প্রকাশ : ২১ মার্চ, ২০১৭ ০১:১৮:০২
ঝিকরগাছার নন্দীডুমুরিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কথিত জিন আতঙ্ক! আক্রান্ত ৭
বাংলাদেশ বাণী, এম আলমগীর, বাঁকড়া, ঝিকরগাছা (যশোর) থেকে : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নন্দীডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জিন আতঙ্কে পড়েছেন শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও গ্রামবাসী। কথিত জিন দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে ৭ জন শিক্ষার্থী। কবিরাজের মাদুলী দিয়ে স্কুলের চারিপাশ বন্ধ এবং জোহরবাদ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার দুপুর দুইটার দিকে বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, স্কুলের মধ্যে দোয়া অনুষ্ঠান হচ্ছে। একজন শিক্ষার্থীও নেই। বিদ্যালয়ের তিনজন শিক্ষক রয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার, সহকারী শিক্ষক ওয়াদুদ হাসান ও শামীম রেজা জানান, রবিবার সকাল ১১ টার দিকে ৫ম শ্রেণির কয়েকজন শিক্ষার্থী শ্রেণি কক্ষ থেকে দেখতে পায়, তাদের বাইরে থেকে কে একজন ডাকছে। তারা বাইরে এসে কাউকে পায়নি। পরে তাদের শ্বাস-প্রশ্বাসের কষ্ট, উত্তেজিত হওয়া ও লোকজনকে মারতে যাওয়ার মত অস্বাভাবিক আচরণ করতে দেখা যায়।

আক্রান্তরা হলো, ৫ম শ্রেণির ছাত্রী নন্দীডুমুরিয়া গ্রামের মাস্টার ওয়াদুদ হাসানের কন্যা অর্নি, মাহাবুর রহমানের মেয়ে নাজমুন নাহার, ফজলুর রহমানের কন্যা আশা, গোলাম রসুলের কন্যা ইথিলা, ইয়ার আলীর কন্যা আসমা, জামির আলী নাতনী বর্ষা ও মফিজুর রহমানের কন্যা তুর্নি।

এই ঘটনার পর সকল শিক্ষার্থীর মাঝে ভয় ও আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। সোমবার বিদ্যালয় শুরু হলে শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে আসতে শুরু করে। এমন সময় রবিবারের আক্রান্ত অর্নি, নাজমুন নাহার ও বর্ষা পূনরায় আক্রান্ত হলে শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক ও গ্রামবাসীর মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করে। তারা জিন ঝাড়ানো কবিরাজকে খবর দেন। কবিরাজ আব্দুস সাত্তার মুন্সি ও তার সহযোগিরা তদবির করে জানিয়েছেন, স্কুল এবং তার আশেপাশে প্রায় দুইশ জিন আছে। তিনি স্কুলের চারিপাশে মাদুলী দিয়ে জিন বন্ধ করে দিয়েছেন। জোহরবাদ গ্রামের মুসাল্লিরা দোয়া অনুষ্ঠান করেছেন।

এদিকে, বিদ্যালয় থেকে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আসাদুল ইসলামকে জানানো হলেও শিক্ষা অফিস থেকে কেউ বিদ্যালয় পরিদর্শনে যাননি। প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার জানান, বিদ্যালয়ে ২৪৭ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। শুধু এই শিক্ষার্থীরা নয়, পুরো গ্রামবাসী এ ঘটনায় আতঙ্কিত।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • সিকান্দারের ব্যাটিং নৈপুণ্যে : স্বাগতিকরা ৪০ রানে হারিয়েছে সিলেট সিক্সার্সকেইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনি মধ্যপ্রাচ্যের ‘নয়া হিটলার’ : সৌদি যুবরাজবঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি যথাযথ মর্যাদায় সারা দেশে উদযাপন আজআওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষের সত্যিকার উন্নতি হয় : প্রধানমন্ত্রী দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন শেষ হয়েছেজার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও
  • সিকান্দারের ব্যাটিং নৈপুণ্যে : স্বাগতিকরা ৪০ রানে হারিয়েছে সিলেট সিক্সার্সকেইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনি মধ্যপ্রাচ্যের ‘নয়া হিটলার’ : সৌদি যুবরাজবঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি যথাযথ মর্যাদায় সারা দেশে উদযাপন আজআওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষের সত্যিকার উন্নতি হয় : প্রধানমন্ত্রী দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন শেষ হয়েছেজার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও
উপরে