প্রকাশ : ০৫ নভেম্বর, ২০১৮ ০৪:১৪:১২
সুন্দরগঞ্জে তিস্তা নদীর ভাঙ্গন অব্যাহত : হুমকির মুখে জনবসতি
বাংলাদেশ বাণী, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় তিস্তা নদীর ভাঙ্গন অব্যাহত থাকায় হুমকির মুখে পড়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাট-বাজার, বসত বাড়ি, আবাদি জমিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।
তিস্তা নদীর পানি কমতে শুরু করায় তীব্র সোতে নদী ভাঙ্গন ভয়াবহ রুপ নিচ্ছে। গত কয়েক দিনের নদী ভাঙ্গনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাট-বাজার, বসত বাড়ি, আবাদি জমিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে। ইতোমধ্যে ৫ শতাধিক বসতবাড়ি কয়েক’শ হেক্টর আবাদি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে।

নদী ভাঙ্গন কবলিত এলাকাগুলি হচ্ছে হরিপুর ইউনিয়নের কারেন বাজার, হরিপুর খেয়াঘাট, উজান তেওড়া, লখিয়ারপাড়া, চর মাদারীপাড়া, রাঘব, কাপাশিয়া ইউনিয়নের লালচামার, পূর্ব লালচামার, কাপাশিয়া, কঞ্চিবাড়ি ইউনিয়নের ছয়ঘড়িয়া, চন্ডিপুর ইউনিয়নের উজান বোচাগাড়ী, বোচাগাড়ী, শ্রীপুর ইউনিয়নের দক্ষিণশ্রীপুর ও বেলকা ইউনিয়নের তালুক বেলকা।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পওর) বিভাগ গাইবান্ধা উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সেলিম হোসেন জানান ভাঙ্গন এলাকাগুলো পরিদর্শন করে ভাঙ্গন রোধের জন্য প্রকল্প জরুরি ভিত্তিতে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। প্রকল্প অনুমোদন হলেই ভাঙ্গন রোধের জন্য কাজ করা হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সোলেমান আলীর বলেন, নদী ভাঙ্গন এলাকার ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের মাঝে চাল ও টিন বিতরণ করা হবে।

     
                                                   
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • আজ পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী (সা.) : রাষ্টপতি ও প্রধানমন্ত্রী’র পৃথক বাণীবিদেশি টিভি চ্যানেলে দেশিপণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ রাজধানীতে ট্রাফিক আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে ট্রাফিক বিভাগের অভিযানআগামী বুধবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) : পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালানাজমুল হুদার আপিল খারিজ করে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশঐক্যফ্রন্টে ফাঁটল ! তারেক জিয়া মুল নেতৃত্বে ড. কামাল কর্তৃত্বহীনভারতের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে ঘূর্ণিঝড় গাজা'র আঘাতে মৃতের সংখ্যা ৩৩ জনতারেকের ভিডিও কনফারেন্সের বিষয়ে আইন পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে ইসি কমিশন চায় না নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হোক : সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি ইসিনয়া পল্টনে পুলিশের ওপর অতর্কিত আক্রমণ ছিল পূর্ব পরিকল্পিত : ডিএমপি কমিশনার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৭-১০ দিন আগে মাঠে সেনা মোতায়েন থাকবে : ইসি সচিবঢাকা টেস্ট : জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানে বিধ্বস্ত করলো স্বাগতিক বাংলাদেশনির্বাচন পেছানোর আর সুযোগ নেই : ইসি সচিবকোন প্রার্থী যেন বঞ্চিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে : সিইসিঢাকা টেস্ট : জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট দলীয় সরকারের অধীনে থেকে এবারের নির্বাচন ইতিহাস সৃষ্টি করবে : সিইসিজাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর সিদ্ধান্ত আজনতুন রাজনৈতিক জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেজাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রথম দিনে ১৭শ’ সংগ্রহ ১৪ নভেম্বর মধ্যে নির্বাচনের প্রার্থীদের আগাম প্রচার সামগ্রী অপসারণের নির্দেশ ইসি’র
  • আজ পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী (সা.) : রাষ্টপতি ও প্রধানমন্ত্রী’র পৃথক বাণীবিদেশি টিভি চ্যানেলে দেশিপণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ রাজধানীতে ট্রাফিক আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে ট্রাফিক বিভাগের অভিযানআগামী বুধবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) : পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালানাজমুল হুদার আপিল খারিজ করে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশঐক্যফ্রন্টে ফাঁটল ! তারেক জিয়া মুল নেতৃত্বে ড. কামাল কর্তৃত্বহীনভারতের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে ঘূর্ণিঝড় গাজা'র আঘাতে মৃতের সংখ্যা ৩৩ জনতারেকের ভিডিও কনফারেন্সের বিষয়ে আইন পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে ইসি কমিশন চায় না নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হোক : সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি ইসিনয়া পল্টনে পুলিশের ওপর অতর্কিত আক্রমণ ছিল পূর্ব পরিকল্পিত : ডিএমপি কমিশনার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৭-১০ দিন আগে মাঠে সেনা মোতায়েন থাকবে : ইসি সচিবঢাকা টেস্ট : জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানে বিধ্বস্ত করলো স্বাগতিক বাংলাদেশনির্বাচন পেছানোর আর সুযোগ নেই : ইসি সচিবকোন প্রার্থী যেন বঞ্চিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে : সিইসিঢাকা টেস্ট : জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট দলীয় সরকারের অধীনে থেকে এবারের নির্বাচন ইতিহাস সৃষ্টি করবে : সিইসিজাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর সিদ্ধান্ত আজনতুন রাজনৈতিক জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেজাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রথম দিনে ১৭শ’ সংগ্রহ ১৪ নভেম্বর মধ্যে নির্বাচনের প্রার্থীদের আগাম প্রচার সামগ্রী অপসারণের নির্দেশ ইসি’র
উপরে