, বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বজুড়ে নতুন প্রজন্মের কাছে দেশও জাতি গঠনে প্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে। তারা বলেন, মানবতা ও নিপীড়িত মানুষকে তাদের অধিকার আদায়ের সংগ্রামকে যুগে যুগে উজ্জীবিত করবে। খবর : বার্তা সংস্থা বাসসের।

এর আগে সরকারের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা পৃথক আনন্দ শোভাযাত্রাসহকারে এ সমাবেশে যোগ দেয়।

এই সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সমাবেশের শুরুতেই মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যলয়ের মুখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বক্তব্য রাখেন।
বিকেল ৩টা ২০ মিনিটে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ প্রচারের সময় সমাবেশস্থল ‘যেন ফিরে যায় ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চের ৩টা ২০ মিনিটে’। ১৯৭১ সালে ব্ঙ্গবন্ধু একই স্থানে ঠিক একই সময়ে এই ভাষণ দিয়েছিলেন।

সমাবেশে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচারের পর-পরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষণ দেন। তিনি বলেন, ইতিহাস বিকৃতকারীরা যে আর ক্ষমতায় আসতে না পারে সেই জন্য সবাইকে সব সময় সজাগ ও সর্তক থাকতে হবে। নতুন প্রজন্মকে জাতির পিতার ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের মর্ম কথা সম্পর্কে সচেতন করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ যেন সামনের দিকে এগিয়ে যায় এবং ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করতে পারে তার উদ্যোগ নিতে হবে।

এ উপলক্ষে শনিবার রাজধানীসহ দেশের সকল জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে আনন্দ মিছিল, রচনা ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় এবং প্রদর্শন করা হয় মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র। এছাড়া বিদেশে বাংলাদেশের মিশনসমূহেও বিভিন্ন অনুষ্ঠান পালিত হয়।

সমাবেশে শফিউল আলম বলেন, ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণকে বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে স্বীকৃিত দেয়ার সরকার এই কর্মসূচি উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই স্বীকৃতি সমগ্র জাতির জন্য এক বিরাট অর্জন।

ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণটি হচ্ছে বিশ্বের শ্রেষ্ট ভাষণ। স্মৃতিময় এই স্থানে এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম, জয়বাংলা ধ্বনি উচ্চারিত হয়েছিল। এখানেই পাক হানাদার বাহিনী ১৯৭১ সালে আত্মসপর্মণ করেছিল। ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি পাকিস্তানের কারাগার থেকে ফিরে এখানেই স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য দেশবাসীকে আহবান জানিয়েছিলেন।

৭ই মার্চের ভাষণের এই ঐতিহাসিক স্থান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অভিমুখে দুপুর থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে আনন্দ মিছিল নিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমবেত হন। স্থান সংকুলান না হওয়ায় বিপুল সংখ্যক মানুষ রমনা পার্কে অবস্থান নেন। সমাবেশে মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবর্গ, বিশিষ্ট রাজনীতিক, সংসদ সদস্য, মুক্তিযোদ্ধা, সংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ, ক্রিড়াবিদ, শিক্ষার্থীগণ অংশগ্রহণ করেন।

প্রধান অতিথি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণের পর মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠনের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, সকল জেলা ও উপজেলা পর্যায়েও তথ্য মন্ত্রণালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর কার্যালয়, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর কার্যালয় একইভাবে সমাবেশ তদারকি করেন।
বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতারে বিশেষ অনুষ্ঠান সম্প্রচার ও সংবাদপত্রসমূহে বিশেষ নিবন্ধ প্রকাশ করে।
গত ৩০ অক্টোবর ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দেয়া ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
উপরে