প্রকাশ : ২৪ মার্চ, ২০১৬ ১২:০২:০২
নড়াইল থেকে হারিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতি মাতানো পাখ-পাখালী
বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকম, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি : সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা এ বাংলার প্রকৃতিতে যেসব পাখ-পাখালীর মধুময় কলকাকলীতে মুখর থাকতো গ্রাম-বাংলার নদী-নালা, খাল-বিল ও পুকুর-জলাশয় সেসব পাখির অধিকাংশ আজ আর গ্রাম-বাংলায় চোখে পড়ে না। নিকট অতিতেও এ সময় পাখিদের দেখা যেত নড়াইলের গ্রাম বাংলার প্রকৃতি মাতিয়ে রাখতে। কিন্তু এখন গ্রামের পর গ্রাম ঘুরেও দেখা মেলেনা প্রকৃতি মাতানো সেই সব পাখি। এদের দেখা মেলে এখন কালে-ভদ্রে।
আজ নানা কারণে প্রকৃতি থেকে হারিয়ে যাচ্ছে পাখি। প্রকৃতির সৌন্দর্য ও পরিবেশের বন্ধু নানান পাখি প্রকৃতি থেকে হারিয়ে যাওয়ার কারণ গুলোর মধ্যে এদের রক্ষার কোন উদ্যোগ না থাকাটা অন্যতম। এছাড়াও এদের নিরাপদ বাসস্থান ও খাদ্য মজুদ এলাকাগুলো নির্বিচারে নষ্ট করে ফেলা এবং শিকারীদের অপতৎপরতার কারণে হারিয়ে যাচ্ছে নানান চেনা-অচেনা পাখি। আগে গ্রামাঞ্চলে প্রচুর বন জঙ্গল, গাছপালা, খাল-বিল এবং পুকুর জলাশয় ছিল। ছিল প্রবাহমান নদী। পাখিগুলো এসব বনজঙ্গল ও গাছপালায় নিরাপদে বাসা বেঁধে খাল-বিল, নদী-নালা ও পুকুর-জলাশয় থেকে প্রয়োজনীয় খাদ্য সংগ্রহ করে প্রকৃতি মাতিয়ে রাখতো। কিন্তু মানুষজন নির্বিচারে কেটে ফেলছে বনজঙ্গল ও গাছপালা। ভরাট করছে খাল-বিল ও পুকুর-জলাশয়। স্থানীয় নদীগুলোও হারিয়ে ফেলছে তার প্রবাহ। 
নড়াইল থেকে হারিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতি মাতানো পাখ-পাখালী
এসব কারণে এখন আর চোখে পড়ে না পাখিদের মুক্ত আকাশে সারিবদ্ধ উড়ে চলা এবং ভোরের সময় বিচিত্র রকমের কিচির-মিচির শব্দ। এ ব্যাপারে নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো: মতিয়ার রহমান বলেন, বিশ্ব জলবায়ুর নেতিবাচক পরিবর্তনের প্রভাবে বিপর্যয় ঘটছে পরিবেশের। আজ হুমকির মুখে জীব বৈচিত্র। আর এ জন্যই বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে গ্রাম-বাংলা থেকে প্রকৃতি মাতানো পাখ-পাখালী। প্রকৃতির বৈচিত্র ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষাকল্পে হারিয়ে যেতে বসা পাখিদের রক্ষার জন্য এখনই প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহন জরুরী বলে মনে করেন তিনি।

বাংলাদেশ বাণী/কাসা/ডেস্ক/নি.প্রতি/প্রতিনিধি/নড়াইল/২৪/০৩/২০১৬. ১২:০১ (পিএম) ঘ.  
সর্বশেষ সংবাদ
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
  • জার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া
উপরে