প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২৭:০১
মোরগের কন্ঠে ‘আল্লাহ’ আল্লাহ গো! বলে বারবার ডাক
বাংলাদেশ বাণী, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে কাবাব তৈরীর করার জন্য মোরগ জবাই করতে গেলে জবাই করার প্রস্তুতি নেয়া মাত্রই মোরগটি কমপক্ষ্যে অর্ধশত বার আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! বলে ডাকতে শুরু করল। এরপর গৃহকর্তা যুগান্তরের তাহিরপুরের ষ্টাফ রিপোর্টার ও সিএন বাংলাদেশ, সুনামগঞ্জ প্রতিদিনের সুনামগঞ্জের ষ্টাফ রিপোর্টার হাবিব সরোয়ার আজাদ রবিবার রাতে মোরগটিকে জবাই করা থেকে বিরত রাখেন।
এ খবর ছড়িয়ে পড়লে মোরগটিকে এক নজর দেখার জন্য আশে পাশের এলাকার লোকজন বাদাঘাটের কলেজ রোডের বাসায় ভড়ি করতে থাকেন রাতভর। জানা গেছে, সাংবাদিকের শিশু পুত্র শিহাব সরোয়ার শিপু কাবাব আর রুটি খাবার আবদার পুরণ করতে গিয়ে  বাসায় একটি পোলট্রি মোরগ আর একটি দেশী স্থনীয় জাতের মোরগের ব্যবস্থা করা হয়। যথারিতি মোরগ দুটি জবাই করার জন্য ডেকে আনা হল  ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ী মানিক ও শাহীনকে। সন্ধা ৭টার দিকে প্রথমে পোলট্রি মোরগটি জবাই করা হল্ কোন শব্দও করেনি।’
এরপর স্থানীয় জাতের মোরগটি জবাই করতে নিয়ে যাওয়া হলে মোরগটি অর্ধশত বার আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! বলে ডাকতে শুরু করল।’ মোরগটি জবাই করার প্রস্তুতি কালে  সাংবাদিক পতœী, মা- স্ত্রী , সন্তান শিপু শিশু কন্যাদ্বয় আদ্রিতা পাশে থাকা সুমন সহ সকলেই মোরগের মুখে আল্লাহর ডাক শুনলেন। পরবর্তীতে স্থানীয় আলেম সমাজের পরামর্শক্রমে পরবর্তীতে মোরগটি জবাই না করে  মোরগটি লালল পালনের ব্যবস্থা নেয়া হয়।

 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
  • ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান চিনি আইন রহিতের সিদ্ধান্তমহানগরী ঢাকাকে ‘সেফনগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন ১০ কার্য দিবস চলবেস্থানীয় সরকারের অধীন দেশের ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানে ২৮ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণবিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না : খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি, সোমবার শাহবাগে ‘আনন্দ উৎসব ও স্মৃতিচারণ’ আজ বসছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন বঙ্গবন্ধু'র ৭ মার্চের ভাষণ : ২৫ নভেম্বর দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা দ. কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবেঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিস’ চালু২০২৪ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে শতভাগ বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে : বানিজ্যমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্যের সহযোগীতা চাইলো ঢাকা খুলনা-কলকাতা চলাচলকারী মৈত্রী ট্রেনের আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
উপরে