প্রকাশ : ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:১৩:০৩
‘জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনতে যুব সংহতিকে ভ্যানগার্ডের দায়িত্ব পালন করতে হবে’
বাংলাদেশ বাণী, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : জগন্নাথপুর উপজেলা জাতীয় যুব সংহতির উদ্যোগে ঈদপূনর্মিলনী, যোগদানও পৌর কমিটি গঠন উপলক্ষে এক আলোচনাসভা অনুষ্টিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় পৌর শহরের সিলেটি বাসষ্ট্রেন্ড এলাকার যুব সংহতির অস্থায়ী কার্যালয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়।

উপজেলা জাতীয় যুব সংহতির আহবায়ক শাহ মোঃ এমরাজ মিয়ার সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক মোঃ রফিক উদ্দিনের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল মিয়া।

অন্যানোর মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুব সংহতির যুগ্ম আহবায়ক রফিকুল ইসলাম, মোঃ সাইফুদ্দিন, রুকন উদ্দিন, মস্তফা আলী, সায়েক আলম, আঃ তাহিদ, বাবুল মিয়া, সুরুজ আলী, আবুল কালাম, আক্কল আলী, সুহেল মিয়া। অন্যানোর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৫ নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টি নেতা আব্দুর রুপ সারং, রুনু দেব, মুলতান আলী, মছব্বির মিয়া প্রমুখ।

প্রধান অতিথি জগন্নাথপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল মিয়া বলেন জাতীয় পার্টির শাষনামলে দেশে কোন অরাজকতা ছিলনা, মানুষ শান্তিতে ছিল। এখন মানুষের মনে শুধুই অশান্তি বিরাজ করছে। দেশের জনগন এখন ৯ বছরের উন্নয়নের রূপকার পল্লীবন্ধু এরশাদের সেই স্বর্ণ যুগে ফিরে যেতে চায়। তাই জাতীয় পার্টির অতীত ইতিহাসকে পূণরায় ফিরিয়ে আনতে উপজেলার  ঘরে-ঘরে জাপার দূর্গ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি জাতীয় পার্টিকে পূনরায় রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনার জন্য যুব সংহতিকে ভ্যানগার্ডের দায়িত্ব পালনের আহবান জানান। সভায় যুব সংহতি নেতা সায়েক আলমকে আহবায়ক, তাহমিদ আহমদকে সাধারণ সম্পাদক ও নাইম রাজাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৬১ সদস্য বিশিষ্ট পৌর যুব সংহতির কমিটি ঘোষনা দেন উপজেলা যুব সংহতির আহবায়ক শাহ এমরাজ মিয়া। এর আগে পল্লীবন্ধু এরশাদের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে এবং আহাদ চৌধুরীর নেতৃত্বে ৩০ জন যুবক উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল মিয়ার হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে জাতীয় যুব সংহতিতে যোগ দেন।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • সিকান্দারের ব্যাটিং নৈপুণ্যে : স্বাগতিকরা ৪০ রানে হারিয়েছে সিলেট সিক্সার্সকেইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনি মধ্যপ্রাচ্যের ‘নয়া হিটলার’ : সৌদি যুবরাজবঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি যথাযথ মর্যাদায় সারা দেশে উদযাপন আজআওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষের সত্যিকার উন্নতি হয় : প্রধানমন্ত্রী দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন শেষ হয়েছেজার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও
  • সিকান্দারের ব্যাটিং নৈপুণ্যে : স্বাগতিকরা ৪০ রানে হারিয়েছে সিলেট সিক্সার্সকেইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনি মধ্যপ্রাচ্যের ‘নয়া হিটলার’ : সৌদি যুবরাজবঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি যথাযথ মর্যাদায় সারা দেশে উদযাপন আজআওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষের সত্যিকার উন্নতি হয় : প্রধানমন্ত্রী দশম জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন শেষ হয়েছেজার্মানী, সুইডেন ও ইইউ’র রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জোরালো সমর্থন রাবি ছাত্রী অপহরণ : সাবেক স্বামীসহ ২ জনকে ১ দিনের রিমান্ড বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করবো : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে : সমাবেশে বক্তারা গেইল-ম্যাককালামের ব্যর্থতায় কুমিল্লার কাছে রংপুরের পরাজয়রাবির অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার : নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা কাটেনিআজ নাগরিক সমাবেশে : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ফিরে পাবে একাত্তরের ৭ মার্চের আবহমিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহবান‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে’টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে ২৬ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকদলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি'র নেতৃত্বাধীন জোটসংসদীয় আসনের সীমানা পুন:নির্ধারণ আইন সংশোধনের খসড়া প্রস্তুত করেছে ইসিজিম্বাবুয়ের সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থানের কথা অস্বীকার করেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন বিষয়ে ইসি সিদ্ধান্ত নেয়নি : সিইসিআজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর : স্বজন হারাদের কাঁন্না থামেনি আজও
উপরে