প্রকাশ : ০৭ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:৪২:৪৮
টোয়েন্টি টোয়েন্টি ম্যাচটি জয় দিয়েই শেষ করলো বাংলাদেশ
বাংলাদেশ বাণী, ক্রীড়া ডেস্ক : অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার শেষ টোয়েন্টি টোয়েন্টি ম্যাচটি জয় দিয়েই শেষ করলো বাংলাদেশ। ম্যাশের বিদায়ী ম্যাচে বাংলাদেশ ৪৫ রানে হারিয়েছে স্বাগতিক শ্রীলংকাকে। ফলে দুই ম্যাচের টি-২০ সিরিজও ১-১ সমতায় শেষ হলো। এ ম্যাচ দিয়েই টি-২০ ক্যারিয়ারকে বিদায় জানালেন বাংলাদেশের দলপতি মাশরাফি।

নিজের বিদায়ী ম্যাচেও টস ভাগ্যে জয় পান বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি। পিঠের ইনজুরির জন্য এ ম্যাচের একাদশে সুযোগ পাননি ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল। এছাড়া একাদশে সুযোগ হয়নি পেসার তাসকিনেরও। তাদের জায়গায় দলে আসেন ইমরুল কায়েস ও মেহেদি হাসান মিরাজ। বাংলাদেশের ৫৭তম খেলোয়াড় হিসেবে টি-২০তে অভিষেক ঘটে মিরাজের।

দলের সুযোগ পেয়ে সৌম্যর সাথে ইনিংস উদ্বোধন করতে নামেন ইমরুল। উড়ন্ত সূচনা তারা পাওয়ার-প্লে’র ৬ ওভারেই দলকে এনে দেন ৬৮ রান। তবে সপ্তম ওভারের তৃতীয় বলে বিদায় নিতে হয় সৌম্যকে। এতে ভেঙ্গে উদ্বোধনী জুটি। দলীয় ৭১ রানে সৌম্য যখন বিদায় নেন, তখন তার নামের পাশে ছিলো ৩৪ রান। ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় মাত্র ১৭ বল মোকাবেলা করে আক্রমণাত্মক ইনিংস খেলেন সৌম্য।

সৌম্যর ফিরে যাবার ৭ রান পর থেমে যান ইমরুলও। ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় ২৫ বলে ৩৬ রানে থামেন ইমরুল। এতে কিছুটা চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। কিন্তু সেই চাপ আমলে নেননি সাব্বির রহমান ও সাকিব আল হাসান। তৃতীয় উইকেটে ৩২ বলে ৪৬ রানের দুর্দান্ত এক জুটি গড়েন তারা। এতে বড় স্কোরের পথ পেয়ে যায় বাংলাদেশ।

কিন্তু বিরতি দিয়ে সাব্বির, সাকিব ও মোসাদ্দেক বিদায় নিলে, বাংলাদেশের রান তোলার গতি কমে যায়। সাব্বির ১৮ বলে ১৯ ও সাকিব মারমুখী মেজাজে ৩১ বলে ৩৮ রান করেন। তার ইনিংসে ৪টি চার ছিলো। এছাড়া মোসাদ্দেক ১টি চার ও ছক্কায় ১১ বলে ১৭ রান করেন।

দলীয় ১৫২ রানে মিডল-অর্ডারের এই তিন ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর দলের স্কোর সামনের টানার দায়িত্ব পান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহিম। এসময় ইনিংসের ১৭ বল বাকি ছিলো। তাই দলকে বড় স্কোর এনে দেয়ার পথেই ছিলেন রিয়াদ ও মুশি। কিন্তু ৮ বলে ১৭ রানের বেশি যোগ করতে পারেনি এই জুটি।

শ্রীলংকার পেসার লাসিথ মালিঙ্গার শিকারে থামেন মুশফিকুর। এরপর পরের দু’বলে মাশরাফি ও মিরাজকে তুলে নিয়ে বিশ্বের পঞ্চম ও শ্রীলংকার দ্বিতীয় বোলার হিসেবে টি-২০তে হ্যাট্টিক করেন মালিঙ্গা। ম্যাচ শেষে তার বোলিং ফিগার দাড়ায় ৪ ওভারে ৩৪ রানে ৩ উইকেট। মুশফিকুর ১টি করে চার ও ছক্কায় ৬ বলে ১৫ রান ফিরলেও, ৪ রানে অপরাজিত থেকে যান মাহমুদুল্লাহ। তারপরও বাংলাদেশ পায় ৯ উইকেটে ১৭৬ রানের সংগ্রহ।

জয়ের জন্য ওভারপ্রতি প্রায় ৯ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে প্রথম ওভারেই উইকেট হারায় শ্রীলংকা। এখানে বুদ্ধিদীপ্ত অধিনায়কত্বের কৌশল তুলে ধরেন বাংলাদেশের দলপতি মাশরাফি। প্রথম ওভারেই বল তুলে দেন সাকিবের হাতে। ঐ ওভারের দ্বিতীয় বলেই ৪ রান করা শ্রীলংকান ওপেনার কুশল পেরেরার উইকেট তুলে নেন সাকিব।

এরপর ইনিংসা মেরামতের সিদ্ধান্ত নেন ওপেনার দিলশান মুনাবিরা ও অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা। কিন্তু জুটিতে মাত্র ১৫ রান যোগ করেন তারা। এই জুটিও ভাঙ্গেন সাকিব। মুনাবিরাকেও ৪ রানে থামান তিনি।

১৯ রানে ২ উইকেট হারানোর পর তৃতীয় উইকেটে বড় জুটির আভাস দিচ্ছিলেন থারাঙ্গা ও চামারা কাপুগেদেরা। আক্রমণাত্মক মেজাজে বাংলাদেশের বোলারদের ভড়কে দিতে চেয়েছিলেন তারা। কিন্তু সেটি হতে দেননি মাহমুুদুল্লাহ। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে প্রথমবার বল হাতে নিয়েই থারাঙ্গাকে থামান তিনি। ৩টি বাউন্ডারিতে ২১ বলে ২৩ রান করেন থারাঙ্গা।

দলীয় ৪০ রানে থারাঙ্গার বিদায়ের পর, ওই স্কোরেই আরও দুই উইকেট হারায় শ্রীলংকা। নিজের প্রথম ওভারের প্রথম দু’বলেই দুই উইকেট তুলে নিয়ে লংকানদের ব্যাকফুটে ঠেলে দেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। আসলে গুনারত্নে ও মিলিন্দা সিরিবর্ধনে শূন্য হাতে ফিরেন। এতে হ্যাট্টিকের সম্ভাবনা জাগে ফিজের। কিন্তু সেটি করতে পারেননি তিনি।

তবে বাংলাদেশ শিবিরে ভয় ধরিয়ে দিয়েছিলেন কাপুগেদেরা ও থিসারা পেরেরা। ৪০ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারানোর পর পরিস্থিতিকে সামলে নেন তারা। সেই সাথে শ্রীলংকাকে ম্যাচে ফেরানোর লক্ষ্য স্থির করেছিলেন কাপুগেদেরা ও পেরেরা। ষষ্ঠ উইকেটে দু’জনে জুটিতে অর্ধশতক রান যোগ করে ফেলেন। এতে কিছুটা শঙ্কিত হয়ে পড়ে বাংলাদেশ।

এমন অবস্থায় আবারো বাংলাদেশের ত্রাণকর্তার ভূমিকায় আবারো আর্বিভূত হন সাকিব। নিজের দ্বিতীয় স্পেলে আক্রমণে এসেই থিসারাকে থামান তিনি। ২৩ বলে ২৭ রান করেন থিসারা। সেই সাথে ৪৫ বলে গড়ে উঠা ৫৮ রানের জুটিও ভেঙ্গে যায়।

এরপর সেক্কুজে প্রসন্নকে নিয়ে আবারো রান তোলার কাজে নেমে পড়েন কাপুগেদেরা। সাফল্য পাবার পথেই হাটচ্ছিলেন তারা। কিন্তু তাদের বেশিদূর যেতে দেননি বিদায় ম্যাচ খেলতে নামা মাশরাফি। ১১ রানে থাকা প্রসন্নকে বোল্ড করেন ম্যাশ।

তবে এক প্রান্ত আগলে শ্রীলংকার আশা হিসেবে টিকে ছিলেন কাপুগেদেরা। শেষদিকে কাপুগেদেরা ও মালিঙ্গাকে তুলে নিয়ে বাংলাদেশের জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেন মুস্তাফিজ। আর শ্রীলংকার শেষ ব্যাটসম্যান ভিকুম সঞ্জয়াকে শিকার করে স্বাগতিকদের ১৩১ রানেই গুটিয়ে দেন বাংলাদেশের পেসার সাইফুদ্দিন। কাপুগেদেরা দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৫ বলে ৫০ রান করেন। বাংলাদেশের মুস্তাফিজুর ৪টি ও সাকিব ৩টি উইকেট নেন।

ম্যাচের সেরা হয়েছেন সাকিব। সিরিজ সেরা হয়েছেন শ্রীলংকার মালিঙ্গা।
দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ হবার পর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজও ১-১ সমতায় শেষ করে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা। এবার টি-২০ সিরিজও ১-১ সমতায় শেষ করলো দু’দল।

স্কোর কার্ড :

বাংলাদেশ ইনিংস :
ইমরুল কায়েস রান আউট (থারাঙ্গা/কুশাল) ৩৬
সৌম্য সরকার ক এন্ড ব গুনারতেœ ৩৪
সাব্বির রহমান বোল্ড ব সঞ্জয়া ১৯
সাকিব আল হাসান বোল্ড ব সাকিব ৩৮
মোসাদ্দেক হোসেন বোল্ড থিসারা ১৭
মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ অপরাজিত ৪
মুশফিকুর রহিম বোল্ড ব মালিঙ্গা ১৫
মাশরাফি বিন মর্তুজা বোল্ড ব মালিঙ্গা ০
মেহেদি হাসান মিরাজ এলবিডব্লু ব মালিঙ্গা ০
মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন রান আউট (কুলাসেকেরা) ৬
অতিরিক্ত (লে বা-২, ও-৫) ৭
মোট (৯ উইকেট, ২০ ওভার) ১৭৬
উইকেট পতন : ১/৭১ (সৌম্য), ২/৭৮ (ইমরুল), ৩/১২৪ (সাব্বির), ৪/১৩৯ (সাকিব), ৫/১৫২ (মোসাদ্দেক), ৬/১৬৯ (মুশফিকুর), ৭/১৬৯ (মাশরাফি), ৮/১৬৯ (মিরাজ), ৯/১৭৬ (সাইফুদ্দিন)।

শ্রীলংকা বোলিং :
মালিঙ্গা : ৪-০-৩৪-৩ (ও-১),
কুলাসেকেরা : ৪-০-৩০-১,
মুনাবিরা : ২-০-২২-০ (ও-৩),
সঞ্জয়া : ৩-০-৩২-১ (ও-১),
গুনারতেœ : ২-০-১৫-১,
প্রসন্ন : ২-০-১৭-১,
থিসারা : ৩-০-২৪-১।

শ্রীলংকা ইনিংস :

কুশাল পেরেরা বোল্ড সাকিব ৪
মুনাবিরা ক মাহমুদুল্লাহ ব সাকিব ৪
থারাঙ্গা ক মিরাজ ব মাহমুদুল্লাহ ২৩
কাপুগেদেরা ক মিরাজ ব মুস্তাফিজ ৫০
গুনারতেœ ক মোসাদ্দেক ব মুস্তাফিজ ০
সিরিবর্ধনে ক সৌম্য ব মুস্তাফিজ ০
থিসারা পেরেরা স্টাম্প মুশফিকুর ব সাকিব ২৭
প্রসন্ন বোল্ড ব মাশরাফি ১১
কুলাসেকেরা অপরাজিত ২
মালিঙ্গা বোল্ড ব মুস্তাফিজ ০
সঞ্জয়া ক মাহমুদুল্লাহ ব সাইফুদ্দিন ৬
অতিরিক্ত (লে বা-২, ও-২) ৪
মোট (অলআউট, ১৮ ওভার) ১৩১
উইকেট পতন : ১/৪ (কুশাল), ২/১৯ (মুনাবিরা), ৩/৪০ (থারাঙ্গা), ৪/৪০ (গুনারতেœ), ৫/৪০ (সিরিবর্ধনে), ৬/৯৮ (থিসারা), ৭/১১৯ (প্রসন্ন), ৮/১২৩ (কাপুগেদেরা), ৯/১২৪ (মালিঙ্গা), ১০/১৩১ (সঞ্জয়া)।

বাংলাদেশ বোলিং :

সাকিব : ৪-০-২৪-৩ (ও-১),
মাশরাফি : ৪-০-৩০-১,
মিরাজ : ২-০-১৫-০,
মাহমুদুল্লাহ : ২-০-১৫-১,
মুস্তাফিজ : ৩-০-২১-৪,
সাইফুদ্দিন : ৩-০-২৪-১।
ফল : বাংলাদেশ ৪৫ রানে জয়ী।
সিরিজ : দুই ম্যাচের সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ হলো।
ম্যাচ সেরা : সাকিব আল হাসান(বাংলাদেশ)।
সিরিজ সেরা : লাসিথ মালিঙ্গা(শ্রীলংকা)।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে যাচ্ছে : বাহাদুর বেপারীশুরু হলো বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলারক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয়! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’
  • আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুটম্যাপ প্রণয়নবিশ্ব ভালবাসা দিবসে অমর একুশের গ্রন্থমেলায় দর্শনার্থীদের ঢলশেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ নির্ধারিত সময়ের আগেই উন্নত দেশে পরিণত হবে : সরকারি দলরোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিরসনে ইইউ বাংলাদেশের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি’র আদেশআদালতের আদেশ অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন পেলেন খালেদা জিয়াভারতীয় গণমাধ্যমের মন্তব্য খালেদার দণ্ড হাসিনাকে শক্তিশালী করেছেএকুশের বই মেলায় প্রাণ এসেছে : বেড়েছে বিক্রি জনগণের জানমাল রক্ষায় যতদিন প্রয়োজন ততদিনই পুলিশি নিরাপত্তা থাকবে : আইজিপি‘রায়ের কপি হাতে পেলেই হাইকোর্টে আপিল করা হবে’তারেকসহ অন্যদের ১০ বছর কারাদন্ড-জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় : সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৫ বছর জেল ভীত হবেন না : আশ্বস্ত করছি ৮ ফেব্রুয়ারি কিছু হবে না : আইজিপি রাষ্ট্রপতি পদে এ্যাড. মো. আবদুল হামিদের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলবিএডিসি ও পিআইবি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভাবিএনপিসহ সবদল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে : সিইসি'র আশাবাদরাষ্ট্রপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ চূড়ান্ত করেছেনরক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় ! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে যাচ্ছে : বাহাদুর বেপারীশুরু হলো বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলারক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয়! ‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’
উপরে