প্রকাশ : ২৯ মে, ২০১৮ ০৩:১২:৪৯
বিএসটিআই আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা
বাংলাদেশ বাণী, বিশেষ প্রতিবেদক : মন্ত্রিসভা স্ট্যান্ডার্ড এন্ড টেস্টিং আইন লংঘনের বিরুদ্ধে কঠোর ধারা সংযোজনসহ বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) আইন-২০১৮ এর খসড়া অনুমোদন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আজ (সোমবার) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক সভায় এই অনুমোদন দেয়া হয়।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. শফিউল আলম সভা শেষে বাংলাদেশ সচিবালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, এই নতুন আইন বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন অধ্যাদেশ-১৯৮৫ এর স্থলাভিষিক্ত হবে। খবর : বার্তা সংস্থা বাসস অবলম্বনে।

লাইসেন্স ব্যতিরেকে স্ট্যান্ডার্ড ছাপ ব্যবহারের জন্য এই নতুন আইনে পূর্ববর্তী ছয়মাস জেল ও ১৫ হাজার টাকা জরিমানার বদলে দুই বছরের জেল ও ন্যূনতম ২৫ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা জরিমানা প্রস্তাব করা হয়েছে। নতুন আইনে রেজিস্ট্রেশন ছাড়া ব্যবহৃত পণ্য বাজেয়াপ্ত করারও প্রস্তাব রাখা হয়েছে।

রফতানি লাইসেন্স আইনের কোন প্রকার লংঘনের ক্ষেত্রে পরবর্তী কেবলমাত্র এক বছরের জেলের পরিবর্তে নতুন খসড়ায় এক বছরের কারাদণ্ড এবং ন্যূনতম দশ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানার প্রস্তাব করা হয়েছে।
এই আইন অনুযায়ী সরকার বিএসটিআই এর সঙ্গে আলোচনা ও গেজেট নোটিশের ভিত্তিতে পণ্যের বিক্রি, বিপণন ও বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধের ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারবে।

সরকারি গেজেট অমান্য করে পণ্য বিক্রয়, বন্টন ও বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপনের জন্য খসড়া আইনটিতে চারবছরের কারাদন্ড এবং ন্যূনতম ৫০ হাজার টাকা ও সর্বোচ্চ দুই লাখ টাকা জরিমানা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। এর আগে এ আইনে চারবছর কারাদন্ডের এবং ন্যূনতম ৭ হাজার টাকা ও সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা জরিমানা করার নিয়ম ছিলো।

আইনের খসড়ায় এমন একটি সাধারণ বিধান রাখা হয়েছে, যার অধীনে একজন ব্যক্তিকে এ আইনে কোন অপরাধের জন্য যদি বিচার করা হয়, সেই অপরাধের শাস্তি হয় বিশেষ ভাবে না করার পরিবর্তে ওই ব্যক্তিকে সর্বনিম্ন ২৫ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা জরিমানা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

দ্বিতীয়বার একজন ব্যক্তি একই অপরাধ করার জন্য আইনটিতে দ্বিগুণ কারাদন্ড ও জরিমানার প্রস্তাব করা হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, দন্ডিত ব্যক্তি তিন মাসের মধ্যে অথবা সরকার নির্ধারীত সময়ের মধ্যে দন্ডের বিরুদ্ধে সরকার বরাবর আবেদন করতে পারবে।
মন্ত্রিসভা ২০১১ সালের নীতিমালা সংস্কারের মাধ্যমে জাতীয় পাট নীতি-২০১৮ অনুমোদন করেছে।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, নতুন পাট নীতির ভিশন ও মিশন (উদ্দেশ্য ও আদর্শ) হচ্ছে-স্থানীয় ও বৈশ্বিক বাজারের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় পাট শিল্পকে শক্তিশালী করা, উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি, কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি এবং বিনিয়োগের মাধ্যমে পরিবেশ বান্ধব পাট উৎপাদন।

শফিউল আলম বলেন, নীতিমালায় পাঁচটি বিষয়ের ওপর কৌশলগত অগ্রাধিকার প্রদান করা হয়েছে : মানসম্পন্ন পাট উৎপাদন, পাটের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতকরণ, পাটের বহুমুখীকরণ, পাটকলের আধুনিকায়ন এবং পাটের বাজার সম্প্রসারণ।
সর্বশেষ সংবাদ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
  • এনটিআরসিএ'র নতুন চেয়ারম্যান পদে আশফাক হোসেনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকারমানুষের স্বচ্ছতা বাড়ায় প্রতিবছর দেশে পূজা মণ্ডপ বাড়ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী“দেশে কোন সংখ্যালঘু নেই” : র‌্যাবের মহাপরিচালক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে-মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনায় প্রভাব পড়বে না : সিইসিবাসাবাড়ি'র গ্যাসের মূল্য আপাতত বাড়ছে না : বিইআরসিঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জন্য দেড় বিঘা জমি প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীবাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে‘তিতলি’'র প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস : ভূমিধসের আশঙ্কাপ্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সে নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতু’ উদ্বোধনভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র আঘাতে ৮ জনের প্রাণহানি : ক্রমশ: দুর্বল হচ্ছেএকুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড ❏ তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার মামলা ❏ বিচারের ঐতিহাসিক রায় আজসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করেছে সরকারবিশ্ব বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজদুর্যোগ কবলিত ইন্দোনেশিয়া লম্বা হচ্ছে লাশের মিছিলনেপালকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন শিরোপা বাংলাদেশের ঘরে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াআজ থেকে ২২ দিন প্রজনন মৌসুমে দেশে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ
উপরে