প্রকাশ : ২২ অক্টোবর, ২০১৭ ০১:৪২:৩৫
জোয়ারের পানিতে আমতলী উপজেলার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে ৩০ গ্রাম প্লাবিত
বাংলাদেশ বাণী, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি : জোয়ারের পানিতে বরগুনার আমতলী উপজেলার পশ্চিম ঘটখালী, বালিয়াতলী ও তেতুঁলবাড়িয়ার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে ৩০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে উপজেলার ৫০ হাজার মানুষ। পানিতে তলিয়ে গেছে ফসলি জমিসহ মাছের ঘের। শনিবার (২১ অক্টোবর) স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৬ ফুটেরও বেশি পানি বৃদ্ধি পেয়ে সাগর ও পায়রা নদী তীরবর্তী নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যায়।

এদিকে, বৈরি আবহাওয়া ও গত তিনদিন ধরে প্রবল বর্ষণে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। শ্রম ও দিনমজুর মানুষ অর্ধাহার অনাহারে দিনাতিপাত করছে। কলাপাড়া আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানাগেছে, গত ২৪ ঘন্টায় ১৬৯ মিলি মিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আগামী দুদিন বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।বরগুনার পানি উন্নয়ন বোর্ড অফিস সূত্রে জানাগেছে, স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৬ ফুন পানি বৃদ্ধি পেয়ে সাগর ও পায়রা নদী তীরবর্তী নিুাঞ্চলের বাড়ি-ঘর তলিয়ে গেছে। পশ্চিম ঘটখালী বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ভাঙা অংশ দিয়ে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে বৈঠাকাটা, বেতমোড়, গিলাতলী, ঘটখালী, পশ্চিম ঘটখালী, বাঁশতলা, চালিতাবুনিয়া ও পাতাকাটা গ্রামের ২০ হাজার মানুষ চরম দুর্ভোগে পরেছে। জোয়ারের পানিতে ওই এলাকার বাড়িঘরসহ আমনের ক্ষেত তলিয়ে গেছে।

এদিকে, আমতলীর বালিয়াতলী আনকবাড়ী বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে ঘোপখালী, বালিয়াতলী, পশুরবুনিয়া, আড়পাঙ্গাশিয়া, যুগিয়া ও চরকগাছিয়া গ্রাম প্লাবিত হয়। এছাড়া জোয়ারের পানিতে পশ্চিম আমতলী, পৌর শহরের ফেরীঘাট, পুরাতন লঞ্চঘাট, আমুয়ার চর, পানি উন্নয়ন বোর্ড, আক্সগুরকাটাসহ ২০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। শনিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখাগেছে, বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ভাঙা বাঁধ দিয়ে প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করছে। পশ্চিম ঘটখালী গ্রামের নজরুল ইসলাম বলেন, পায়রা নদী সংলগ্ন স্থানে আমার ঘরবাড়ি জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে।

গাজীপুর বন্দরের সোহেল রানা বলেন, বন্দরের ৪ শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পানিতে তলিয়ে গেছে।তালতলীর তেতুঁলবাড়িয়া গ্রামের জসিম প্যাদা বলেন, জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়ে সেলিম চৌকিদার বাড়ির নিকট থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৫০ মিটার বাঁধ ভেঙে ভিতরে পানি প্রবেশ করে তেতুঁলবাড়িয়া ও নলবুনিয়া গ্রাম পানিতে প্লাবিত হয়েছে।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সরোয়ার হোসেন বলেন, প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করেছি। বরগুনা জেলা প্রশাসককে জানানো হয়েছে। সাহায্য পেলে দুর্গতদের মাঝে বিতরণ করা হবে।বরগুনা পানি উন্নয়র বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মশিউর রহমান বলেন, স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৬ ফুট পানি বৃদ্ধি পেয়ে নিুাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পশ্চিম ঘটখালী বাঁধ এলাকা আমি পরিদর্শন করেছি। এখন অতিরিক্ত জোয়ারের পানিতে বাঁধ বেধে রাখা যাবে না। জোয়ারের চাপ কমলেই বাঁধ দেয়া হবে।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
  • ঢাকা উত্তর সিটি'র উপ-নির্বাচনে আদালতের ৩ মাসের স্থগিতাদেশসুন্দরবনের ৩ কুখ্যাত জলদস্যুবাহিনীর প্রধানসহ ৩৮ জনের আত্মসমর্পণজাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণ : ভবিষ্যতে বাংলাদেশে জাতীয় ঐক্যের দাবি প্রধানমন্ত্রী'ররাজধানী'র জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের সফল অভিযান : ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধারপদোন্নতি পেলেন বঙ্গবন্ধু'র খুনিদের গ্রেফতারকারী প্রথম পুলিশ অফিসারবিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীআম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বরাজধানীতে তীব্র গ্যাস সংকট : জনমনে ক্ষোভ জঙ্গি ও অন্যান্য অপরাধ দমনে পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে : আইজিপিঅর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি'র সভায় ১৩টি প্রকল্প অনুমোদনপুলিশকে আমি সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চাই : প্রধানমন্ত্রীফারমার্স ব্যাংক কর্তৃক-জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলসহ আমানতকারীদের অর্থ ফেরত না দেয়ায় টিআইবি’র উদ্বেগসুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিনিয়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ : এইচ. এম. এরশাদজঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পুলিশের সাফল্য দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রীমাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছেযশোরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী পালসার বাবু নিহতদেশজুড়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ উৎসব২০১৭'র বিদায় : নতুন বছর ২০১৮ কে বরণ করে নিল জাতিঅগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি ॥ যথা সময়ে শেষ হবে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ : কাদেররাবির স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু ২১ জানুয়ারি
উপরে