প্রকাশ : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৫ ১৯:৩০:৫০
কুড়িগ্রামে পাঁচ শ’ বছরের বিশাল শিমুলগাছটি কালের সাক্ষী হয়ে আছে
বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকম, জাহাঙ্গীর আলম, কুড়িগ্রাম জেলা  প্রতিনিধি : কুড়িগ্রাম জেলার সীমান্ত ঘেঁষা ফুলবাড়ী উপজেলায় পাঁচ শ’বছরের পুরনো দৃষ্টি নন্দিত বিশালাকৃতির একটি শিমুল গাছ রয়েছে। ফুলবাড়ি উপজেলা সদর থেকে ৩ কিলোমিটার উত্তর-পূর্ব দিকে কুটিচন্দ্রখানা গ্রামে এ গাছটির অবস্থান। ৮ শতাংশ জমির উপর দাঁড়িয়ে থাকা আনুমানিক ১৫০ ফুট লম্বা শিমুলগাছটির গোড়ার পরিধি ৮৬ ফুট। গাছটার কাছে গেলেই মনে হবে সৃষ্টি কর্তা যেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মৃতি ধরে রাখতে প্রকৃতিতে তৈরি করেছেন, আর একটি স্মৃতিসৌধ। স্মৃতিসৌধের মত দেখতে এ গাছটার গোড়ার পাশে দাঁড়ালে মনে হবে এ যেন পাহাড়ের পাদদেশ। গাছের গোড়ায় দাঁড়িয়ে ছবি ওঠালে ছবিটি দেখে যে কেউ মনে করবে এ ছবি পাহাড়ের পাদদেশের অথবা স্মৃতিসৌধের পাশে। আশ্চর্যজনক এ গাছটা দেখার জন্য প্রতিনিয়ত কুটিচন্দ্রখানা গ্রাম পদচারণায় মুখরিত হচ্ছে হাজারো প্রকৃতি প্রেমি মানুষ। গাছটাকে নিয়ে মিডিয়ায় সম্প্রচার না হওয়ায়, প্রকৃতি প্রেমি মানুষ ও দেশি বিদেশি পর্যটকদের দেখা যাচ্ছে না।
শুধু মুখে শুনে ছুটে আসছেন প্রকৃতি প্রেমি স্থানীয় কিছু মানুষ। মুখে শুনে এ গাছ দেখতে আসা ঢাকার স্টুডেন্ট কেয়ার হাইস্কুলের সিনিয়র শিক্ষক আলমগীর হাসিবুর রহমান জানান, তিনি আশ্চর্যজনক বিশালাকৃতির এ গাছ দেখে অভিভূত হয়েছেন। তিনি বাংলাদেশের অনেক স্থানে বেড়িয়েছেন। কিন্তু এমন দৃষ্টিনন্দন গাছ কোথাও দেখেন নি। একই কথা জানালেন পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলা থেকে আসা যুবক খালেদ মাসুদ, লালমনিরহাট থেকে আসা আসাদুজ্জামান, ভুরুঙ্গামারী থেকে আসা যুবক জহুরুল ইসলামসহ আরও অনেকে। কুটিচন্দ্রখানা গ্রামে লোকজনের কাছে শোনা গেছে, এ গাছের অলৌকিক দৃশ্যপট ও যৌবন কথা। এ গ্রামের তরুণ যুবক বয়োবৃদ্ধ সবাই জানিয়েছেন, গাছটার অলৌকিক ও যৌবনকথার গল্প।
গাছ সম্পর্কে নানান জন নানা কথা বললেও আসলে গাছটার বয়স কত? তা জানাতে পারেননি কেউ। এই গ্রামের ১২০ বছর বয়সী বৃদ্ধ আফছার আলী জামালপুরি, ১১৪ বছরের বৃদ্ধা মোহিনী বালাসহ প্রবীণ আরো অনেকেই জানিয়েছেন, আমরা আগে যেমন শিমুল গাছটা দেখেছি ঠিক তেমন অবস্থায় গাছটা এখনও রয়েছে। ঝড় বাতাসে ডাল পালা না ভাঙ্গায়, গাছটা এখনও অক্ষত অবস্থায় রয়েছে। তাদের ধারণা মতে, শিমুলগাছটার বয়স পাঁচ শ’ বছরেরও বেশি হতে পারে। এ গাছের পাশে বসবাসকারী একাব্বর আলী (৬৪) জানান, শিমুলগাছটা আগের চেয়ে দিন, দিন আরো তাজা হচ্ছে। তিনি জানান, এ গাছে মৌমাছির চাকসহ, অসংখ্য প্রজাতির পাখ-পাখালির বাস। আবার গাছটা টিয়া পাখিদের যেন অভয়াশ্রম। বিকাল হলেই টিয়া পাখিসহ বিভিন্ন পাখির কলরবে যে কেউ মুগ্ধ হবেন। এলাকাবাসীর অনেকে জানিয়েছেন, এ গাছের নিচ থেকে গুপ্ত ধন তুলতে গিয়ে এ গ্রামের নারিয়া মামুদ নামের এক ব্যক্তি অন্ধ হয়েছে। এখানে কথিত নাগনাগিনীর বসবাস বলেও তারা জানান। গাছের প্রকৃত জমির মালিক মৃত কোকন চন্দ্রের স্ত্রী কুসুম বালা ও তার বড় ছেলে কিরণ চন্দ্র জানান, একবার এ গাছটা তারা ১০ হাজার টাকা মূল্যে বিক্রি করে বিপাকে পড়েছিলেন। কোকন চন্দ্র স্বপ্নে গাছটির অলৌকিক ক্ষমতা দেখে, বাধ্য হয়ে গাছের বিক্রিত টাকা ক্রেতাকে ফেরত দেন। ওই সময় গাছের গায়ে কোপ দিলে কর্তনের স্থান দিয়ে রক্ত বের হতো বলে তারা জানান। গাছটা এখন বিক্রি করবেন কিনা? এমন প্রশের জবাবে মালিকরা  জানান, যতদিন গাছটা নিজের থেকে মারে যাবে না ততদিন পর্যন্ত তারা গাছটা বিক্রি কিংবা গাছের ডালপালা কাটবেন না। তারা বিশালাকৃতির দৃষ্টি নন্দিত এ গাছটি সংরক্ষণের জন্য সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার কাছে সহায়তা চেয়েছেন।

বাংলাদেশ বাণী/কাসা/ডেস্ক/নি.প্রতি/জাহাঙ্গীর/কুড়িগ্রাম/২৬/১২/২০১৫. ০৭:৩০ (পিএম) ঘ.
সর্বশেষ সংবাদ
  • আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্ত ভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।তাজিকিস্তান রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সব রকম সহযোগিতা দেবেসাম্প্রদায়িক ও অশুভ শক্তিকে রুখে দেবার অঙ্গীকার নিয়ে বাংলা বর্ষ বরণউন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনের ঘোষণায় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণআজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস : নানা কর্মসূচি গ্রহণ একনেকের সভায় ৩,৪১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ প্রকল্প অনুমোদনপ্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতরা জাতির শত্রু : বেনজির আহমেদপ্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠানে আমরা সব ব্যবস্থা নিয়েছি : শিক্ষামন্ত্রীগাইবান্ধায় নবজাতককে আঁছড়িয়ে দিয়ে হত্যা করলো পাষণ্ড পিতা!গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা : ১৫ মে ভোট আমি কী পাগল ? প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত করবো ! ফের সমালোচনা ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে সরকার দলীয় এমপি রতন !আজ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনযশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীতে ছেলের হাতে বাবা খুন।সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনআজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস : জাতির বিনম্র শ্রদ্ধাকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াস রায়কে অশ্রুসিক্ত নয়নে শেষ বিদায় ভিয়েতনামে'র হোচিমিন সিটি'র একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড : নিহত ১৩ভারতে রাজ্যসভার জন্য ৭টি রাজ্যে ২৬টি আসনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছেমৌসুমি পাখিদেরকে দলে আশ্রয় প্রশ্রয় দেবেন না : ওবায়দুল কাদেরকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত আরো ৩ জনের মরদেহ ঢাকায় : পরিবারের কাছে হস্তান্তর
  • আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্ত ভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।তাজিকিস্তান রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সব রকম সহযোগিতা দেবেসাম্প্রদায়িক ও অশুভ শক্তিকে রুখে দেবার অঙ্গীকার নিয়ে বাংলা বর্ষ বরণউন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনের ঘোষণায় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণআজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস : নানা কর্মসূচি গ্রহণ একনেকের সভায় ৩,৪১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ প্রকল্প অনুমোদনপ্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতরা জাতির শত্রু : বেনজির আহমেদপ্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠানে আমরা সব ব্যবস্থা নিয়েছি : শিক্ষামন্ত্রীগাইবান্ধায় নবজাতককে আঁছড়িয়ে দিয়ে হত্যা করলো পাষণ্ড পিতা!গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা : ১৫ মে ভোট আমি কী পাগল ? প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত করবো ! ফের সমালোচনা ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে সরকার দলীয় এমপি রতন !আজ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনযশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীতে ছেলের হাতে বাবা খুন।সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনআজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস : জাতির বিনম্র শ্রদ্ধাকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াস রায়কে অশ্রুসিক্ত নয়নে শেষ বিদায় ভিয়েতনামে'র হোচিমিন সিটি'র একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড : নিহত ১৩ভারতে রাজ্যসভার জন্য ৭টি রাজ্যে ২৬টি আসনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছেমৌসুমি পাখিদেরকে দলে আশ্রয় প্রশ্রয় দেবেন না : ওবায়দুল কাদেরকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত আরো ৩ জনের মরদেহ ঢাকায় : পরিবারের কাছে হস্তান্তর
উপরে