প্রকাশ : ০১ নভেম্বর, ২০১৮ ০২:৪৯:৫৬
প্রিয়নেতা, বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম’কে বলছি।
আপনি আমার সশ্রদ্ধ সালাম গ্রহন করিবেন। আপনাকে উপদেশ বা পরামর্শ কোনটাই দেওয়ার মতো যোগ্যতা আমার নেই। কোনদিন হবেও না। আপনাকে আন্তরিকভাবে শ্রদ্ধা করি। বিগত ১৯৭৪ সালের কোন এক তারিখে আপনি কক্সবাজারের মহেশখালি উপজেলায় এসেছিলেন। সেদিন আমি ছাত্র জীবনে ছিলাম। আপনাকে সামনা সামনি দেখেছি সেদিন।

তখন আমি দশম শ্রেণীর ছাত্র ছিলাম। স্কুল জীবনে ছাত্রলীগ করতাম। মহেশখালি থানা ছাত্রলীগের সম্মেলনে আপনি প্রধান অতিথি হিসেবে এসেছিলেন। কক্সবাজার হতে ছোট একটি জাহাজে করে আপনি মহেশখালি এসেছিলেন। আমরা আপনাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাতে ফেরিঘাটে গিয়েছিলাম।

পরে বক্তৃতা মঞ্চে অনেক কৌতুহল নিয়ে আপনার সামনা সামনি বসেছিলাম। কিন্তু কিছু জিজ্ঞাসা করার সাহস পাইনি। সেদিনের কথা আপনার মনে আছে কিনা জানিনা। তার পরের বছর বাঙ্গালীর ইতিহাস ১৯৭৫ ইং সন। ঐ বছরের ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে ঘাতকেরা যখন ধানমন্ডির ৩২ নং এর বাড়িতে স্ব-পরিবারে নিমর্মভাবে হত্যা করেছিলো।

ঐদিন সকালে আপনি বঙ্গবন্ধুর বাড়িতে এসে রক্ত সুইয়ে শপথ করে বলেছিলেন, ‘পিতা বঙ্গবন্ধু, ভাই শেখ কামাল, শেখ জামাল, সেখ রাসেল মরে গিয়াছে কিন্তু আমি বঙ্গবন্ধুর চতুর্থ সন্তান এখনো বেঁচে আছি, এই জগন্য হত্যাকান্ডের প্রতিশোধ আমি নেবোই নেব।’

তার পরের ইতিহাস অনেক দীর্ঘ ও করুন। তারপর হত্যাকান্ডের প্রতিবাদ জানাতে হুলিয়া মাথায় নিয়ে ভারতে দীর্ঘ প্রবাস জীবন। তারপর অনেক ইতিহাস হয়ে গেলো। ভাবী একদিন সংসদ সদস্যা নির্বাচিত হলেন।

আপনি পরে এদেশে ফিরিয়া এলেন ইত্যাদি ইত্যাদি..। বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর আমার কেন জানি মনে হচ্ছে, স্বাধীন বাংলার প্রথম সরকারে বঙ্গবন্ধু যদি ফিদেল ক্যাস্ট্রোর মত বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকীকে তার প্রধান সেনাপতি বা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করিতেন, তাহা হইলে ঘাতকেরা বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যা করার সাহস পাইতোনা। আলবদর, রাজাকার, যুদ্ধাপরাধীরা রাতারাতি দেশ ত্যাগ করে পালাইয়া যাইতো।

প্রিয়নেতা,
আপনি যখন নিজে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করিলেন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ নামে, ঐ নাম না রাখিয়া যদি বাংলাদেশ গরিব আ’লীগ বা তৃণমূল আ’লীগ অথবা একেবারে বাকশাল নাম রাখিতেন তাহা হইলে বহু আপনার সহযোদ্ধা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ত্যাগী নেতাকর্মী আপনার দলে চলিয়া যাইতো। ইহা আমার মনের কথা।

আপনি একজন মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের অকুতোভয় বীর সেনানী, ভারতে পালিয়ে না গিয়ে ১লক্ষ ৭২ হাজার কাদেরিয়া বাহিনীর সৈন্য লইয়া তুমুল প্রতিরোধ যুদ্ধ শুরু করেছিলেন। দীর্ঘ ৯মাসের যুদ্ধ শেষে ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর পাক হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের দিন আপনি নিয়াজির সাথে হাত না মিলাইয়া থুথু নিক্ষেপ করিয়াছিলেন ঘৃনাভরে। দেশ ও জাতি আপনাদের কাছে অনেক ঋণী হইয়া রয়েছে।

প্রিয় নেতা,
আমি বলতে চেয়েছিলাম জামাত-শিবির, আলবদর বিএনপির ঐক্যজোট এবং ডঃ কামালের, মান্নান ঐক্যজোটে যাওয়া আপনার জন্য মোটেও শোভনীয় নয়। কবির ভাষায় বলতে হলে, ‘যদি তোর ডাক শুনে কেহ না আসে, তবে একলা চলরে--’

আপনি যতই মান অভিমান করেন না কেন? আপনার আপা শেখ হাসিনার বিপদের সময় আপনি কোনদিন চুপ থাকিতে পারিবেন না। এক সাগর রক্ত, আড়াই লক্ষ মা বোনের ইজ্জত, অনেক ত্যাগ তিতিক্ষার বিনিময়ে অর্জিত প্রিয় স্বাধীনতা ও জাতীয় পতাকা আবারো আলবদর, রাজাকারের গাড়িতে বাড়িতে, ওদের হাতে চলে যাক, তাহা কি আপনি সহ্য করতে পারবেন?

অবশ্যই না, বাঘ আর হরিণ এক বনে থাকে তবে দুজনে এক সাথে চলে না। আপনি তো সাহসী সেই বাঘা কাদের।

ইতি
আপনার স্নেহধন্য,
এন. আমিন জাহেদ
কুতুবজোম, মহেশখালি, কক্সবাজার।
তারিখ : ৩০/১০/১৮ইং
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • কমিশন চায় না নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হোক : সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি ইসিনয়া পল্টনে পুলিশের ওপর অতর্কিত আক্রমণ ছিল পূর্ব পরিকল্পিত : ডিএমপি কমিশনার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৭-১০ দিন আগে মাঠে সেনা মোতায়েন থাকবে : ইসি সচিবঢাকা টেস্ট : জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানে বিধ্বস্ত করলো স্বাগতিক বাংলাদেশনির্বাচন পেছানোর আর সুযোগ নেই : ইসি সচিবকোন প্রার্থী যেন বঞ্চিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে : সিইসিঢাকা টেস্ট : জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট দলীয় সরকারের অধীনে থেকে এবারের নির্বাচন ইতিহাস সৃষ্টি করবে : সিইসিজাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর সিদ্ধান্ত আজনতুন রাজনৈতিক জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেজাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রথম দিনে ১৭শ’ সংগ্রহ ১৪ নভেম্বর মধ্যে নির্বাচনের প্রার্থীদের আগাম প্রচার সামগ্রী অপসারণের নির্দেশ ইসি’রইউপি সদস্য ও এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ গণগ্রেফতার : ডিবি সদস্য আহত হওয়ায় পুরুষ শূন্য ঝিকরগাছার মাটিকোমরা গ্রামআজ থেকে আ’লীগের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরুরাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে মতানৈক্য-মতবিরোধ থাকলে রাজনৈতিকভাবে মীমাংসার আহবান সিইসি’র আগামী ২৩ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চার টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেনসংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণায় অযথা বিলম্ব না করার দাবী যুক্তফ্রন্টের২৮ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে : সিইসি প্রশাসনে ১১ অতিরিক্ত সচিব ও ৯ যুগ্ম-সচিব পদে রদবদল
  • কমিশন চায় না নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হোক : সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি ইসিনয়া পল্টনে পুলিশের ওপর অতর্কিত আক্রমণ ছিল পূর্ব পরিকল্পিত : ডিএমপি কমিশনার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৭-১০ দিন আগে মাঠে সেনা মোতায়েন থাকবে : ইসি সচিবঢাকা টেস্ট : জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানে বিধ্বস্ত করলো স্বাগতিক বাংলাদেশনির্বাচন পেছানোর আর সুযোগ নেই : ইসি সচিবকোন প্রার্থী যেন বঞ্চিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে : সিইসিঢাকা টেস্ট : জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট দলীয় সরকারের অধীনে থেকে এবারের নির্বাচন ইতিহাস সৃষ্টি করবে : সিইসিজাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর সিদ্ধান্ত আজনতুন রাজনৈতিক জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেজাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রথম দিনে ১৭শ’ সংগ্রহ ১৪ নভেম্বর মধ্যে নির্বাচনের প্রার্থীদের আগাম প্রচার সামগ্রী অপসারণের নির্দেশ ইসি’রইউপি সদস্য ও এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ গণগ্রেফতার : ডিবি সদস্য আহত হওয়ায় পুরুষ শূন্য ঝিকরগাছার মাটিকোমরা গ্রামআজ থেকে আ’লীগের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরুরাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে মতানৈক্য-মতবিরোধ থাকলে রাজনৈতিকভাবে মীমাংসার আহবান সিইসি’র আগামী ২৩ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চার টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেনসংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণায় অযথা বিলম্ব না করার দাবী যুক্তফ্রন্টের২৮ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে : সিইসি প্রশাসনে ১১ অতিরিক্ত সচিব ও ৯ যুগ্ম-সচিব পদে রদবদল
উপরে