প্রকাশ : ০২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০২:২২:১৭
সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বাধীনতার অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবো : আজিজুস সামাদ ডন
বাংলাদেশ বাণী, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শোকবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ৩১ আগস্ট  জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্দ্যেগে বিশাল শোকর‌্যালি, দোয়া মাহফিল ও শিরনী বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
র‌্যালিটি সকাল ১১ টায় জগন্নাথপুর মাদ্রাসা পয়েন্ট থেকে শুরু করে থানা পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটোরিয়ামে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। উক্ত শোক র‌্যালী কে এ যাবত কালের শ্রেষ্ঠ র‌্যালী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলহাজ্ব আব্দুস সামাদ আজাদের পুত্র আজিজুস সামাদ আজাদ ডন।

তিনি এক সাক্ষাতকারে বলেন, জগন্নাথপুরের মাটি আওয়ামীলীগের ঘাটি। এছাড়াও বৃহস্পতিবারের এ র‌্যালী জগন্নাথপুরের মাটিতে শ্রেষ্ঠ শোক র‌্যালী দাবী করেন তিনি। কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাবেক সহ সম্পাদক এ নেতা বলেন, ঘাতকরা আমাদের মহান নেতাকে স্বপরিবারে এ মাসে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল, আর আজও সেই পারাজিত শক্তিরা ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তারা প্রতিবার এ মাসকেই বেচে নেয়। তারা ২১ আগস্ট ও আমাদের প্রাণের স্পন্দন জননেত্রী শেখ হাসিনার উপর গ্রেনেড হামলা চালিয়েছিল।

আজিজুস সামাদ ডন বলেন, বাংলাদেশে লক্ষ লক্ষ নেতা কর্মী আছে। আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বাধীনতার অপশক্তিদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবো। প্রয়োজনে জীবন দিয়ে ও এদেশের ১৮ কোটি মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল জননেত্রী শেখ হাসিনার জীবন রক্ষা করবো।

তিনি বলেন, পাকিস্থানের পরাজিত শক্তিরা ১৫ আগস্টে পিতার স্বপরিবার কে হত্যাকরে দেশকে পাকিস্তানী ভাবদ্বারায় পরিচালিত করার ষড়যন্ত্র করেছিল। পরবর্তীতে পাকিস্তনী দোসর জামাত কে পুনর্বাসন করে এবং জাতীয় পতাকা তুলে দিয়ে সেই পথেই নিয়ে যাচ্ছিলো বিএনপি।

কিন্তু বাঙালির আশা আকাক্ষার প্রতীক জননেত্রী শেখ হাসিনা ভাগ্যক্রমে বেঁচে যাওয়ায় এবং পরবর্তীতে দেশে আসায় পাকিস্তানী প্রেতাত্মাদের সেই স্বপ্ন মলিন হয়ে যায়। শেষ মরণ কামড় হিসেবে তারা আরেকটি ১৫ আগস্ট জন্ম দিতে এবং আওয়ামীলীগ নেতৃত্ব শুন্য করতে ২১ আগস্ট আওয়ামীলীগের জনসভায় গ্রেনেড হামলা করে শেখ হাসিনা কে হত্যা করতে চেয়েছিল। কিন্তু আবারো আল্লাহর দয়ায় তিনি বেঁচে যান। আজ সেই শেখ হাসিনা বাংলাদেশ কে একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে কাজ করে যাচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে দ্রুত ফাসী কার্যকরের পাশাপাশি ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলা দ্রুত সম্পন্ন করে জড়িতদের শাস্তির দাবী জানান। এ সময় নিহত সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।

পৌর মেয়র আব্দুল মনাফের সভাপতিত্বে এবং জয়দীপ বীরেন্দ্র ও ছালিক আহমদ পীর’র যৌথ পরিচালনায়, অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য সৈয়দ সাবির মিয়া, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান সুফি মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আবদুল হাসিম, আওয়ামী লীগ নেতা শহিদুল ইসলাম বকুল, পশ্চিম পাগলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি জগলুল হায়দার, মাস্টার সিরাজ উদ্দিন, আব্দুল কাদির, নুরুল ইসলাম, আলী হায়দার, ওবায়দুর রহমান কুবাদ, তাজউদ্দীন আহমদ, আব্দুল কাদির, আবাব মিয়া, মিন্টু রঞ্জন ধর, জাহির উদ্দিন, জমসেদ মিয়া, সেলিম রেজা, হাবিবুর রহমান হাবীব, কালী কুমার রায়, আনোয়ার কুরেসী, জয়নুল কুরেসী, নাছির উদ্দিন, মনজুর আজাদ পাভেল, সামছুন্নুর,ইমাদ প্রমুখ।

পরে আবদুস সামাদ আজাদ অডিটোরিয়ামে দোয়া ও শিরনী বিতরণ করা হয়। এর আগে সকালে উপজেলার শ্রীরামসিতে গণহত্যায় নিহত শহীদদের স্মরণে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন আজিজুস সামাদ আজাদ ডন।
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে