প্রকাশ : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০৩:০৮
রক্তঋনে কেনা, কারো দানে নয় !
‘অমর একুশের সিঁড়ি বেয়ে আমার বাংলা মায়ের কোল’
কাজী আব্দুস সামাদ : (পূর্ব প্রকাশরে পর) স্বাধীনতা-পরবর্তী চার দশকজুড়েই বাংলা ও বাঙালির বিরুদ্ধে নানামুখী ষড়যন্ত্র হয়েছে এবং তা এখনো অব্যাহত আছে। কখনো তা দৃশ্যমান হয়েছে, কখনো তা অদৃশ্যই থেকে গেছে। এখন একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচারকে কেন্দ্র করে সেই পাকিস্তানি প্রেতাত্মারা আবার নতুন করে হামলে পড়তে চাইছে। তাই এবারের একুশে আমাদের নতুন প্রত্যয়ে, নতুন বিশ্বাসে এগিয়ে যাওয়ার শপথ নিতে হবে।

তাই ‘একুশ’ এবং ‘মাথা নত না করা’র চেতনাকে একসাথে পাঠ করতে হবে যাতে যথাযথভাবে উপলব্ধি করা যায়, কীভাবে মহান একুশের আদর্শে বাঙালির প্রতিরোধের চরিত্র নির্মিত হয়। এর ভেতর দিয়ে বাঙালি ভাষা আন্দোলনের সড়ক বেয়ে মুক্তিসংগ্রামের মহাসড়কে উপনীত হয়।

‘মহান একুশে’র চেতনা এবং ‘মাথা নত না করা’র দর্শনকে একসাথে উপলব্ধি করার প্রয়োজন আছে। কেননা এ যুক্তপাঠ ‘স্বাধীনতা অর্জনের চেয়ে রক্ষা করা কঠিন’র মতো মহান ব্রত নিয়ে নিত্য মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রদীপ্ত হতে আমাদের প্রেরণা যোগায়।

হাজার বছরের ইতিহাস ঐতিহ্যমণ্ডিত বাংলা সমৃদ্ধ একটি ভাষা। রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, জীবনানন্দ দাশের মতো লেখক সৃষ্টি হয়েছে এই ভাষায়ই। কিন্তু সেই ভাষার মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় পরবর্তী সময়ে তেমন কোনো উদ্যোগ কি নেয়া হয়েছে?

সময়ের অভিঘাতে পাল্টে যাচ্ছে সবকিছু। প্রযুক্তি নির্ভর একবিংশ শতাব্দীতে তরুণ প্রজন্মও বাংলা ভাষার প্রতি চরম উদাসীন। অন্যভাষা শেখায় কোনো দোষ নেই। রবীন্দ্রনাথের কখা স্বরণ করে বলতে হয়-‘আগে চাই বাংলা ভাষার গাঁথুনি পরে, ইংরেজি শেখার পত্তন’।

বাঙালি জাতির হাজার বছরের ইতিহাসে আমাদের অমর একুশের অবস্থান অনন্যসাধারণ, মর্যাদায় ভাস্বর। অনেক দেন-দরবার ও কূটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে আমরা সে সাফল্য অর্জন করি।
১৯৯৯ সালে ইউনেস্কোর ৩০ তম সাধারণ সম্মেলনে বাংলাদেশ সরকারের প্রস্তাবটি সর্বসম্মতভাবে অনুমোদন পাওয়ায় একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

একুশের চেতনায় উজ্জীবিত বাঙালি জাতি, জাতির জনকের আপসহীন ও অকুতোভয় নেতৃত্বে আন্দোলন করে স্বাধীনতার পথে এগিয়ে যায়। তারই পথ ধরে স্বাধীকার আন্দোলন, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও সবশেষে স্বাধীনতা অর্জন।
আমাদের দেশের ৯৯ শতাংশ মানুষ বাংলায় কথা বলে। বাংলা ছাড়া অন্যান্য ভাষা যাদের মাতৃভাষা, তারাও বাংলা বলতে পারে। অথচ বিশ্বের অধিকাংশ দেশই বহু ভাষাভাষী, সেখানে প্রধান ভাষা একাধিক।

সেসব দেশে ভাষানীতি আছে। যেসব দেশে কোনো ভাষা আন্দোলন হয়নি, ভাষা সংস্কার নিয়ে কাজ হয়েছে। সর্বস্তরে জাতীয় ভাষা প্রয়োগে অবিচল আনুগত্য দেখায় জনগণ। সেসব দেশে ভাষার অবমাননা বা বিকৃতি শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গণ্য। (আজ প্রকাশিত হলো ৭ম পর্ব-চলবে)
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্ত ভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।তাজিকিস্তান রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সব রকম সহযোগিতা দেবেসাম্প্রদায়িক ও অশুভ শক্তিকে রুখে দেবার অঙ্গীকার নিয়ে বাংলা বর্ষ বরণউন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনের ঘোষণায় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণআজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস : নানা কর্মসূচি গ্রহণ একনেকের সভায় ৩,৪১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ প্রকল্প অনুমোদনপ্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতরা জাতির শত্রু : বেনজির আহমেদপ্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠানে আমরা সব ব্যবস্থা নিয়েছি : শিক্ষামন্ত্রীগাইবান্ধায় নবজাতককে আঁছড়িয়ে দিয়ে হত্যা করলো পাষণ্ড পিতা!গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা : ১৫ মে ভোট আমি কী পাগল ? প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত করবো ! ফের সমালোচনা ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে সরকার দলীয় এমপি রতন !আজ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনযশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীতে ছেলের হাতে বাবা খুন।সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনআজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস : জাতির বিনম্র শ্রদ্ধাকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াস রায়কে অশ্রুসিক্ত নয়নে শেষ বিদায় ভিয়েতনামে'র হোচিমিন সিটি'র একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড : নিহত ১৩ভারতে রাজ্যসভার জন্য ৭টি রাজ্যে ২৬টি আসনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছেমৌসুমি পাখিদেরকে দলে আশ্রয় প্রশ্রয় দেবেন না : ওবায়দুল কাদেরকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত আরো ৩ জনের মরদেহ ঢাকায় : পরিবারের কাছে হস্তান্তর
  • আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্ত ভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।তাজিকিস্তান রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সব রকম সহযোগিতা দেবেসাম্প্রদায়িক ও অশুভ শক্তিকে রুখে দেবার অঙ্গীকার নিয়ে বাংলা বর্ষ বরণউন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনের ঘোষণায় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণআজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস : নানা কর্মসূচি গ্রহণ একনেকের সভায় ৩,৪১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ প্রকল্প অনুমোদনপ্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতরা জাতির শত্রু : বেনজির আহমেদপ্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠানে আমরা সব ব্যবস্থা নিয়েছি : শিক্ষামন্ত্রীগাইবান্ধায় নবজাতককে আঁছড়িয়ে দিয়ে হত্যা করলো পাষণ্ড পিতা!গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা : ১৫ মে ভোট আমি কী পাগল ? প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত করবো ! ফের সমালোচনা ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে সরকার দলীয় এমপি রতন !আজ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনযশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীতে ছেলের হাতে বাবা খুন।সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনআজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস : জাতির বিনম্র শ্রদ্ধাকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াস রায়কে অশ্রুসিক্ত নয়নে শেষ বিদায় ভিয়েতনামে'র হোচিমিন সিটি'র একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড : নিহত ১৩ভারতে রাজ্যসভার জন্য ৭টি রাজ্যে ২৬টি আসনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছেমৌসুমি পাখিদেরকে দলে আশ্রয় প্রশ্রয় দেবেন না : ওবায়দুল কাদেরকাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত আরো ৩ জনের মরদেহ ঢাকায় : পরিবারের কাছে হস্তান্তর
উপরে