প্রকাশ : ২৫ নভেম্বর, ২০১৮ ০৩:৩৯:৪৭
চৌগাছায় এমপি মনিরের নেতৃত্বে সরকারের বিগত ৫ বছরে স্মরণকালের উন্নয়ন
বাংলাদেশ বাণী, চৌগাছা (যশোর) থেকে এইচ এম ফিরোজ : যশোরের চৌগাছায় আওয়ামী লীগ সরকারের বিগত পাঁচ বছরে অভূতপূর্ব স্মরণকালের উন্নয়ন সম্পন্ন হয়েছে। আর এসকল উন্নয়নের নেতৃত্ব দিয়েছেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও যশোর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনির।
এতো কম সময়ে যে উপজেলার শত, শত কিলোমিটার সড়ক ছিল কাঁচা। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়া এখন সেখানে কাঁচা সড়ক মেলায় দায়। উপজেলা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থি চৌগাছা ডিগ্রি কলেজ ও চৌগাছা শাহাদৎ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে জাতীয় করণ করা হয়েছে। কপোতাক্ষ নদের উপরে প্রায় ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে দু’দুটি ব্রিজ নির্মাণ করা হয়েছে।

উপজেলা দুটির বিভিন্ন দপ্তর সূত্রে জানাগেছে, পাঁচ বছরে চৌগাছাও ঝিকরগাছা উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনা হয়েছে। দু’উপজেলার কয়েকশত কিলোমিটার সড়ক পিচঢালা পাকা সড়কে উন্নীত করা হয়েছে।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, মুক্তিযোদ্ধাদের বসত-বাড়ি নির্মান থেকে শুরু করে সৌর বিদ্যুতের মাধ্যমে আলোকিত করা হয়েছে গ্রামের পর গ্রাম। সৌরবিদ্যুতের স্ট্রীট লাইট দিয়ে স্থানীয় বিভিন্ন বাজার ও গুরুত্বপূর্ণ সড়ককে করা হয়েছে আলোকিত। বিদ্যুৎ না থাকলেও উপজেলা দুটির কোন এলাকাই এখন আর অন্ধকারে ডুবে থাকে না।

দপ্তরগুলি সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)র মাধ্যমে চৌগাছার ফুলসারা ইউনিয়নে এই পাঁচ বছরে ১৭ কোটি পচানব্বই লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২৮.৩২ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। নয় কোটি একচল্লিশ লক্ষ তেষট্টি হাজার টাকা ব্যায়ে ১৫.৭০ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে।

এছাড়া ৬০ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকায় ২ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে। চলমান রয়েছে এক কোটি টাকা ব্যয়ে ৩.১২ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ কাজ। ২ কোটি ৪৬ লক্ষ টাকায় ৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণও মেরামত করা হয়েছে। চলমান রয়েছে ৬৬.৫৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ কাজ।

এছাড়াও ৯.১৭ লক্ষটাকা ব্যয়ে একজন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের বাস স্থান নির্মাণ, ৪৫.৮৭  লক্ষটাকায় ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ করা হয়েছে।

চৌগাছা সদর ইউনিয়নে ১ কোটি ৭০ লক্ষ টাকায় ৪.৫০ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। ৬২ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকায় ১ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকায় ৩.৪০ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে। চলমান রয়েছে দুই কোটি টাকা ব্যয়ে ২.৫০ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ কাজ। ২ কোটি ২৯ লক্ষ টাকায় ১১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে। চলমান রয়েছে ৬৫.২৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ কাজ। এছাড়াও ৯.১৭ লক্ষটাকা ব্যয়ে একজন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের বাস স্থান নির্মাণ, ১ কোটি ৬৮ হাজার ৮৫ টাকায় একটি রেগুলেটর নির্মাণ ও ১ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকায় চৌগাছা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

সিংহঝুলি ইউনিয়নে ২ কোটি ৫ লক্ষ টাকায় ৩.৫০ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। এছাড়া  চলমান রয়েছে দুই কোটি টাকা ব্যয়ে ২.১০ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ কাজ। ৯১ লক্ষ টাকায় ৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে।

ধুলিয়ানি ইউনিয়নে ৫ কোটি ৪১ লক্ষ টাকায় ৯.৫০ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। ৭৫ লক্ষ ২২ হাজার টাকায় ১ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া ৭৪ লক্ষ টাকায় ১.৪০ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে। এছাড়াও ৯.১৭ লক্ষটাকা ব্যয়ে একজন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের বাস স্থান নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

পাশাপোল ইউনিয়নে ৩ কোটি ২ লক্ষ টাকায় ৬.৬৩৩ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। ৪০ লক্ষ টাকায় ১.৫০ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া চলমান রয়েছে এক কোটি টাকা ব্যয়ে ৩.৩০৭ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ কাজ। ৭৬ লক্ষ টাকায় ২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে। ৫৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

স্বরূপদাহ ইউনিয়নে ৬ কোটি ৭৮ লক্ষ টাকায় ১০.১০ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। তিন কোটি ৫৬ লক্ষ ৬৮ হাজার টাকায় ৩.৮৮১ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া ১ কোটি ৯৫ লক্ষ টাকায় ৭.৩৩০ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে। ১ কোটি ২৮ লক্ষ টাকায় ৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে। চলমান রয়েছে ৪৪.৯২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ কাজ। এছাড়াও ৯.১৭ লক্ষটাকা ব্যয়ে একজন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার বাস স্থান নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

জগদিশপুর ইউনিয়নে ২ কোটি ১.১৭ লক্ষ টাকায় ৫.৩৩০ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। ৯৩.৩৭ লক্ষ টাকায় ১.০৫০ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। ১ কোটি ৮৩ লক্ষ টাকায় ৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে। ৪৩.৯৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি হাটসেড নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে।

নারায়ণপুর ইউনিয়নে ১ কোটি ৭২.২৪ লক্ষ টাকায় ৩.৬২১ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। ৭৫.৬৪ লক্ষ টাকায় ১.৬৮০ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া ৩ কোটি ৭১.৪০ লক্ষ টাকায় ৬.৬১০ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে। এক কোটি ৮৬.৩৪ লক্ষ টাকায় ৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে। চলমান রয়েছে ৬১.৯৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ কাজ। এছাড়াও ২৪.০৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি হাটসেড নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

সুখপুকুরিয়া ইউনিয়নে ৮ কোটি ৪৮.৪৯ লক্ষ টাকায় ১৩ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। ৫১.২২ লক্ষ টাকায় ২.০১৬ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে। এক কোটি ৬৯.৫৮ লক্ষ টাকায় ৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে। চলমান রয়েছে ৭৪.৩৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে দুইটি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ কাজ।
পাতিবিলা ইউনিয়নে ১ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকায় ৩ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। এক লক্ষ ২১ হাজার টাকায় ১.৭১৭ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া ৩ কোটি ৪৬.৪৫ লক্ষ টাকায় ৬ কিলোমিটার সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে। এছাড়াও ৯.১৭ লক্ষটাকা ব্যয়ে একজন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের বাস স্থান নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

হাকিমপুর ইউনিয়নে ৩ কোটি ৮১.১৯ লক্ষ টাকায় ৫.৪০৫ কিলোমিটার সড়ক পাকা করা হয়েছে। ১ কোটি ৩০.৪৬ লক্ষ ২.১৭১ কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ চলমান রয়েছে। ৪৯.৭১ লক্ষ টাকায় ১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। চলমান রয়েছে ৬৫.৫৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ কাজ।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ণ কর্মকর্তার অফিসের অধীনে সর্বমোট ৭ কোটি ৮৬ লক্ষ ২২ হাজার তিনশত সাতান্ন টাকা ব্যয়ে ছোট বড় ৪৮টি সেতু স্থাপন করা হয়েছে। অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসৃজন প্রকল্পের আওতায় সাতশত একত্রিশটি প্রকল্পের মাধ্যমে দুইশত কোটি টাকা ব্যয়ে কয়েকশত কিলোমিটার গ্রামীণ সড়ক মেরামত করা হয়েছে। যাতে ১৭ হাজার সাতশত ২৪ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান হয়েছে। ৩৩২ টি কাবিখা প্রকল্পে প্রায় ৮ কোটি ৬০ লক্ষ টাকার কাজ করা হয়েছে। এর মধে সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়েছে। যাতে ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৯৮৫ ব্যক্তি উপকৃত হয়েছে। এছাড়া ৩ হাজার ৭৫০টি টিআর প্রকল্পের মাধ্যমে উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে প্রায় সাড়ে আট কোটি টাকার। এর মধ্যে সোলার প্যানেল ও স্ট্রীট লাইট বিতরণ করা হয়েছে। যাতে ২ লক্ষ ২১ হাজার ৬৩৮ ব্যক্তি উপকৃত হয়েছেন।

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ছোট বড় বাজারে সৌর বিদ্যুতের ১৫০টি স্ট্রীট লাইট দেয়া হয়েছে। যাতে এসব বাজারগুলি আলোকিত হচ্ছে। এছাড়া চৌগাছা এবং ঝিকরগাছাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনা হয়েছে। গত ৬ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই শতভাগ বিদ্যুতায়ণের উদ্বোধন করেছেন।

এতে প্রতিটি উপজেলায় প্রায় দুইশত কোটি টাকার উপরে ব্যয় হয়েছে। এছাড়াও কৃষি, সমাজ সেবা, মহিলা বিষয়ক অফিস, সমবায়, যুব উন্নয়ন, প্রাণি সম্পদ, বিআরডিবি, একটিবাড়ি একটি খামার প্রকল্প, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, চৌগাছা পৌরসভা ছাড়াও বিভিন্ন অফিসের মাধ্যমে চৌগাছা উপজেলাতেই উন্নয়ন হয়েছে হাজার কোটি টাকার উপরে।
 
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • একান্ত সাক্ষাতকার : শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে কক্সবাজার হবে তিলোত্তমা নগরী : এমপি কমলটাকা না দিলে ক্রসফায়ার দেন টেকনাফের ওসি ! সরকার ও উচ্চ আদালতে হস্তক্ষেপ প্রয়োজন সাগর পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় নারী ও শিশুসহ ৬৭ জন রোহিঙ্গা উদ্ধারআদায় করা হচ্ছে বাড়তি ভাড়া : বাস টিকিটের জন্য হাহাকার বাড়ছে সৌম্য-মোসাদ্দেকের বিধ্বংসী ব্যাটিং : ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০৫৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আজ মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিননিরপেক্ষভাবে নির্বাচনী দায়িত্ব পালনে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের প্রতি সিইসি’র নির্দেশ৬টি সংসদীয় আসনের সবকটি কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে : ইসি সচিবওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম জয়ের স্বাদ পেল টাইগাররাসংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে কোন আইনগত বাঁধা নেই : সিইসি ‘ডেইলি লিডারশিপ’-এ প্রতিবেদন-বিশ্বের সাদাসিধে জীবনযাপনকারী রাষ্ট্রপ্রধানদের ১জন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুইম্যাচ সিরিজে প্রথম দিনে মোমিনুলের সেঞ্চুরি : বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩১৫আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীকে সিইসি’র ১২ দফা নির্দেশনা যথাযথ মর্যাদা ও উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালিতযথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপিত বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ নূর মোহাম্মদ শেখের স্ত্রী বেগম ফজিলাতুন্নেসা’র ইন্তেকালওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বন্ধ্যাত্ব ঘোচানোর মিশনে নামছে টাইগাররা আজ পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী (সা.) : রাষ্টপতি ও প্রধানমন্ত্রী’র পৃথক বাণীবিদেশি টিভি চ্যানেলে দেশিপণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ
  • একান্ত সাক্ষাতকার : শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে কক্সবাজার হবে তিলোত্তমা নগরী : এমপি কমলটাকা না দিলে ক্রসফায়ার দেন টেকনাফের ওসি ! সরকার ও উচ্চ আদালতে হস্তক্ষেপ প্রয়োজন সাগর পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় নারী ও শিশুসহ ৬৭ জন রোহিঙ্গা উদ্ধারআদায় করা হচ্ছে বাড়তি ভাড়া : বাস টিকিটের জন্য হাহাকার বাড়ছে সৌম্য-মোসাদ্দেকের বিধ্বংসী ব্যাটিং : ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০৫৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আজ মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিননিরপেক্ষভাবে নির্বাচনী দায়িত্ব পালনে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের প্রতি সিইসি’র নির্দেশ৬টি সংসদীয় আসনের সবকটি কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে : ইসি সচিবওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম জয়ের স্বাদ পেল টাইগাররাসংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে কোন আইনগত বাঁধা নেই : সিইসি ‘ডেইলি লিডারশিপ’-এ প্রতিবেদন-বিশ্বের সাদাসিধে জীবনযাপনকারী রাষ্ট্রপ্রধানদের ১জন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুইম্যাচ সিরিজে প্রথম দিনে মোমিনুলের সেঞ্চুরি : বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩১৫আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীকে সিইসি’র ১২ দফা নির্দেশনা যথাযথ মর্যাদা ও উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালিতযথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপিত বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ নূর মোহাম্মদ শেখের স্ত্রী বেগম ফজিলাতুন্নেসা’র ইন্তেকালওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বন্ধ্যাত্ব ঘোচানোর মিশনে নামছে টাইগাররা আজ পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী (সা.) : রাষ্টপতি ও প্রধানমন্ত্রী’র পৃথক বাণীবিদেশি টিভি চ্যানেলে দেশিপণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ
উপরে